শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

‘পদ্মা ব্যাংক সব আইন ও আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনেই অনুমতি পেয়েছে’

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

বিদেশি বিনিয়োগ আনতে পদ্মা ব্যাংককে কোনো ছাড় নয়; বরং ব্যাংকটির আর্থিক বিবরণী সুসংহত করতে বাংলাদেশ ব্যাংক সহায়তা করেছে বলে জানিয়েছেন চতুর্থ প্রজন্মের ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এহসান খসরু। তিনি বলেছেন, সব আইন, নিয়ম-কানুন এবং আন্তর্জাতিক অ্যাকাউন্টিং মানদণ্ড মেনেই এ অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এহসান খসরু বলেন, ব্যাংকটিতে বিদেশি বিনিয়োগ আনার প্রক্রিয়া সহজ এবং সরলীকরণ করার জন্য নিয়ম-কানুন মেনে গবেষণা করে ব্যাংকটিকে আরও ভালো করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক পদ্মা ব্যাংক কর্তৃপক্ষের উদ্যোগের পথকে মসৃণ করে দিয়েছে। এর অংশ হিসেবে পদ্মা ব্যাংকের আর্থিক বিবরণী সুসংহত করতে সহায়তা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক; কোনো ছাড় দেয়নি। সব কিছু স্বচ্ছতার সঙ্গে হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) শনিবার যে বিবৃতি দিয়েছে, সে প্রসঙ্গে এহসান খসরু বলেন, একটা আন্তর্জাতিক সংগঠন এমন একটি স্বচ্ছ উদ্যোগকে ‘প্রতারণামূলক সুবিধা’ বলে আখ্যায়িত করে বিবৃতি দেয়ায় হতবাক হয়েছি। কোনো ধরনের গবেষণা না করে, ভালোভাবে বিচার-বিশ্লেষণ, যাচাই-বাচাই না করে শুধু গণমাধ্যমের প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে এমন একটি মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক বিবৃতি কী করে দেয় একটি আন্তর্জাতিক সংগঠন! এটাকে আমি স্বচ্ছ একটি প্রতিষ্ঠানের অস্বচ্ছ বিবৃতি বলছি। এ ধরনের উদ্ভট বিবৃতি টিআইবি কোনোভাবেই দিতে পারে না।
পদ্মা ব্যাংককে বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন এবং টিআইবির ‘বিতর্কিত’ বিবৃতি প্রসঙ্গে গতকাল এক বিজ্ঞপ্তিতে এহসান খসরু এ সব কথা বলেন। পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এহসান খসরু বলেন, নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক পদ্মা ব্যাংককে যে সহায়তা করছে, সেটা বাংলাদেশে নতুন কিছু নয়।

এর আগে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংক এবং আইসিবি ইসলামিক ব্যাংককে একই ধরনের সহায়তা করেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।
যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক বিনিয়োগ ব্যাংক ডেলমর্গান অ্যান্ড কোম্পানি পদ্মা ব্যাংকে ৭০ কোটি ডলারের সমপরিমাণ ৬ হাজার কোটি টাকার বেশি বিনিয়োগের ব্যবস্থা করার প্রস্তাব দিয়েছে। এর অর্ধেক বিনিয়োগ হবে মূলধন হিসেবে। বাকি অর্ধেক হবে বন্ড বা অন্য উপায়ে। এই বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতিসহ সব ধরনের নিয়ম-কানুন মেনে পদ্মা ব্যাংক কাজ করছে।
এহসান খসরু বলেন, ‘পদ্মা ব্যাংকের ২০২০ সালের আর্থিক বিবরণী ভালোভাবে দেখে বিশ্লেষণ করে গবেষণা করে ডেলমর্গান পদ্মা ব্যাংকে বিনিয়োগ করতে রাজি হয়েছে। এখানে কোনো ধরনের অস্বচ্ছ তথ্য দেয়া হয়নি। কোনো ধরনের প্রতারণারও আশ্রয় নেয়া হয়নি। গণমাধ্যমে যেসব প্রতিবেদন এসেছে এবং যার ওপর ভিত্তি করে টিআইবি বিবৃতি দিয়েছে, তার সবই মিথ্যা, অসত্য এবং বিভ্রান্তিমূলক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন