ঢাকা, শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০২ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

যথাসময়েই শ্রীলঙ্কা যাবে টাইগাররা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

হঠাৎ করে করোনার বিস্ফোরণ। নতুন ভ্যারিয়েন্ট অনেক বেশি ছোঁয়াছে। যে কারণে করোনা আক্রান্তের হার এবং মৃত্যুর হার প্রতিদিনই রেকর্ড গড়ছে বাংলাদেশে। যে কারণে ৫ তারিখ থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করে সরকার।
যদিও খেটে খাওয়া মানুষ, ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে সপ্তাহ পূরণের আগেই লকডাউন পুরোপুরি শিথিল করে দেয়া হয়েছে। তবে সরকার এরই মধ্যে ঘোষণা করেছে ১৪ তারিখ থেকে কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে তারা। তখন আর কোনো শিথিলতা প্রদর্শণ করা হবে না।
এমন অবস্থায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর হবে কি হবে না- তা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। ৫ তারিখ লকডাউন ঘোষণার পর প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছিলেন, তারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন এবং এ নিয়ে সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন।
অবশেষে সিদ্ধান্ত পাকাপোক্ত করে ফেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বিসিবির সিইও সুজন গতকাল সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, যথাসময়েই শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। শুধু তাই নয়, আইসিসির এফটিপি অনুযায়ী শ্রীলঙ্কা দলেরও যে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা রয়েছে, সেই সূচিও বলবৎ রয়েছে। কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি এখনও।
শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ দলের সফর নিয়ে সিইও সুজন বলেন, ‘সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১২ তারিখে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল শ্রীলঙ্কাতে দুই টেস্ট ম্যাচে অংশগ্রহণের জন্য কলম্বোর উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে। আইসিসির এফটিপি অনুযায়ী শ্রীলঙ্কাও বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে। আশা করছি মধ্য মে’তে শ্রীলঙ্কা তিনটা ওয়ানডে ম্যাচ খেলার জন্য বাংলাদেশে আসবে।’
বিসিবির প্রধান নির্বাহী একই সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছেন, শ্রীলঙ্কার বাংলাদেশে আসার সময়সূচি ঠিকই থাকবে। তিনি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা জাতীয় দল বাংলাদেশে যে তিনটা ওয়ানডে এসে খেলবে, আমরা হোস্ট করব। এখন পর্যন্ত মধ্য মে’তে আসার কথা রয়েছে এবং মে’র শেষের দিকে এই তিনটা ম্যাচ আমরা আয়োজন করব।’
করোনার পরিস্থিতি বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর কিংসা শ্রীলঙ্কার বাংলাদেশ সফরের ক্ষেত্রে হুমকি কি না, জানতে চাইলে বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘আমরা সবকিছু বিবেচনায় রেখেই প্রোগ্রাম করছি। তারপরও যদি কোনো অসুবিধা হয় আমরা পরিস্থিতি বুঝে ব্যবস্থা নেব।’
শ্রীলঙ্কায় এবার বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের ওপর কোয়ারেন্টাইনের বড় কোনো চাপ নেই। এ নিয়ে সিইও বলেন, ‘আমাদের যেটা পরিকল্পনা রয়েছে প্রথম তিনদিন রুম কোয়ারেন্টাইন, তারপর অনুশীলন চলবে। এরপর আমাদের খেলোয়াড়দের মাঝেই একটা অনুশীলন ম্যাচের আয়োজন করা হয়েছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন