ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

এবার গাজায় ট্যাংক হামলা ইসরাইলের, নিহত বেড়ে ১১৩

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ মে, ২০২১, ৯:৪০ এএম

ইহুদীবাদী ইসরাইলি বাহিনী এবার ফিলিস্তিনের গাজায় বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পাশাপাশি এবার ট্যাংক থেকে গোলাবর্ষণ শুরু করেছে । অব্যাহত হামলায় এখন পর্যন্ত ১১৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের ৩১ জন শিশু। আহত হয়েছেন ৫৪০ ফিলিস্তিনি।

ইসরাইলি আর্টিলারি বাহিনী ট্যাংক থেকে গোলাবর্ষণ শুরু করলেও শুক্রবার ভোর নাগাদ গাজায় প্রবেশ করেনি বলে জানিয়েছে আলজাজিরা।

গাজায় ইসরাইলি হত্যাযজ্ঞের জবাবে রকেট হামলা অব্যাহত রেখেছে প্রতিরোধ সংগঠন হামাস ও ইসলামিক জিহাদ। এতে ইসরাইলে সাতজন নিহত হয়েছেন।

এদিকে, লেবানন থেকে ইসরায়েইকে লক্ষ্য করে তিনটি রকেট ছোড়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম হারেৎজ। তবে রকেটগুলো গিয়ে সাগরে পড়েছে।

গাজায় হত্যাযজ্ঞের প্রতিবাদে পশ্চিমতীর এবং ইসরাইলের অভ্যন্তরেও প্রতিবাদ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে আরবরা ইসরাইলি বাহিনী ও সেটলারদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে। ইহুদি সেটলাররা আরবদের বাসাবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

ইসরাইল ও গাজার পরিস্থিতি পর্যালোচনায় তৃতীয়বারের মতো শুক্রবার বৈঠকে বসতে যাচ্ছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। এর আগে দুইবার বৈঠকে বসলেও যৌথ বিবৃতি দিতে বাধা দেয় ইসরাইলের ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র।

গত সোমবার তৃতীয় দিনের মতো মুসলিমদের প্রথম কিবলা আল-আকসা মসজিদে ঢুকে মুসল্লিদের ওপর তাণ্ডব চালায় ইসরাইলি বাহিনী। অবরুদ্ধ করে রাখা হয় মুসল্লিদের।

আল-আকসা মসজিদ থেকে অবরোধ তুলে নেওয়ার সময়সীমা বেঁধে দিয়ে রকেট হামলার হুমকি দেয় গাজার প্রতিরোধ সংগঠন হামাস। সেখান থেকে বাহিনী সরিয়ে না নিলে ইসরাইলে রকেট ছোড়ে সংগঠনটি।

ইসরাইলি উগ্রবাদীদের ‘জেরুজালেম দখল দিবস’ উদ্‌যাপন এবং শেখ জাররাহ এলাকা থেকে ফিলিস্তিনি বাসিন্দাদের উচ্ছেদ ঘিরে এ উত্তেজনার সূত্রপাত হয়। এরপর আল-আকসা মসজিদের মুসল্লিদের ওপর কয়েক দফা হামলা চালায় ইসরাইলি বাহিনী। এতে সাত শতাধিক মুসল্লি আহত হন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Dr.Sheikh Farid Ahammod ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৫ এএম says : 0
ইসরায়েল নামক স্বতন্ত্র কোন জন পদ কখনোই ছিল না।ইহুদি নামক নৃতাত্ত্বিক একটি ক্ষুদ্র গোষ্ঠী ফিলিস্তিনসহ পার্শ্ববর্তী দেশে কিছু লোক ছিল। পশ্চিমারা ষড়যন্ত্র করে ইউরোপের ইহুদীদের ফিলিস্তিনে আশ্রয়ের নামে ফিলিস্তিনে বসবাসরত ইহুদীদের মিলে ভূমি দখল করে ফিলিস্তিনের জায়গা নিয়ে অবৈধ দখলদার দেশ তৈরী করে।অথচ আশ্রয়ীরা আজ মূল মালিকদের উচ্ছেদ করে ,হত্যা করে ।বিশ্ব দেখে কিন্তু নির্বাক কেননা অন্যায় করে পশ্চিমারা দেশ তৈরী করেছে।নিজ দেশে ফিলিস্তিন জাতী আজ অসহায় এবং পরাধীন।ইহুদীদের সন্ত্রাসী আক্রমণের তীব্র প্রতিবাদ করছি ।আল্লাহ আপনি ফিলিস্তিন ও ফিলিস্তিন জাতিকে তাদের হারানো সম্মান ও ভূমি উদ্ধার করে দিন।
Total Reply(0)
ক্ষনিকের দুনিয়া ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৫ এএম says : 0
ইসরাইল নামক সন্ত্রাসীগুষ্ঠিকে বিশ্ব মানচিত্র থেকে শেষ করা দরকার,এরা পৃথিবীকে অশান্ত করে তুলেছে।
Total Reply(0)
মানিক হায়দার ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৬ এএম says : 0
খুব শ্রিগ্রই ইয়াহুদী বাদীদের পতন আসছে,সাথে তার দোষরদেরও,জুলুমবাজ ঘাতকরা কখনও পার পাবে না,যদি সম্মিলিত ইসলামি বাহিনী দ্বারা ফিলিস্তিনের স্বাধীনতা এবং অখন্ডতা রক্ষা করা যায়"!
Total Reply(0)
Md Shourov ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৬ এএম says : 0
আল্লাহ সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরায়েলের হাত থেকে নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের রক্ষা করুন। নবি (সা.) বলেন, “তোমাদের কেউ যদি কোনো খারাপ কাজ বা বিষয় দেখে তাহলে সে যেন হাত দিয়ে তা পরিবর্তন করে দেয়,, যদি তা করতে অপারগ হয় তাহলে যেন মুখ দিয়ে তার প্রতিবাদ করে,, যদি তাও করতে সক্ষম না হয় তাহলে যেন অন্তর দিয়ে তা ঘৃণা করে,, আর এটাই হচ্ছে ঈমানের মধ্যে সবচেয়ে দুর্বলতম স্তর।" (বুখারি, হাদিস নং: ১৯৪)
Total Reply(0)
Mohammad Sakib ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৭ এএম says : 0
কোথায় জাতিসংঘ, কোথায় মানবাধিকার, এক মালালার জন্য তুমাদের কতো মায়া ছিলো,কিন্তুু হাজার ফিলিস্তিনের জন্য তোমাদের কোন মায়া হয় না।
Total Reply(0)
Galib Mohidullah ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৮ এএম says : 0
আসলে ব্রিটিশ আমেরিকা ওরা বড় সন্ত্রাসী, ওরা দখলদার ও দখলদারদের মদদদাতা, এখন ওরা মানবাধিকার লঙ্ঘন দেখে না নিজ দেশে ফিলিস্তিনিরা পরাধীন আহ আহ!
Total Reply(0)
Kazi Md Habib Uddin ১৪ মে, ২০২১, ১০:০৮ এএম says : 0
ইসরাইলী নামক সন্ত্রাসী রাষ্ট্রটির প্রতিটি স্বার্থে প্রতিটি মুসলিমের আঘাত করা উচিত।
Total Reply(0)
Dadhack ১৪ মে, ২০২১, ১২:৩৮ পিএম says : 0
Barbarian Unite snake never do anything to Israel and this time will do nothing just lip service like some so called muslim counties Leader.
Total Reply(0)
মোঃ+দুলাল+মিয়া ১৪ মে, ২০২১, ১২:৪০ পিএম says : 0
যোগের সাথে তালমিলিয়ে চলতে হবে,পাথর দিয়ে ইহুদিবাদের দমন করা সম্ভব হবে না,ইরান এবং পাকিস্তান এবং তুরস্ক জরুরি হামাস কে অস্রে দিয়ে সাহায্য করা উচিত,এই ভাবে আপসোস করলে লাভ নাই,জরুরি ক্ষেপণাস্ত্র এবং বিভিন্ন অস্রে দিতে আকুল আবেদন রইল।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন