সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

বুকে ক্ষত, মুখে হাসি নিয়ে অস্ট্রেলিয়া ছাড়লেন জোকোভিচ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

আজই কোর্টে গড়াচ্ছে বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ খেলতে স্বদেশি মিওমির কেচমানোভিচের বিপক্ষে কোর্টে নামার কথা ছিল জোকোভিচের। তবে আসরের সবচাইতে বড় নামটি আর থাকছে না কোর্টের লড়াইয়ে। আইনি কোর্টে হেরে গিয়ে মেলবোর্ন পার্কের মায়া ছেড়ে ভগড়ব হৃদয় নিয়ে নম্বর ওয়ান টেনিসারকে ফিরতে হয়েছে নিজ দেশ সার্বিয়ায়। দেশটার ফেডারেল কোর্টের আদেশে অস্ট্রেলিয়া থেকে বের করে দেওয়া হচ্ছে বিশ্বের শীর্ষ এই টেনিস তারকাকে। বাতিল করে দেওয়া হচ্ছে তার ভিসা। আর তাতে নিজের শিরোপা রক্ষার সুযোগটাও পাচ্ছেন না এই সার্বিয়ান তারকা।
গতকাল শেষবারের মতো আপিল করেছিলেন জোকোভিচ, তাতে লাভ হয়নি। নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় থেকেছে অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল কোর্ট। গত শুক্রবার দ্বিতীয় দফায় জোকোভিচের ভিসা বাতিল করে অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসন দপ্তর, এরপর তাঁকে আবার আটক রাখা হয় মেলবোর্নে। তবে অভিবাসনমন্ত্রী অ্যালেক্স হকে বলছেন, টিকা না নেওয়া জোকোভিচকে অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে দিলে সেটি টিকাবিরোধী মানসিকতাকে উৎসাহিত করতে পারে, পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ জনগণের মধ্যেও ক্ষোভ দেখা দিতে পারে। হকের সই করা বিবৃতিতে এ-ও বলে দেওয়া আছে, এবার জোকোভিচ আপিল না করলে কিংবা আপিল করেও না জিতলে আগামী তিন বছরে অস্ট্রেলিয়ায় ভিসা পাবেন না তিনি!
চূড়ান্ত শুনানিতে জোকোভিচের পরাজয়ের কারণে এখন আগামী তিন বছরের জন্য অস্ট্রেলিয়ার ভিসা পাবেন না জোকোভিচ। ভিসা না পেলে আগামী তিন বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলতে পারবেন না, যে গ্র্যান্ড স্ল্যাম তাঁকে দুহাত ভরে দিয়েছে সব সময়। নয়বার এই গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেছেন তিনি। এবার খেলে টুর্নামেন্টটি জিততে পারলে পুরুষ টেনিসের ইতিহাসে ২১টি বড় শিরোপা জিতে খেলাটির সবচেয়ে সফল তারকায় পরিণত হতেন তিনি।
করোনার টিকা নেওয়া নিয়ে ধোঁয়াশা রাখার পাশাপাশি করোনার স্বাস্থ্যবিধি ভাঙায় অস্ট্রেলিয়ায় ঢোকার পথে বাধার মুখে পড়েছিলেন জোকোভিচ। গত সপ্তাহে প্রথমবার তার ভিসা বাতিল করা হয়েছিল। চার দিন আগে আদালতে আপিলে জিতে অস্ট্রেলিয়ায় ঢোকার অনুমতি পান ‘জোকার’। কিন্তু গত শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ান অভিবাসনমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের পর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে তার খেলা আবার অনিশ্চিত হয়ে যায়। গতকাল চূড়ান্ত শুনানিতে সেই সিদ্ধান্তই বহাল রেখেছে অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল কোর্ট।
আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন না বলে জানিয়েছেন ‘হতাশ’ জোকোভিচ, ‘আমার ভিসা বাতিলের বিষয়ে মন্ত্রীর সিদ্ধান্ত পর্যালোচনায় যে আবেদন আমি করেছিলাম, আদালত তা খারিজ করে দেওয়ায় আমি সত্যিই হতাশ। এর অর্থ হচ্ছে, আমি অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে পারছি না, এবং আমার সবচাইতে প্রিয় অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অংশ নিতে পারছি না। আমি আদালতের সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং এই দেশ থেকে আমার চলে যাওয়ার ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে সহযোগিতা করব। সকল অংশগ্রহণকারীদের জন্য শুভকামনা।’ এই দুঃসময়ে পাশে থাকার জন্য পরিবার, বন্ধু, সতীর্থ, ভক্ত-সমর্থক, দেশবাসীসহ সকলকে ধন্যবাদ দিতে ভোলেন নি জোকোভিচ, ‘আপনারা সবসময়ই আমার শক্তির উৎস। সকলকে ধন্যবাদ।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন