মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগের আহ্বান এফবিসিসিআইর

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

দেশের সম্ভাবনাময় খাতে বিনিয়োগ করে নতুন সম্ভাবনাগুলো থেকে লাভবান হতে যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এফবিসিসিআই সভাপতি জসিম উদ্দিন। গত শুক্রবার নিউইয়র্কে আমেরিকান বাংলাদেশি বিজনেস অ্যালায়েন্স আয়োজিত বার্ষিক বিজনেস সামিটে অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান। এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে দুই দেশের ব্যবসায়িক যোগাযোগকে শক্তিশালী করতে হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষে এই বছরটি আমাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বছর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অগ্রগতিগুলো তুলে ধরে তিনি বলেন, ডিজিটালাইজেশন, শিল্পায়ন, ট্যুরিজম ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে নতুন বিশ্বের নতুন আশা বাস্তবায়নে বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বের দ্রুত সম্প্রসারণশীল অর্থনীতির দেশ। এমনকি করোনা মহামারী চলাকালীন ২০২০-২১ অর্থবছরে আমরা পাঁচ দশমিক ৪৭ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি এবং টেকসই উন্নয়নের ক্ষেত্রেও বাংলাদেশের অর্জন উল্লেখযোগ্য। অবকাঠামো উন্নয়নের লক্ষ্যে মেগা প্রকল্পের বাস্তবায়নের বিষয়ে তুলে ধরে তিনি বলেন, এরই মধ্যে মহাসড়কগুলো চার লেনে উন্নীত হয়েছে। খাতভিত্তিক ক্লাস্টার জোন ও হাইটেক পার্ক হয়েছে। ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হয়েছে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ বন্ধু এবং বহুমুখী স্বার্থ উন্নয়নের অন্যতম অংশীদার। আমাদের অর্থনীতি, টেকসই উন্নয়ন, জলবায়ু পরিবর্তন, খাদ্য নিরাপত্তা এবং স্বাস্থ্য ও শিক্ষা উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে তাদের অবদান রয়েছে। এ সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে মার্কিন ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে পারে। বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্য, বিনিয়োগ, নির্মাণসহ অর্থনীতির প্রত্যেকটি খাতে প্রবাসীদের রেমিট্যান্সের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরে রেমিটেন্সের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৪ দশমিক ৭৭ বিলিয়ন ডলার। বর্তমান সরকারের ঐকান্তিক ক‚টনৈতিক প্রচেষ্টা এবং শ্রমিকের নিরাপত্তা, নিরাপদ বহির্গমন নীতিমালা উন্নয়নসহ বিভিন্ন বলিষ্ঠ পদক্ষেপের ফলে বিভিন্ন দেশে শ্রমবাজার সম্প্রসারণ অব্যাহত রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন