বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ঢাকার ফুটবলে ফিরছে চট্টগ্রাম মোহামেডান

প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : আর.বি গ্রæপের পৃষ্ঠপোষকতায় এ মাসেই মাঠে গড়াচ্ছে পেশাদার ফুটবল লিগের দ্বিতীয়স্তর খ্যাত মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ (বিসিএল)। আগামী শনিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে উদ্বোধন হবে এ লিগের। এবারের লিগে ৮টি দল অংশ নিবে। এগুলো হচ্ছে- ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব, চট্টগ্রাম মোহামেডান, মতিঝিল টিএন্ডটি ক্লাব, অগ্রনী ব্যাংক, কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ, বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল উপপরিষদ ও সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। লিগে নতুন দল হিসেবে সরাসরি খেলছে পুলিশ ও সাইফ এস.সি। অন্যদিকে চট্টগ্রাম মোহামেডান ২০১১ সালে সর্বশেষ ঢাকার মাঠে খেলেছিল। সেবার তারা পেশাদার লিগে খেলে পয়েন্ট টেবিলের তলানীতে চলে যায়। গত পাঁচ বছর তাদের কোনো হদিস ছিল না। পাঁচ বছর পর আবারও ঘরোয়া ফুটবলে খেলছে বন্দর নগরীর সাদা-কালোরা।
মার্সেল বিসিএলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দলটির আগামি মৌসুমে সরাসরি পেশাদার লিগে খেলার কথা। আর তালিকার শেষ দলটির প্রথম বিভাগে অবনমন হওয়ার কথা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে এ নিয়ম টিকবে কি না- তা জানেন না পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী। কারণ অংশগ্রহণকারী ক্লাবগুলো না কি বায়না ধরেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দু’টি ক্লাবকে সরাসরি পেশাদার লিগ খেলতে দিতে হবে। আর অবনমনও হবে দু’টি ক্লাবের। তাই পেশাদার লিগে উত্তীর্ণ কিংবা অবনমন ক’টি ক্লাবের হবে- সেটা নির্ধারীত হবে আগামি ৩০ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় লিগ কমিটির পরবর্তী সভায়। গতকাল বাফুফে ভবনে আয়োজিত লিগের লোগো উন্মোচন ও স্পন্সর চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে এমনটাই জানান সালাম মুশের্দী। তিনি বলেন, ‘ক্লাবগুলোর আবদারের কারণেই আমাদেরকে নতুন করে ভাবতে হচ্ছে। তবে আশাকরি এটা নিয়ে খুব একটা সমস্যা হবে না।’ এ অনুষ্ঠানেই লিগের লোগো উন্মোচন করা হয়।
লিগের বাজেট নির্ধারণ হয়েছে ৭০ লাখ টাকা। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৫ লাখ ও রানার্সআপদের দেয়া হবে ৩ লাখ টাকা প্রাইজমানি। এছাড়া অংশগ্রহণ ফি বাবদ প্রতিটি দল পাবে ৫ লাখ টাকা করে। মার্সেল বিসিএলে কোন বিদেশী ফুটবলার খেলতে পারবেন না। স্থানীয় ফুটবলার খুঁজে বের করতেই এ নিয়ম লিগ কমিটির। লিগের পঞ্চম আসরের টাইটেল স্পন্সর আর.বি গ্রæপ আগামি চার বছরের জন্য এই লিগের পাশে থাকবে। পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্পোর্টস এন্ড ওয়েল ফেয়ার বিভাগের প্রধান এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার ডন ও বাফুফের পক্ষে সালাম মুর্শেদী স্পন্সর চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এছাড়াও কো-স্পন্সর হিসেবে থাকছে আরও চারটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠান। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ও কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে লিগের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। আগামি ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে এই লিগের পর্দা নামবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন