ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সাধারণ ভোটারদের মাঝে বাড়ছে ক্ষোভ

বায়রা দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন স্থগিত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০০ এএম

বায়রা দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের (২০২১-২০২৩) সংশোধিত নির্বাচনী তফসীল সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে নির্বাচন বোর্ড। গত ১২ এপ্রিল বায়লা নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মিরাজুল ইসলাম উকিল, বোর্ড সদস্য তরফদার সোহেল রহমান, ও সদস্য সুবর্ণ সরকার স্বাক্ষরে বায়রা নির্বাচন স্থগিত করা হয়। বায়রায় দু’টি পক্ষের মধ্যে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব দেখা দেয়ায় সাধারণ ভোটারদের মাঝে দিন দিন ক্ষোভ বাড়ছে। বায়রার একাধিক সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আসন্ন বায়রা নির্বাচনে বেশ উৎসব মুখর পরিবেশে তিন শতাধিক নমিনেশন ক্রয় করেছেন বায়রা সদস্যরা। বায়রার সাবেক অর্থ সচিব ফখরুল ইসলাম জানান, দুর্ভাগ্য হলেও সত্য যে, নির্বাচন কমিশন নমিনেশন জমা দেয়ার কয়েক ঘন্টা আগে হঠাৎ নির্বাচন স্থগিত করেছেন। সকলের প্রশ্ন কেন নির্বাচন স্থগিত করা হলো ? তিনি বলেন, বায়রার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন স্বপনসহ কয়েকজনের কাছে বায়রার বকেয়া পাওনা থাকায়, এদের মধ্যে প্রথম ভোটার তালিকায় পাঁচ জনের নাম ছিল। বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংঘঠনের অভিযোগের ভিত্তিতে আপিল বোর্ড তাদের অভিযোগ আমলে এনে, যাচাই বাছাই করে বায়রা কল্যাণ ফান্ডের টাকা বকেয়া আছে প্রমাণিত হওয়ায় তাদেরকে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা হতে বাদ দেন।
কিন্তু পরবর্তীতে তাদের মধ্যে বায়রার সাবেক মহাসচিব স্বপন , আল ইসলাম এর আবু জাফর ও সঞ্জরী ইন্টারন্যাশনাল এর মালিক আব্দুল্লাহ হাইকোর্টে গিয়ে ভোটার হওয়ার জন্য রিট করেন। তারা কোর্টেকে বুঝিয়েছেন তাদের কাছে কোনো প্রকার বকেয়া পাওনা নেই। ফলে তারা ভোটার হওয়ার রায় পেলেও কোর্ট নির্বাচন স্থগিতের বা ভোটার তালিকা বাদ দেয়ার রায় দেননি।
কোর্টের রায়ে তারা ভোটার হলেও তারা নির্ধারিত সময়ের পরে বেআইনি ভাবে বায়রা অফিসের কর্মকর্তাদেরকে হুমকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শন করে নমিনেশন ফরম সংগ্রহ করেছেন। আদালতের রায়ের পরে নিয়ম অনুযায়ী নমিনেশন ফরম ক্রয় করতে হলে নির্বাচন কমিশন ভোটার তালিকায় নাম অর্ন্তভূক্ত করতে হবে এবং অবশ্যই ভোটার নম্বর থাকতে হবে।
বায়রা নির্বাচন না হওয়া প্রশাসককে দীর্ঘ মেয়াদি রাখা অথবা ব্যক্তি স্বার্থে নির্বাচন পিছিয়ে দেয়া কোনো ভাবেই কাম্য নয়। বায়রা সদস্যদের প্রাণের দাবি যথা সময়ে নির্বাচন করে নির্বাচিত কমিটির নিকট দায়িত্ব হস্তান্তর করতে হবে। এদিকে, জনশক্তি রফতানিকারকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সির (বায়রা) আসন্ন নির্বাচনের (২০২১-২০২৩) চূড়ান্ত ভোটার তালিকা নিয়ে ভয়াবহ দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। বায়রার সচিব মো.মাকসুদুর রহমানের নেতৃত্বে বায়রা নির্বাচনী আপীল বোর্ড একটি পক্ষকে ক্ষমতায় আনার জন্য ভোটার তালিকা নিয়ে তুঘলকি কান্ড ঘটিয়েছে।
নির্বাচন বোর্ড অগণতান্ত্রিকভাবে খসড়া ভোটার তালিকার সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোটের প্যানেল প্রধান ও বায়রার সাবেক মহাসচিব মোহাম্মদ রুহুল আমিন স্বপনসহ ২৮ শীর্ষ পর্যায়ের বায়রা সদস্যের নাম চূড়ান্ত ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। কোন কারণ দর্শানোর নোটিশ ব্যতিরেকে এবং কোনরূপ আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে ২৮ জন শীর্ষ পর্যায়ের সদস্যের নাম ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। একটি পক্ষকে বায়রার ক্ষমতা দখলে সহায়তা করার জন্যই এসব অপকর্ম করা হয়েছে। বায়রা নির্বাচন বোর্ডের এসব দুষ্টচক্রকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে। নির্বাচন বোর্ডের বিতর্কিত এ গোষ্ঠী বিধি বর্হিভূতভাবে ৬৫ জন সদস্যকে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করেছে। সম্প্রতি বায়রার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন স্বপন এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। তিনি ত্রুটিমুক্ত ভোটার তালিকা প্রণয়নের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে বায়রা নির্বাচনে পুন:তফসীল ঘোষণার দাবি জানিয়েছিলেন। এক প্রশ্নের জবাবে বায়রার সাবেক মহাসচিব বলেন, আমাদের কাছে বায়রার কোনো বয়েকা পাওনা নেই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন