বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

‘নির্যাতন করে স্বীকারোক্তি আদায়ের অপচেষ্টা চলছে’

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০৬ এএম

মিথ্যা মামলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের রিমান্ডে নিয়ে অকথ্য নির্যাতন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, বিএনপি, যুবদলসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের রিমান্ডে নিয়ে অবর্ণনীয় অত্যাচার, নির্যাতন, নিপীড়ন করে মিথ্যা স্বীকারোক্তি আদায়ের অপচেষ্টা চলছে। গতকাল সোমবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, কুমিল্লার পূজামণ্ডপের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সারাদেশে যে সম্প্রদায়িক হানাহানির পরিবেশ দেশবাসী অবলকন করছে তা নজিরবিহীন। এই হিংসাশ্রয়ী ঘটনায় যাদের নাম গণমাধ্যমে আসলো তাদের অধিকাংশই সরকারী দলের অঙ্গসংগঠন যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতাকর্মী। অথচ তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা সরকার নেয়নি। ঘটনার সাথে যাদের ন্যূনতম কোন সম্পর্ক নেই বরং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা ও জনগণের মধ্যে ঐক্য রক্ষার জন্য কাজ করেছে বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সেসব নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে, গ্রেফতার করা হয়েছে।
তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের যে ঘটনাগুলো ঘটানো হয়েছে এটি পরিকল্পিত ও এর সাথে সম্পূর্ণরূপে সরকার জড়িত। কারণ চারিদিক থেকে ব্যর্থ হয়ে সরকার নানা ধরণের অমানবিক নীল নকশা প্রণয়ন করে চলেছে। এধরণের নজিরবিহীন ঘটনা আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনার আমলে বার বার হয়েছে।
রিজভী বলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলুসহ সারাদেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে। নোয়াখালী যুবদলের মঞ্জুল আজিম সুমন, বেলাল হোসেন সুমন, ইমাম হোসেন রায়হান, আমির হোসেন আমিরকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে নির্মম নির্যাতন চালাচ্ছে পুলিশ। সুমন ঠিক মত হাটতে পারে না। এটা করা হচ্ছে যাতে তাদেরকে দিয়ে পুলিশের শেখানো বুলি বলিয়ে মামলা পাকাপোক্ত করতে পারে। এর আগেও তারা এমনটি করেছে। রিমান্ডে অত্যাচার সংবিধানবিরোধী এবং নাগরিকদের মৌলিক মানবাধিকার পরিপন্থি।
বিএনপির অন্যতম এই শীর্ষ নেতা বলেন, মানুষ এতো বোকা না যে, শেখ হাসিনা যা বলবে, যা করবে জনগণ সেটা বিশ্বাস করবে? দৃশ্যমান তা মানুষ প্রত্যক্ষ করেছে এবং গণমাধ্যমে এসব ঘটনার তথ্য উঠে এসেছে। কাদের নেতৃত্বে মিছিল হয়েছে? কারা হামলা করেছে? তারা সবাই ক্ষমতাসীন দলের লোক, নেতাকর্মী। তিনি অবিলম্বে আটক নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করেন।
এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির আব্দুস সালাম, মীর সরাফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ, যুবদলের সাইফুল আলম নীরব, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মহিলা দলের সুলতানা আহমেদ প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন