শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভারতে মুসলিম নির্যাতন বন্ধে বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে এগিয়ে আসার আহ্বান

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:১৬ পিএম

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন প্রধান আমীরে শরীয়ত আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী ভারতে মুসলিম নির্যাতনের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে বলেছেন, বিনা অপরাধে ভারতে সংখ্যালঘু মুসলিমদের উপর মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হামলা চালাচ্ছে সেদেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন। হামলাকারী উগ্র হিন্দুরা সন্তানের সামনেই বাবাকে নির্যাতন করছে এবং জোর করে হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ, জয় শ্রীরাম, প্রভু রামের জয় হোক , এ ধরনের স্লোগান দিতে বাধ্য করছে। হিন্দু প্রধান এলাকাগুলোতে মুসলিম পরিবারগুলো স্বাধীনভাবে তাদের ধর্মকর্ম পালন ও নিরাপদে বসবাস করতে পারছে না। বিভিন্ন সংবাদপত্র ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এসব হামলার সংবাদ বারবার শিরোনাম হওয়ার পরেও ভারত সরকার অপরাধীদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের আইনগত শাস্তির ব্যবস্থা নিচ্ছে না। অথচ বাংলাদেশে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানসহ সব ধর্মের মানুষ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করছে ।একই উঠানে এবং পাশাপাশি মসজিদ এবং মন্দির থাকার পরেও কোন ধরনের সম্প্রীতি বিনষ্টের ঘটনা ঘটছে না। তিনি বলেন, গত আগস্ট মাসেই ভারতে মুসলিম নির্যাতনের কয়েকটি ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। বিগত মার্চে ১৪ বছর বয়সী একজন মুসলিম বালক পিপাসার্ত হয়ে পানি পান করার জন্য হিন্দুদের একটি মন্দিরে প্রবেশ করেছিল।এই অপরাধে তাকে নির্দয়ভাবে প্রহার করা হয়েছে। তাছাড়া ভারতের উত্তরপ্রদেশের কানপুরে ৪৫ বছর বয়সী একজন মুসলিম রিকশাচালককে তার শিশু সন্তানের সামনেই নির্যাতন করা হয়েছে। এ সময় ভয়ে তার ছোট্ট মেয়েটি তার পিতাকে প্রহার না করার জন্য আকুতি জানাচ্ছিল।

আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী আরো বলেন, গত তিন বৎসর যাবৎ ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক আলিশান জাফ্রী ভারতীয় মুসলিমদের বিরুদ্ধে হামলার ডকুমেন্ট সংগ্রহ করে বলেছেন, ভারতে মুসলিম বিরোধী ব্যাপক সহিংসতা হচ্ছে। তিনি প্রতিদিন এ ধরনের নির্যাতনের চারটি করে ভিডিও ধারন করেন এবং অনেকগুলো ঘটনা যাচাই-বাছাই করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমও শেয়ার করেন । ২০১৪ সালের পর ভারতে মুসলিমবিরোধী সহিংসতা আঙ্ককা জনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে । দিল্লী ইউনিভার্সিটি রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক প্রফেসর তানভীর বলেন, ভারতে সা¤প্রদায়িক সহিংসতা নতুন কোন বিষয় নয়। ক্ষমতাসীনদের উস্কানির কারণেই এসব সহিংসতা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। অনলাইন বিবিসির প্রতিবেদনে গীতা পান্ডে বলেন, মোদির প্রথম মেয়াদে ক্ষমতার সময়ে মুসলিম নির্যাতনের ঘটনা ব্যাপক আকার ধারণ করেছিল। বিশেষ করে কেউ গরুর মাংস খেলে বা বিক্রির চেষ্টা করলে, গরু জবাই করলে তাদের ওপরে জঘন্যভাবে হামলা চালানো হতো। মুসলিম নির্যাতনের এসব ভিডিও ভারতের মুসলমানদের উপর অন্যায় আক্রমণের চিত্রকে ফুটিয়ে তুলছে। ভারতে এতসব মুসলিম নির্যাতনের ঘটনা ঘটা সত্তে¡ও ভারতের মোদী সরকার অপরাধীদের বিচার করা তো দূরের কথা এসব ঘটনার কারণে নিন্দা জানানোরও প্রয়োজন বোধ করছে না। আল্লামা আতাউল্লাহ হাফিজ্জী ভারতে মুসলিম নির্যাতন বন্ধে এগিয়ে আসার জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
iqbal ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:৪১ পিএম says : 0
Bharoter muslim nirjatoner jonno hindu mohajot,socheton nagorik choop keno?Ekhon tara rastai nama na keno?
Total Reply(0)
Saifullah ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২১ এএম says : 0
Ekhon beyman deshdrohi Rana dash Gupta chip keno. Ei ......... varoter agent rss, iskoner shathe jog ase.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন