রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অস্ত্রসহ কিশোর গ্যাংয়ের ৪৬ সদস্য আটক

নরসিংদীর মেঘনায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

সরকার আদম আলী, নরসিংদী থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে স্টিল বডির নৌকাযোগে মেঘনা নদীতে ঘোরাফেরা করার সময় ৪৬ সদস্যের এক বিশাল কিশোর গ্যাং ধরা পড়েছে। কোভিড-১৯ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ ও লকডাউন বাস্তবায়নে নরসিংদী জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. রইছ আল রেজুয়ানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত নাগরীয়াকান্দি ব্রিজ সংলগ্ন নদীতে অভিযান চালিয়ে এই কিশোর গ্যাং কে আটক করেন।

জানা গেছে, নাগরিয়াকান্দি শেখ হাসিনা সেতু এলাকাটি দিনদিন একটি অপরাধপ্রবণ এলাকায় পরিণত হচ্ছে। সপ্তাহ খানেক পূর্বে এই এলাকায় একটি হত্যাকাণ্ডও সংঘটিত হয়েছে। শহরের শান্তিপ্রিয় মানুষ শেখ হাসিনা সেতু এলাকায় ভ্রমণ করতে গেলে তাদের নিকট থেকে সর্বস্ব কেড়ে নিচ্ছে সন্ত্রাসীরা। গত শনিবার সন্ধ্যার পর ৪৬ সদস্যের একটি কিশোর গ্যাং ইঞ্জিনচালিত নৌকা নিয়ে সাউন্ডবক্স বাজিয়ে হইহুল্লোড় করে ঘোরাফেরা করতে থাকে। লকডাউনের সময় এই ধরনের ঘটনাটি দৃষ্টিকটু পর্যায়ে পৌঁছালে বিষয়টি ভ্রাম্যমাণ আদালতকে অবহিত করা হয়। খবর পেয়ে নরসিংদীর এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. রইছ আল রেজওয়ানের নেতৃত্বে বিজিবি আনসার সমন্বয়ে গঠিত ভ্রাম্যমাণ আদালত স্পিডবোট নিয়ে মেঘনায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাংটিকে আটক করে। এসময় নৌকায় তল্লাশি চালিয়ে প্লাস্টিকের বস্তায় ভর্তি চাপাতি, চাইনিজ কুড়াল, রামদা, নান চাকু ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জিজ্ঞাসাবাদে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা কোনো সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারায় তাদেরকে তাৎক্ষণিকভাবে আটক করা হয়। কিশোর গ্যাংটি নরসিংদী পৌর এলাকার কাউরিয়াপাড়া, শালিধা, মাধবদী থানাধীন চাঁন্দের পাড়া ও নজরপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরে যাচাই বাছাই করে আটককৃত কিশোর গ্যাংয়ের ৭ জনের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমানিত হওয়ায় এক্সিকিটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নিয়মিত মামলা দেয়ার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন। অন্য সদস্যদের বয়স কম হওয়ায় তা বিবেচনায় এনে মোবাইল কোর্টের আওতায় জরিমানা করে মোসলেকা নিয়ে পিতামাতার কাছে হস্তান্তর করেন। অভিযানে আনসার, ভিডিপি দলনেতাগণ, বিজিবি ও জেলা পুলিশ নরসিংদীর সদস্যরা সার্বিক সহযোগিতা করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
মোঃ+দুলাল+মিয়া ২৬ জুলাই, ২০২১, ৩:১১ এএম says : 0
এরা কি ভাবে এই রকম হলেন ,আচ্ছা এই রকম হইলে কি সরকারের সমস্যা আছে আমরা মনে করিনা তাতে সরকার লাভবান ,21 শেষ 22 আসতেছে মাত্র 1,1,5 বসর বাকী নির্বাচন আসতেছে,এদের কাজে আসবে ,আর এরা যদি লেখা পড়া করে কি লাভ হবে,করনায় মরে যাবে,করনা থেকে বাঁচানের জন্যই কিসের গাং জরুরি,এক গুলিতে দুই শিকার এক দিকে ক্ষমতা হারানোর ভয় নাই,অন্য দিকে এদের করনার থেকে বাঁচাইয়া রাখা,স্কুল কলেজ ইউনিভার্সিটি খুলিলে আমাদের সন্তানরা করনায় মৃত্যু হবে,তাই স্কুল কলেজ ইউনিভার্সিটি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে,আমরা আশা করবো তোমরা বড় বড় গাং গড়ে তুলবে ,ভবিষ্যতে আমাদের যেমন কাজে আসে। তোমাদের মা বাবা এখন আমরা সরকার, তোমাদের জীবন কি করে গড়তে পারি আমাদের চিন্তা,যাক আমরা আশা করবো তোমরা আরো ছাত্র ছাত্রীদের কিসের গাং কে যোগ দিতে বলবে,সামনে নির্বাচন আসবে তোমাদের আমাদের পয়োজন,তোমরা চিন্তা করিও না,আমরা স্কুল কলেজ ইউনিভার্সিটি বন্ধ করে রাখবে,এই সুযোগে তোমরা গেংগ করে ঘুরে ফিরে আউস করতে থাকে,নির্বাচন এর বেশি দেরি নেই,এখন থেকে পসতুত হতে হবে,স্কুল কলেজ ইউনিভার্সিটি ঐ গুলি মনে নেওয়ার দরকার নেই,তোমরা করনায় মরে যাবে,আদরে তোমাদের মা বাবা জাতীয় সংসদ।
Total Reply(0)
Jibon Mondal ২৬ জুলাই, ২০২১, ৫:৩১ এএম says : 0
এরা কারা মাসুদ। তোমাকে বলেছিলাম দেখে শুনে রাখবা। সত্যিই এদেশে এক শ্রেণীয় বেকার কিশোর গ্যাং তৈরি হচ্ছে। এগুলো আগামীতে দেশের জন্য ভয়াবহতা তৈরি করবে। তাই এখনি প্রশাসনে কঠোর নজরদারী রাখতে হবে।
Total Reply(0)
Siraz Ul Islam ২৬ জুলাই, ২০২১, ৫:৩১ এএম says : 0
এরকম কিশোর গ্যাং বর্তমান বাংলাদেশের প্রতিটি পাড়া মহল্লায়।
Total Reply(0)
Siraz Ul Islam ২৬ জুলাই, ২০২১, ৫:৩১ এএম says : 0
এরকম কিশোর গ্যাং বর্তমান বাংলাদেশের প্রতিটি পাড়া মহল্লায়।
Total Reply(0)
পদবী চাকরী ২৬ জুলাই, ২০২১, ৫:৩২ এএম says : 0
প্রতিটি এলাকায় কিছু অমানুষ আছে তাদের কারণে কিশোর ছেলে আর মেয়েরা খারাপ হয়ে যায় এখন ভালো মানুষ নেই সমাজে জন্য ভালো কাজ করবে সবাই গরিবদের খতির জন্য বসে থাকে আর যখন যে ক্ষমতা থাকে তাদের দুনীতি বাহিনীর জন্য সব শেষ হয়ে যায় কেউ ভালো না যারাই মানুষের ভালো পথ দেখাবে তারাই ভালো না দেশ চলে শুধু ক্ষমতা উপরে কেউ খায় কেউ খেতে পায় না
Total Reply(0)
Mahbubur Rahman ২৬ জুলাই, ২০২১, ৫:৩৩ এএম says : 0
দুর্নীতি প্রতিরোধের চেয়ে সুনীতি প্রতিষ্ঠার কাজ বেশি টেকসই। কিশোর গ্যাং বন্ধ জরুরি কিন্তু কিশোর গ্যাং তৈরি যেন না হয় সেটি কার্যকর পদক্ষেপ আরো বেশি জরুরি ও টেকসই। কিশোর গ্যাং তৈরির অন্যতম কারণ- শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ও এন্ড্রয়েড ডিভাইস এর অবারিত ব্যবহার।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন