বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

বাফুফে কর্তাদের পদত্যাগ দাবি মোহামেডানের

প্রকাশের সময় : ১৪ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : ভুটানের বিপক্ষে এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের প্লে-অফের অ্যাওয়ে ম্যাচে বাংলাদেশের লজ্জাজনক হারে ক্ষুব্ধ সারাদেশের ফুটবলপ্রেমীরা। জাতীয় দলের ব্যর্থতার জন্য তারা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) কর্মকর্তাদেরই দায়ী করছেন। তাদের দাবি দেশের ফুটবলকে যারা অন্ধকারে নিমজ্জিত করেছেন সেই সব কর্মকর্তাদের কোনো অধিকার নেই বাফুফের দায়িত্বে থাকার। তাই অচিরেই বাফুফের বর্তমান কমিটির কর্মকর্তাদের পদত্যাগ দাবি করেছেন দেশের কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমী। তাদের সঙ্গে সহমত পোষণ করে এবার বাফুফে কর্মকর্তাদের পদত্যাগ দাবি করেছে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। গতকাল ক্লাবের ডাইরেক্টর ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই পদত্যাগ দাবি করা হয়। শুধু তাই নয়, দেশের ফুটবলের স্বার্থ রক্ষার জন্য মোহামেডান কর্মকর্তারা সরকারের শীর্ষ মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
অন্যদিকে দেশের ফুটবলকে যারা ধ্বংসের পথে ঠেলে দিচ্ছে তাদের শাস্তি দাবিসহ তারা ২৫ দফা নিয়ে কাল বিকালে বাফুফে ভবনের সামনে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরাম।
মোহামেডানের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও ঐতিহ্যবাহী ক্রীড়া সংগঠন মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছে যে, দেশের জনপ্রিয় খেলা ফুটবল বর্তমানে ধবংসের দ্বারপ্রান্তে। বাংলাদেশের ফুটবলের প্রসার ও উন্নয়নে মোহামেডানের গৌরবময় ভূমিকা রয়েছে। দেশের ফুটবলের বর্তমান চরম দুর্দশায় মোহামেডান অত্যন্ত উদ্বিগ্ন, ব্যথিত ও হতাশ। দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের বর্তমান কমিটি দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের ফুটবলে বিপর্যয় শুরু হয়, যাহা ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত রয়েছে।
গত ১০ অক্টোবর ভুটানের কাছে লজ্জাজনক পরাজয় ব্যর্থতার ধারাবাহিকতারই ফল। এ হারে ফিফা ও এএফসি আয়োজিত কোন ম্যাচেই আগামী তিন বছর খেলতে পারবে না বাংলাদেশ। ফুটবলপ্রেমী জাতি হিসাবে বাংলাদেশের জনগণের জন্য যা অত্যন্ত লজ্জা ও অসম্মানের।
শুধু তাই নয় ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার র‌্যাঙ্কিংয়েও ইতিহাসে সর্বনি¤œ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। কাজী সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে বাফুফের বর্তমান কমিটি দেশের ফুটবলকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করার সকল প্রক্রিয়াই সম্পূর্ণ করেছে। স্থানীয় পর্যায়ের ফুটবলের প্রতি বাফুফের চরম অবজ্ঞা ও অবহেলার বিষয়টি ইতোমধ্যে মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে ক্লাবগুলোর উপর। যে কারণে দেশের জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাবগুলোও এখন মারাত্মকভাবে খেলোয়াড় সংকটে পড়েছে এবং ভালোমানের খেলোয়াড় না থাকায় দর্শকরাও ক্রমেই ফুটবলের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে। যার প্রমাণ দর্শক শূন্য স্টেডিয়াম।
অথচ বাফুফে প্রতি বছর ফুটবল উন্নয়নের নামে কোটি কোটি টাকা অপরিকল্পিতভাবে খরচ করছে, যে খরচ নিয়ে ব্যাপক দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগও রয়েছে ক্রীড়াঙ্গনে। দেশের শীর্ষ স্থানীয় ফুটবল ক্লাব হিসেবে মোহামেডান মনে করে দেশের ফুটবলকে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিকভাবে ধ্বংস করার জন্য সম্পূর্ণরূপে দায়ী বাফুফের বর্তমান অযোগ্য ও অদক্ষ নেতৃত্ব। তাদের আর দায়িত্বে থাকার কোন নৈতিক অধিকার নেই। বাফুফের বর্তমান অযোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে কোনভাবেই আর বাংলাদেশের ফুটবলকে বাঁচানো সম্ভব নয়। তাই এমতবস্তায় মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড দেশের ফুটবলের বৃহত্তর স্বার্থে ব্যর্থতার সকল দায়ভার মাথায় নিয়ে বাফুফের বর্তমান কমিটির সকল কর্মকর্তার অবিলম্বে পদত্যাগ দাবি করছে। একই সঙ্গে দেশের ফুটবলকে বাঁচানোর জন্য ফুটবলপ্রেমী সকলকে ঐক্যবদ্ধ উদ্যোগ গ্রহণের আহŸান জানাচ্ছে। দেশের ফুটবলের স্বার্থ রক্ষায় এ ব্যাপারে তারা সরকারের শীর্ষ মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।’
এদিকে দেশের ফুটবলের এই ক্রান্তিলগ্নে বৃষ্টি উপেক্ষা করে কাল বিকাল সাড়ে ৩টায় বাফুফে ভবনের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরাম। সমাবেশে তারা ২৫ দফা দাবি ঘোষণাসহ বাফুফের বর্তমান কমিটির অযোগ্য কর্মকর্তাদের পদত্যাগ দাবি করে। শান্তিপূর্র্ণ এই বিক্ষোভ সমাবেশে সাপোর্টার্স ফোরামের সহ-সভাপতি আব্দুল বারী মানিক, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন জুবায়ের, সদস্য সাইফুল ইসলাম ও দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানসহ অগণিত ফুটবলপ্রেমী উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন