ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ছেলের কারণে কি সঙ্কটে বাইডেন?

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ২০২০

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

গেল মঙ্গলবার রাতের প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কে (৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের আগে নির্ধারিত ৩ দফা বিতর্কের মধ্যে ১ম দফা) প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রমাণ ছাড়াই ঘোষণা করেছেন যে, ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী এবং সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেন কোকেন সেবনের দায়ে সামরিক বাহিনী থেকে অসম্মানজনকভাবে চাকিরচ্যুত হয়েছিলেন।

এটি একটি মিথ্যা দাবি ছিল। ইউএসএ টুডে জানিয়েছে, হান্টার বাইডেন নৌ বাহিনীতে কমিশন পাওয়ার পর একটি মাদক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে ব্যর্থ হলে, ২০১৪ সালে প্রশাসন তাকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়। পার্থক্যটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ এটি প্রমান করে যে, ট্রাম্প মঙ্গলবার রাতের বিতর্কে বুঝতে ব্যর্থ হয়েছেন যে, পুত্রের মাদকাসক্তি পিতার জন্য কলঙ্কময় নয় এবং রাজনৈতিক সুবিধা লাভের জন্য বিষয়টিকে কখনই অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করা উচিত নয়।

ছেলের আসক্তি স্বীকার করে জো বাইডেন বিতর্কে বলেছেন, ‘আপনাদের বাড়ির মানুষের মতোই আমার ছেলেরও ড্রাগের সমস্যা ছিল।’ ট্রাম্প বাইডেনের একমাত্র জীবিত পুত্র হান্টারের বিরুদ্ধে কথা বলায় (তার অন্য পুত্র বিউ বাইডেন ২০১৫ সালে ৪৫ বছর বয়সে মস্তিষ্ক ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।) বাইডেন বলেন, ‘সে এটিকে জয় করেছে। সে এটিকে নিয়ন্ত্রণে এনেছে এবং আমি তার জন্য গর্বিত। আমি আমার ছেলের জন্য গর্বিত।’ যখন বাইডেন ‘আপনাদের বাড়ির মানুষদের’ বলতে সম্ভবত ১২ বছরের বেশি বয়সের আনুমানিক ১৯ দশমিক ৭ মিলিয়ন আমেরিকানদের বুঝিয়েছেন যারা নেশাজাতীয় দ্রব্য ব্যবহারের ব্যাধি বা সাবটেন্স ইউজ ডিসওর্ডার-এসইউডি’তে আক্রান্ত হয়ে লড়াই করছেন এবং লাখ লাখ পরিবার তাদের সদস্যদের মাদকাসক্তি চিহ্নিত করতে সহায়তা করার পাশাপাশি তাদের সাথে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপন করছেন এবং তাদের আসক্তি থেকে উদ্ধার পেতে সাহায্য করছেন।

বাইডেন ২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট পদ প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেয়ার পর দ্য নিউ ইয়র্কারকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তার ছেলে হান্টার নিজের আসক্তি সম্পর্কে বলেছিলেন, ‘দেখুন, প্রত্যেকেই কষ্টের মুখোমুখি হয়। প্রত্যেকেরই যন্ত্রণা রয়েছে। প্রতিটি পরিবারে আসক্তি রয়েছে। আমি সেই অন্ধকারে ছিলাম। আমি সেই সুড়ঙ্গে ছিলাম; এটি একটি অন্তহীন সুড়ঙ্গ। আপনি এ থেকে মুক্তি পাবেন না। কীভাবে এটিকে মোকাবেলা করতে হবে, তা আপনিই ঠিক করে নেবেন।’ দ্য নিউ ইয়র্কার নিবন্ধটির শিরোনামে একটি প্রশ্ন রেখেছে: ‘হান্টার বাইডেন কি তার পিতার প্রচারণাকে সঙ্কটে ফেলবেন?’ এবং গত রাতে এর জবাব এসেছে। ট্রাম্প অবশ্যই বাইডেনের বিরুদ্ধে প্রচারণায় হান্টারের আসক্তিকে ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। বাইডেনকে প্রত্যুত্তরে আমেরিকানদের বারবার মনে করিয়ে দিতে হবে যে, আসক্তির সাথে তার ছেলের লড়াই তাকে এমন একটি জনগোষ্ঠীর সমস্যা উপস্থাপন করতে সক্ষম করে তোলে, যারা বিশ্বব্যাপী বিস্তৃত ক্রমবর্ধমান মাদকাসক্তির মহামারীতে ক্ষতিগ্রস্থ। তাই মঙ্গলবার রাতের বিতর্কটি এজাতীয় সমস্যাগুলির জন্য গুরুত্বপূর্ণ ও শিক্ষামূলক।

বাইডেনকে বদনাম করার জন্য হান্টারের আসক্তি ব্যবহারের চেষ্টা করার জন্য টুইটারে বহু লোক ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন। তাদের বার্তাগুলি স্পষ্ট। তারা আমেরিকার মাদকাসক্তির বিষয়ে রাষ্ট্রের কাছ থেকে আরও স্বচ্ছতা এবং মমত্ববোধ চায়। দ্য লিংকন প্রজেক্টের প্রবীণ বিষয়ক প্রবীণ উপদেষ্টা ফ্রেড ওয়েলম্যান টুইটারে লিখেছেন, ‘হান্টার বাইডেনের উপর আক্রমণটি অসাড় এবং অন্যতম মিথ্যা দাবি।’

স্টনি ব্রæক বিশ্ববিদ্যালয়ের মনস্তত্তে¡র অধ্যাপক জেসিকা শ্লেইডার একই রকম অনুভ‚তি প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘আমাদের একটি মাদকাসক্তি সঙ্কট রয়েছে এবং প্রেসিডেন্ট রাজনৈতিক অভিসন্ধির জন্য আসক্তি থেকে সেরে উঠতে থাকা একজনকে কলঙ্কিত করছেন।’ তিনি আরো লিখেছেন, ‘গতকাল রাতের পর আমার জ্ঞান এবং আবেগের সীমা ভেঙে পড়েছে, তবে দয়া করে সবাই জো বাইডেনের নেতৃত্ব অনুসরণ করুন: আপনি ভালোবাসেন এমন কেউ যদি মাদকাসক্তি থেকে সুস্থতার পথে থাকে, তাকে মনে করিয়ে দিন যে, নিশ্চিতভাবে আপনি তার জন্য গর্বিত। আসক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে থাকা লাখ লাখ মানুষের প্রতি আমাদের আরও শিক্ষিত এবং সহানুভ‚তিশীল হওয়ার কথা স্মরণ রাখা উচিত। একটি নির্বাচন জয়ের উদ্দেশ্যে তাদের সংগ্রামকে নৈতিক ব্যর্থতা হিসাবে চিহ্নিত করা উচিত নয়।’ সূত্র : ওয়েল এন্ড গুড।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Adhora Rahman ২ অক্টোবর, ২০২০, ৫:৪৩ এএম says : 0
সেরকমই তো মনে হচ্ছে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন