বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ক্রাইস্টচার্চ ঝলকে ‘চূড়ায়’ লিটন

১৭ ধাপ এগিয়ে ১৫ নম্বরে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

নিউজিল্যান্ডে সিরিজের প্রথম টেস্টে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে খুব কাছে গিয়েও আটকে গিয়েছিলেন ৮৬ রানে। ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৮ রানে ফিরলেও দ্বিতীয় ইনিংসে দারুণ এক শতক করেছেন লিটন দাস। মাত্র ১১৪ বলে ১৫ বাউন্ডারিতে ১০২ রানের ইনিংস খেলেছেন এই টপঅর্ডার ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত টেস্টটি ইনিংস ব্যবধানে হেরে সিরিজ ড্র করেছে বাংলাদেশ, তবে লিটনের ইনিংস ছিল চোখধাঁধানো। আর তার পুরস্কারও হাতে হাতেই পেলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। র ্যাঙ্কিংয়ে বেশ বড়সড় লাফ দিয়েছেন লিটন দাস। গতকাল আইসিসির প্রকাশিত সর্বশেষ হালনাগাদ করা টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র ্যাঙ্কিংয়ে ১৭ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ারসেরা ১৫তম অবস্থানে উঠে এসেছেন বাংলাদেশের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

সিরিজ শুরুর আগে ব্যাটসম্যানদের র ্যাঙ্কিংয়ে ৩২ নম্বরে ছিলেন লিটন। ২০১৫ সালে অভিষিক্ত ২৭ বছর বয়সী ডানহাতি ব্যাটসম্যান গত নভেম্বরে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ চলাকালে নিজের আগের ক্যারিয়ারসেরা ৩১ নম্বরে উঠেছিলেন তিনি। টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র ্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের সবসময়ের দ্বিতীয় সেরা অবস্থান লিটনের। সেরা অবস্থান তামিমের ১৪তম, ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের পর। এখন পর্যন্ত ব্যাটসম্যানদের তালিকায় সেরা ১৫তে জায়গা পাওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেটার কেবল তারা দুইজন।
প্রথম টেস্ট জয়ে অবদান আছে মুমিনুলের। প্রথম ইনিংসে ৮৮ রান করা বাংলাদেশ অধিনায়ক দ্বিতীয়ভাগে ১৩ রান করে দলের জয় সঙ্গে নিয়ে ফেরেন। দ্বিতীয় টেস্টে অবশ্য জ্বলে উঠতে পারেননি বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ৩৭। র ্যাঙ্কিংয়ে আট ধাপ এগিয়ে তিনি আছেন ৩৭তম স্থানে। বড় লাফ দিয়েছেন শান্ত। সিরিজে কেবল এক ফিফটি করেই তিনি এগিয়েছেন ২১ ধাপ, আছেন ৮৭ নম্বরে।
নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে তিন সংস্করণ মিলিয়ে বাংলাদেশকে প্রথমবার কোনো জয় এনে দেওয়ার কারিগরদের একজন ইবাদত হোসেন। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ৪৬ রান দিয়ে ৬ উইকেট নেন তিনি, দেশের বাইরে যা বাংলাদেশের কোনো পেসারের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। প্রথম টেস্টে ৭টি, পরের টেস্টে ২টি উইকেট নেওয়া ইবাদত বোলারদের র ্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন ১৭ ধাপ। তার অবস্থান এখন ৮৮তম স্থানে।
বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের পর বড় লাফ দিয়েছেন নিউজিল্যান্ড পেসার কাইল জেমিসনও। দ্বিতীয় টেস্টে ১১৪ রানে ৬ উইকেট নিয়েছেন এই ডানহাতি, ৮ ধাপ এগিয়ে ৩ নম্বরে উঠে এসেছেন তিনি। এক ধাপ এগিয়ে পাঁচে উঠে এসেছেন দক্ষিণ আফ্রিকা পেসার কাগিসো রাবাদা। অ্যাশেজে সিডনিতে চতুর্থ টেস্টে জোড়া শতকের পর র ্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান ফিরে পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়া ব্যাটসম্যান উসমান খাজা। তিনি এখন ২৬ নম্বরে আছেন।
টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র ্যাঙ্কিংয়ে আগের মতোই শীর্ষে আছেন মারনাস লাবুশেন। সিডনিতে সর্বশেষ টেস্টে ২৮ ও ২৯ রান করলেও ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুটের চেয়ে এগিয়ে আছেন তিনি। রুট সে টেস্টে করেছেন ২৪ রান। অন্যদিকে জোহানেসবার্গে ম্যাচজয়ী ৯৬ রানের অপরাজিত ইনিংসের পর চার ধাপ এগিয়ে ১০-এ উঠেছেন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ডিন এলগার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন