ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

শিরোপায় চোখ সবার

প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : দেশের শীর্ষস্থানীয় ইলেক্ট্রনিক সামগ্রী প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রæপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) ব্যবস্থাপনায় আজ মাঠে গড়াচ্ছে মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ (মার্সেল বিসিএল)। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে লিগের উদ্বোধন করবেন যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় এমপি। পেশাদার ফুটবল লিগের দ্বিতীয় স্তর খ্যাত এ লিগে আটটি ক্লাব অংশ নিচ্ছে। এবারই প্রথম আট দলের অংশগ্রহণে হচ্ছে লিগ। দলগুলো হলো- ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, মতিঝিল টিঅ্যান্ডটি ক্লাব, ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব, বাংলাদেশ পুলিশ, অগ্রণী ব্যাংক, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব, চট্টগ্রাম মোহামেডান ও কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘ। লিগের খেলা হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম এবং কমলাপুর স্টেডিয়ামে। বিসিএল মাঠে গড়াচ্ছে আজ থেকে, অথচ কয়টি দল এখান থেকে উন্নীত হয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে খেলবে এবং কয়টি দল অবনমনে যাবে তা এখনো ঠিক করতে পারেনি পেশাদার লিগ কমিটি। তবে লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী জানান আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই শেষ হবে এ লিগ।
লিগ শুরুর আগে গতকাল বাফুফে ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর প্রতিনিধিরা নিজেদের লক্ষ্যের কথা জানান মিডিয়াকে। বাংলাদেশ পুলিশ দলের ম্যানেজার নুসরাত আদীব লুনা বলেন, ‘গতবার আমরা সুযোগ হারিয়েছি। এবার পুরানোর সঙ্গে নতুন পাঁচ খেলোয়াড় নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই দল গড়েছি।’
দীর্ঘদিন পর ঢাকার ফুটবলে ফিরেছে চট্টগ্রাম মোহামেডান। ক্লাবের ম্যানেজার তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘দীর্ঘদিন পর ফিরেছি চমক দেখানোর জন্যই। হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে শক্তিশালী দলই গড়েছি। কোচ আলফাজের অধীনে নিজেদের প্রস্তুত করছেন খেলোয়াড়রা। আমরা চ্যাম্পিয়ন ফাইটই দেবো।’ টি অ্যান্ড টি ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমানের কথা, ‘গতবার অল্পের জন্য বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে উঠতে পারিনি। এবারো আপ্রাণ চেষ্টা করবো চ্যাম্পিয়ন হতে।’
ভিক্টোরিয়া এসসি’র যুগ্ন সম্পাদক নুরুজ্জামান বলেন, ‘ভিক্টোরিয়া হচ্ছে খেলোয়াড় তৈরীর কারখানা। আমাদের গতবারের বেশিরভাগ খেলোয়াড় পেশাদার লিগে খেলছে। এবার আমরা নতুন এবং কিছু অভিজ্ঞ ফুটবলারদের নিয়ে দল গঠন করেছি। লক্ষ্য শিরোপার লড়াইয়ে থাকা।’
অগ্রণী ব্যাংকের মিডিয়া কর্মকর্তা আলহাজ রফিক বলেছেন, ‘প্রতিবারই আমরা দেশের প্রত্যান্ত অঞ্চল থেকে খেলোয়াড় সংগ্রহ করি। মতিউর মুন্না, রাব্বি, তুর্য আমাদের ক্লাব থেকেই উঠে এসেছেন। আমাদের লক্ষ্য থাকবে চ্যাম্পিয়ন ফাইট দেয়া।’
কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘের ম্যানেজার জিয়াউদ্দিন সুজন বলেন, ‘ভালো মানের ফুটবলার দিয়ে দল গড়েছি। লক্ষ্য চ্যাম্পিয়নশিপ লড়াইয়ে থাকা।’ ফকিরেরপুল ইয়ংম্যান্স ক্লাবের ম্যানেজার আরিফুর রহমান রবিন চান লিগে তার দল সুন্দর ও সাবলীল খেলা উপহার দিয়ে দর্শক হৃদয় জয় করুক। লিগে নতুন আসা আরেক ক্লাব সাইফ স্পোর্টিং। ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান চান ম্যাচগুলো যেনো সুষ্ঠু হয়। তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য চ্যাম্পিয়ন হওয়া। আমরা চাই ম্যাচগুলো যেনো সুন্দর ও সাবলীল হয়। কোন পাতানো ম্যাচ যেনো না হয়। যাতে দেশের ফুটবলের উন্নয়ন হয়।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন