ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

আজহার আউট, রিজওয়ান ইন

ফের অধিনায়ক পরিবর্তন পাকিস্তানের

ডন ও ক্রিইনফো | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০২ এএম

আজহার আলী পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে সরফরাজ আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার ঠিক ১২ মাস পর নেতৃত্বে আরেকবার বদল আসছে। পিসিবির সদর দপ্তরে গুঞ্জন উঠেছে, তরুণ কেউ দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন। এই সম্ভাব্য অধিনায়ক হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। ডিসেম্বরে নতুন অধিনায়কের নেতৃত্বে পাকিস্তান নিউজিল্যান্ড সফর করতে পারে বলে জানিয়েছে ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো ও দেশটির জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম ডন।
আন্তর্জাতিক এই সংবাদমাধ্যমকে পিসিবি নিশ্চিত করেছে, আজহারের বার্ষিক মূল্যায়ন বোর্ডের কাছে পৌঁছে গেছে এবং প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান তার সঙ্গে দেখাও করেছেন। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখন নেওয়ার পালা। সাংবিধানিকভাবে অধিনায়কের নাম ঘোষণা বা ছাঁটাইয়ের ক্ষমতা পিসিবি সভাপতির। পরবর্তী ১০ দিনের মধ্যে আজহারের সঙ্গে তিনি দেখা করবেন।
আজহারকে সরিয়ে যার নাম উঠেছে, সেই রিজওয়ানকে ২০১৬ সালে টেস্টে অভিষেক হওয়ার পরই আড়ালে চলে যেতে হয়। পাকিস্তানের নিয়মিত উইকেকিপার ও অধিনায়ক সরফরাজের কারণে দুই বছর কোনও আলোচনায় ছিলেন না তিনি। তবে গত বছর দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন হয় তার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে খেলেন ৯৫ রানের ইনিংস। এই বছরের শুরুতে ইংল্যান্ডে তিন টেস্ট সিরিজের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন এবং পাকিস্তানের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেন। গত সপ্তাহে ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে খাইবার পাখতুনখাওয়াকে শিরোপা জয়ে নেতৃত্ব দেন। ২৮ বছর বয়সী উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান অধিনায়ক হিসেবে খ্যাতি কুড়িয়েছেন এই টুর্নামেন্ট দিয়ে।
অন্যদিকে ৩৫ বছর বয়সী আজহার দুই বছর ধরে ফর্মহীনতায় ভুগছিলেন। গত বছর করাচিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১১৮ রান করার পর কিছুটা আত্মবিশ্বাস ফিরে পান। যা ধরে রাখেন এই আগস্টের ইংল্যান্ড সফরেও। সাউদাম্পটনে বৃষ্টি বিঘ্নিত ড্রর ম্যাচে অপরাজিত ১৪১ রান করেন। এই দুটি ইনিংস দিয়ে নেতৃত্বে থাকার জন্য আরও কিছু সময় আদায় করেন ৮১ টেস্ট খেলা আজহার। কিন্তু টেলিভিশন ধারাভাষ্যকার ও সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম তার নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন।
ওয়ানডের মতো টেস্টে অধিনায়ক হিসেবেও শেষটা ভালো হতে যাচ্ছে না আজহারের। হঠাৎ করে পাওয়া ওয়ানডের অধিনায়কত্বও আচমকা হারিয়েছিলেন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। ২০১৫ বিশ্বকাপের পর মিসবাহ উল হক ও শহীদ আফ্রিদির ওয়ানডে অবসরের পর একদিনের ক্রিকেটে নেতৃত্ব পান তিনি। কিন্তু ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সফরে দলের হতাশাজনক পারফরম্যান্সের কারণে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ছাঁটাই করা হয় তাকে। এবারও একই পরিণতি বরণ করে নিতে হচ্ছে বর্তমান টেস্ট দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন