রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

জয়ের সেঞ্চুরির সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১১:৫৩ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

শামীম চৌধুরী : আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক দশক পূর্তি হতে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামকে অপেক্ষা করতে হচ্ছে ২ মাস ৮ দিন। সারজা (২২৪), সিডনী (১৫২), মেলবোর্ন (১৪৫), হারারে (১২৯), প্রেমাদাসার পর ৫ম ভেন্যু হিসেবে ওয়ানডে ম্যাচের সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে দেশের সবচেয়ে ব্যস্ত এই ক্রিকেট ভেন্যুকে অপেক্ষা করতে হবে আর মাত্র ৭ ম্যাচ। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের ভাবমর্যাদা বদলে দেয়া এই ভেন্যুতে আজই ম্যাচ জয়ের সেঞ্চুরি উদযাপনের হাতছানি দিচ্ছে। জয়ে শুরু এই ভেন্যুর ওয়ানডে অভিষেক, জিম্বাবুয়ে, আয়ারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তানকে হোয়াইট ওয়াশের লজ্জা দিতে পারা হোম অব ক্রিকেটে এমন এক ইতিহাস রচনার সামনে দাঁড়িয়ে রীতিমতো রোমাঞ্চিত মাশরাফি। আজ আফগানিস্তানকে হারিয়ে দিতে পারলে ২৩তম ওয়ানডে সিরিজের ট্রফি নিশ্চিত করবে বাংলাদেশ, ওয়ানডে ম্যাচে ১শ’ তম জয়ও দেখবে বাংলাদেশ। শততম ওয়ানডে জয়ে সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলতে হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে, সংখ্যায় তা মাত্র ১৩১টি ম্যাচ। দ.আফ্রিকার সেখানে লেগেছে ১৬২, ইংল্যান্ডের ১৯২, পাকিস্তানের ২০১, ভারতের অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে ২৩২, নিউজিল্যান্ডের ২৪১, শ্রীলংকার ২৬৯ ম্যাচ। ৩১৪ তম ম্যাচে শততম ম্যাচ জিতলে জিম্বাবুয়ের জয়ের সেঞ্চুরির রেকর্ডকে (৩৮৫ তম ম্যাচ) টপকে যাবে বাংলাদেশ দল। দেশের হয়ে ৩১৪তম ওয়ানডে ম্যাচের সামনে দাঁড়িয়ে তাই দারুন এক শিহরণ অনুভব করছেন মাশরাফিÑ ‘আমি না হই, কেউ না কেউ তো এমন রেকর্ডের সামনে থাকতই। তবে এমন কিছু করতে পারলে বাংলাদেশের জন্য বড় অর্জন হবে।’
১৯৮৬ সালের ৩১ মার্চ ওয়ানডে ম্যাচের অভিষেক হয়েছে বাংলাদেশের কলোম্বোর মোরাতুয়ায়। পাকিস্তানের কাছে ৯৪ রানে অল আউট হয়ে ৭ উইকেটে হেরে যাওয়া বাংলাদেশ সেই ম্যাচের তিন দশক পূর্তি করেছে বাংলাদেশ ৫ মাস ২৮ দিন আগে। সেই দলটিই ৩১৩টি ম্যাচে ৯৯টি জয় পেয়েছে। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের পথচলার শুরুটা কিন্তু এতোটা মসৃণ ছিল না। ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথম ম্যাচ জিততে বাংলাদেশকে অপেক্ষা করতে হয়েছে ২৩তম ম্যাচ পর্যন্ত। কেনিয়ার বিপক্ষে প্রথম জয়ে দেশকে দারুন এক সুখবর দিতে বাংলাদেশকে করতে হয়েছে এক যুগ! প্রথম ১০০ ম্যাচে বিচ্ছিন্ন জয়েও র‌্যাঙ্কিংয়ে তলানীতে ছিল বাংলাদেশের অবস্থান। কারন,প্রথম ১০০ ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ের সমষ্টি মাত্র ৬টি। দ্বিতীয় ১০০ ম্যাচে বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে দেখেছে বিশ্ব। যে অধ্যায়ে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ ৪০টি। তৃতীয় ১০০ ম্যাচে ৪২টিতে পেয়েছে জয় বাংলাদেশ। তিনশ’ পেরিয়ে বাংলাদেশ এখন ওয়ানডেতে ভয়ংকর এক দল। সর্বশেষ ১৩ ম্যাচের ১১টিতে জিতে, চার চারটি সিরিজের ট্রফিতে র‌্যাঙ্কিংয়ে ৭ এ উঠে বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে বাংলাদেশ।
অধিনায়ক মাশরাফি ২৯ ম্যাচে ২১ জয়ে সাফল্যের হার ৭২.৪১ শতাংশ! তার অধিনায়কত্ব ফিরে পাওয়ার দ্বিতীয় অধ্যায় থেকেই অন্য এক বাংলাদেশ দলকে দেখছে বিশ্ব। অধিনায়কত্বের ২২ মাসের মধ্যে হোমে টানা ৫ সিরিজের সব ক’টির ট্রফি জয়ে অতীতের সব অধিনায়ককে ছাপিয়ে রেকর্ডটা ইতোমধ্যে করে ফেলেছেন। হোমে সর্বশেষ ১৮ ম্যাচে ১৬ জয়ে অন্য এক বাংলাদেশের আবির্ভাব এখন রীতিমতো গবেষণার বিষয়। বাংলাদেশের হয়ে টানা ৬ষ্ঠ ওয়ানডে সিরিজের ট্রফি আজই নিশ্চিত করতে চান মাশরাফিÑ ‘সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ। এই ম্যাচটি জিততে পারলে সিরিজটা নিশ্চিত হয়ে যাবে।’
১০ মাস পর ওয়ানডে খেলতে নামলে যে প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হতে হয়, আইসিসি’র সহযোগী সদস্য দেশ আফগানিস্তানের কাছে পর্যন্ত সে শিক্ষা পেয়েছে মাশরাফির দল। নাভিশ্বাস উঠিয়ে ছাড়া আফগানিস্তানকে শ্লগের বোলিংয়ে ৭ রানে হারিয়ে তাই আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন মাশরাফিÑ ‘জাতীয় দলের হয়ে না খেলে, ‘এ’ টিম কিংবা অন্য দলের হয়ে খেললে জাতীয় দলের মতো পরিবেশ কখনোই পাওয়া যাবে না। আন্তর্জাতিক ম্যাচ ভিন্ন জিনিস। আন্তর্জাতিক ম্যাচ আন্তর্জাতিক ম্যাচই। প্রথম ম্যাচে জয় গুরুত্বপূর্ণ। প্রথম ম্যাচে বের হয়ে যেতে পারলে অনেক ফ্রি থাকা যায়। আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে বড় কিছু না হলেও একটা কঠিন পার্ট চলে গেছে। খেলার কথা বলা যায় না ৃ.আশা করি সামনের ম্যাচে এ ম্যাচ থেকে মানসিকভাবে ভালো অবস্থানে থাকব।’
বাংলাদেশের নাভিশ্বাস উঠিয়ে ছাড়া আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খানও সিরিজে ফিরতে দ্বিতীয় ম্যাচকে টার্গেট করেছেনÑ‘ কোচ এবং অধিনায়ক আমাদের বলেন মাঠে গিয়ে পজিটিভ ক্রিকেট খেলতে। গত ম্যাচে আমরা সেটাই করেছি। অনেক ক্লোজ ম্যাচ ছিল এবং আমাদের জেতা উচিত ছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত দুর্ভাগ্য যে আমরা কিছু ভুল করেছি। আশা করছি পরের ম্যাচে আমরা সেরাটা দিব।প্রথম ওয়ানডেে শেষ দশ ওভারে যে ভুলগুলো করেছি সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে চাই।’
সিরিজের প্রথম ম্যাচে তিন ভার্সনের ক্রিকেট মিলে ৯ হাজারী ক্লাবের সদস্যপদ পেয়েছেন বাঁ হাতি ওপেনার তামীম ইকবাল। সব ফরমেটের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারে অনন্য রেকর্ড করেছেন সাকিব আল হাসান। আর মাত্র ৩৫ রান করলেই এক ভেন্যুতে সর্বাধিক রানে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে রিকি পন্টিংয়ের গড়া রেকর্ড (৩৪৬৭রান) ভেঙ্গে শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে নিজের সাফল্যকে উপরে তুলে আনবেন সাকিব আল হাসান। সাকিবের আর একটি মাইলস্টোনের সিরিজে ওয়ানডে ম্যাচ জয়ের সেঞ্চুরির সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ দল। আজ শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে আফগানদের হারাতে পারলেই ওয়ানডে জয়ের সেঞ্চুরি পূর্ন হবে বাংলাদেশের। হোম অব ক্রিকেট থেকে এমন ইতিহাসেরই স্বাক্ষী হতে চান সমর্থকরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Miloy Khan ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২২ পিএম says : 0
Be careful, Afganistan is very Dangerous Team.
Total Reply(0)
নাহিদ ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ২:১৫ পিএম says : 0
শুভ কামনা রইলো
Total Reply(0)
ফারজানা ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ২:১৬ পিএম says : 0
আজকেও বাংলাদেশ জিতবে। ইনশা আল্লাহ
Total Reply(0)
রবিন ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ২:১৭ পিএম says : 0
আজকে মাশরাফির হাতেই হবে জয়ের সেঞ্চুরি
Total Reply(0)
Masud ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ৪:৫৮ পিএম says : 0
ai series ta jeta khub joruri
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন