ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮, ২৮ রমজান ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

মুসলিম উম্মাহর জন্য যাকাত অন্যতম ফরজ একটি বিধান। এটিকে যাকাতদাতার সম্পদের উপর এক ধরনের কর বা ট্যাক্স বলা যায়। এ কারণে অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন, আমরা যেহেতু আমাদের সম্পদের উপরে সরকারকে রাষ্ট্র কর্তৃক নির্ধারিত ট্যাক্স বা কর প্রদান করেই থাকি, সুতরাং এমতাবস্থায় কেন আবার আলাদা করে যাকাত দিতে হবে? ইসলামের প্রাথমিক যুগে ইসালমিক খেলাফত আমলে রাজস্ব আদায় করা হত যাকাতের মাধ্যমে, পক্ষান্তরে বর্তমান যুগে সরকার রেভিনিউ আয় করে ট্যাক্স আদায়ের মাধ্যমে। যদি তাই হয়, তাহলে আবার আলাদা করে কেন যাকাত দিতে হবে?

আবু সালেহ
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০২১, ৭:১৬ পিএম

উত্তর : এ প্রশ্নটি অবান্তর। কারণ, কোনো দেশে যদি যোগব্যায়াম বা শরীরচর্চা বাধ্যতামূলক করা হয়, তাহলে মুসলমানরা কি এরপর আর নামাজ পড়বে না? সুতরাং রেভিনিউ বা ইনকাম ট্যাক্স দিয়ে দিলেই যাকাত দিতে হবে না, এ চিন্তাটি সম্পূর্ণ ভুল। কারণ, যাকাত নিছক ট্যাক্স নয়। এটি একটি ইবাদত। ইসলামী সরকার যাকাত ছাড়া জনগণ থেকে ইচ্ছেমত ট্যাক্স আদায় করতে পারে না, প্রয়োজনে সাদাকাহ ও ঐচ্ছিক দান নিতে পারে। ইসলামি সরকার যেখানে নেই, সেখানে জনগণ ট্যাক্স দিবে কি না, বা কি পরিমাণ দিবে, এটি তারা দিয়ে নিশ্চিন্ত বা আস্থাবোধ করেন কি না, সেটি তাদের বিষয়। অত্যাধিক জুলুম এবং ট্যাক্সের অপব্যবহার প্রমাণিত হলে অনেকে না দেওয়ার বা কম দেওয়ার চিন্তাও করে থাকেন। সেটি ভিন্ন মাসআলা। তবে, যাকাতের সাথে এর কোনো তুলনা হয় না। যাকাত একটি ফরজ ইবাদত। সব দেশে, সব অবস্থায়ই, সব সময় যাকাত দিতেই হবে।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
আব্দুর রহিম ১২ এপ্রিল, ২০২১, ৪:১৮ পিএম says : 0
আলহামদুলিল্লাহ খুব সুন্দর প্রশ্নের উত্তর
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন