সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

গণতন্ত্রের প্রধান হুমকি সোশ্যাল মিডিয়া

মন্তব্য এরদোগানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বা সোশ্যাল মিডিয়াকে গণতন্ত্রের জন্য প্রধান হুমকি বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেপ এরদোগান। অনলাইনে ভুয়া খবর ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর প্রেক্ষিতে শনিবার এই মন্তব্য করেন তিনি।

এরদোগান বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম যখন আসে, তখন একে স্বাধীনতার প্রতীক হিসেবে স্বাগত জানানো হয়েছিল। কিন্তু এখন এটা ‘আজকের দিনের গণতন্ত্রের জন্য প্রধান হুমকিগুলোর একটির উৎস হয়ে উঠেছে।’ তিনি বলেন, ‘সত্যের কাঠামোর মধ্যে থেকে বিভ্রান্তি ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য এ বিষয়টি জনসাধারণকে অবহিত করাটা গুরুত্বপূর্ণ।’ তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমরা আমাদের নাগরিকদের সঠিক ও নিরপেক্ষ তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার লঙ্ঘন না করে মিথ্যা ও বিভ্রান্তির বিরুদ্ধে আমাদের জনগণ, বিশেষ করে সমাজের দুর্বল অংশের মানুষদের সুরক্ষিত রাখার চেষ্টা করছি।’ তিনি আরও বলেন, কার্যকর কোনো নিয়ন্ত্রণব্যবস্থা না থাকায় এসব মাধ্যম থেকে ছড়ানো এমন সংবাদের কারণে লাখ লাখ মানুষের জীবন ‘অন্ধকারে’ রয়েছে।

অনলাইনে ভুয়া খবর ও বিভ্রান্তি ছড়ানোকে অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করার জন্য আইন প্রণয়নের পরিকল্পনা করছে এরদোয়ানের সরকার। কিন্তু সমালোচকেরা বলছেন, প্রস্তাবিত এই আইন বাকস্বাধীনতার ওপর বিদ্যমান বিধিনিষেধ আরও কঠোর করে তুলবে। গত বছর তুরস্কে একটি আইন পাস হয়েছে। এই আইন অনুযায়ী ১০ লাখ ব্যবহারকারী রয়েছে, এমন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্ল্যাটফর্মগুলোর একজন আইনি প্রতিনিধি এবং দেশে তথ্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা থাকতে হবে। এরপর ফেসবুক, ইউটিউব ও টুইটারের মতো কোম্পানিগুলো তুরস্কে তাদের দপ্তর চালু করে। তুরস্কের সরকারপন্থী গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রস্তাবিত নতুন আইনে ভুয়া তথ্য ও সংবাদ ছড়ানোর দায়ে একজনকে দোষী সাব্যস্ত করে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদন্ড দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে। এ ছাড়া নতুন এই আইন অনুযায়ী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম তদারকির জন্য একটি সংস্থা প্রতিষ্ঠা করা হবে। সূত্র : আল-জাজিরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন