ঢাকা রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭, ১০ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জামিন পেলেও মুক্তি পাচ্ছেন না ইরফান সেলিম

নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে লাঞ্ছনা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০২ এএম

মদপান ও অবৈধ ওয়াকিটকি রাখার দায়ে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের দেয়া সাজায় আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর ইরফান সেলিম। অন্যদিকে, চকবাজার থানায় র‌্যাবের দায়ের করা মাদক ও অস্ত্র আইনে দুটি মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে পুলিশ। তারপরও এখনই কারাগার থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না ইরফান সেলিম। গতকাল ইরফান সেলিমের আইনজীবী প্রাণনাথ রায় বলেন, মদপান ও অবৈধ ওয়াকিটকি রাখার দায়ে র‌্যাবের দেয়া সাজার বিরুদ্ধে আপিলে ইরফান সেলিম জামিন পেয়েছেন। তবে কলাবাগান থানায় করা মারামারির মামলায় এখনও চার্জশিট জমা দেয়নি গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আবার অস্ত্র ও মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে করা দুই মামলায় আদালতে ফাইনাল রিপোর্ট দিলেও আদালত এখনও আবেদন মঞ্জুর করেননি। তাই কারাগার থেকে মুক্তি পেতে সময় লাগবে।

তিনি আরো বলেন, আবেদন মঞ্জুর হলে সেই কপি কারাগারে দিলে ওই দুই মামলা থেকে মুক্তি মিলবে। তবে মারামারির মামলায় চার্জশিট না দেয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। তাই কবে নাগাদ কারাগার থেকে ইরফান কবে মুক্তি পাবে, সে বিষয়ে সঠিক বলা যাচ্ছে না।

এদিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমদকে সস্ত্রীক মারধর করার অভিযোগে দায়ের করা মামলার তদন্ত শেষ পর্যায়ে। শিগগিরই এই মামলার চার্জশিট আদালতে জমা দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত বছর ২৫ অক্টোবর রাজধানীর ধানমন্ডিতে ইরফানের গাড়ি নৌবাহিনী কর্মকর্তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়ার পর, লাঞ্ছনার ঘটনা ঘটে। গত বুধবার ঢাকার আরেকটি আদালত ইরফান সেলিমকে দুটি মামলায় অন্তর্র্বতী জামিন দেন। অবৈধ রেডিও ট্রান্সমিটার রাখার জন্য গত বছরের ২৬ অক্টোবর র‌্যারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলম ইরফানকে ছয় মাসের কারাদন্ড এবং বিদেশি মদ রাখার জন্য ছয় মাসের কারাদন্ড দেন।

এদিকে, নৌবাহিনী কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে ইরফান সেলিমসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আগামী ১০ ফেব্রæয়ারি মধ্যে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকার একটি আদালত। গত বুধবার আদালতে গোয়েন্দা পুলিশ কোনও প্রতিবেদন দাখিল করতে না পারায় অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু বকর সিদ্দিক এ আদেশ দেন।

ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ইরফান ও তার চার সহযোগী এখন কারাগারে আছেন।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Rasel ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:০০ এএম says : 0
হায়রে বিচার... এটা শুধু নিরীহ মানুষের জন্য
Total Reply(0)
Md Jihad Hasan ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:০১ এএম says : 0
এদের মতো নেতাদের কারণে প্রসাশন তাদের দায়িত্ব পালন করতে পারছে না. আইনের চোখ বন্ধ করে দিচ্ছে। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা হচ্ছে না ওদের মত কিটদের কারণে
Total Reply(0)
Umme Salma ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:০২ এএম says : 0
হাজী সেলিম যদি অন্য কোন দলের হত তাহলে ঠিকই জেলহাজতে বাপ-বেটা থাকতো কারণ এটা আওয়ামিলীগের তো এই জন্য নেতা
Total Reply(0)
Gias Uddin Shihab ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:০৩ এএম says : 0
Good Decision
Total Reply(0)
নওরিন ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:০৪ এএম says : 0
তাকে তার প্রাপ্য সাজা দিতে হবে।
Total Reply(0)
Oranno Zihad ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:০৫ এএম says : 0
জামিনের দরকার কি? ওকে ছেড়ে দিলেই হয়। ও আর কি করেছে?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন