সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইবাদতের স্থানে হামলা হলে বিপুল মূল্য দিতে হবে : এরদোগান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০৭ এএম

প্রতিবেশী সাইপ্রাসে মুসলমানদের মসজিদে হামলাকে সহ্য করবেন না বলে জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। সোমবার কাতারের রাজধানী দোহার উদ্দেশ্যে রওনার আগে ইস্তাম্বুলের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। প্রসঙ্গত, গত ২ অক্টোবর গ্রিক নিয়ন্ত্রিত দক্ষিণ সাইপ্রাসের লারনাকা শহরের জামে মসজিদে আগুন দেয়া হয়। এই হামলায় অবশ্য কেউ আহত হয়নি। হামলার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে অন্তত একজনকে আটক করা হয়েছে। এরদোগান বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে দক্ষিণ সাইপ্রাসে আমাদের মসজিদের বিরুদ্ধে আঘাতের চেষ্টা হয়েছে। অবশ্যই দক্ষিণ সাইপ্রাসে এই হামলা জবাবহীন থাকবে না। তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, দক্ষিণ সাইপ্রাসকে আমরা বলতে চাচ্ছি, আমাদের ইবাদতের স্থানে কোনো প্রকার হামলা যেনো না হয়। এই ধরনের হামলার জন্য আপনাদের বিপুল মূল্য দিতে হবে। এর আগে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে রোববার এক বিবৃতিতে বলা হয়, এটি শুধু মুসলমানদের লক্ষ্য করেই নয়, বরং মানবতার সাধারণ মূল্যবোধকে হুমকিতে ফেলেছে এবং শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের অনুধাবন থেকে নির্দিষ্ট একটি চক্র কত দূরে আছে তা প্রকাশ করেছে। তুর্কি নিয়ন্ত্রিত উত্তর সাইপ্রাসের প্রেসিডেন্ট এরসিন তাতার এই হামলার জন্য নিন্দা জানিয়েছিলেন এবং গ্রিক নিয়ন্ত্রিত দক্ষিণ সাইপ্রাস প্রশাসনকে এই ধরনের হামলা প্রতিরোধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান। এদিকে আগামী ফেব্রুয়ারিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। এর আগে গত মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ মুহাম্মদ বিন জায়েদ (এমবিজেড) তুরস্ক সফর করেছেন। ২০১২ সালের পর আমিরাতের ডি ফ্যাক্টো নেতা ও দেশটির পররাষ্ট্র নীতির নির্ধারক এমবিজেডের এটি ছিল প্রথম আঙ্কারা সফর। দুই দেশই যে তাদের সম্পর্ক পুনরুদ্ধারের পাশাপাশি অর্থনৈতিক সহযোগিতা বাড়াতে আগ্রহী, সেটি এ সফরের মাধ্যমে স্পষ্ট হয়েছে। তুরস্ক এ সফরকে ‘নতুন যুগের শুরু’ হিসেবে দেখছে। আল-জাজিরা, ডেইলি সাবাহ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন