সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পর্কে জানানো হয়

নতুন বছরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কূটনৈতিক ব্রিফিং

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

র‌্যাবের সাবেক ও বর্তমান ৭ কর্মকর্তার ওপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে লবিস্ট নিয়োগের কথা আগেই জানানো হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন আগেই জানিয়েছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে বোঝাতে যেখানে যেমন তদবির করা প্রয়োজন তার সবগুলো করা হবে। দেশের একাধিক জাতীয় দৈনিকে খবর বের হয়েছে অনেক আগেই সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্ট নিয়োগ করেছে।

বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমর্যাদা যাতে ক্ষুণ্ন না হয় সে বিষয়ে ঢাকায় কর্মরত বিদেশি কূটনীতিকদের সঙ্গে ‘কূটনৈতিক ব্রিফিংয়’ আয়োজন করা হয়। গত ১৬ জানুয়ারি আয়োজিত এই ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের কোনো ইস্যুতে সমস্যা হলে বা পরামর্শ থাকলে আগে ঢাকায় আলোচনার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে বিদেশি কূটনীতিকদের।
কূটনীতিকদের নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে বছরের প্রথম ‘কূটনৈতিক ব্রিফিংয়ে’ সরকারের পক্ষ থেকে আগাম বার্তা দেয়া হয়। বলা হয় সরকার ক্ষমতায়নের মাধ্যমে জনগণের উন্নয়ন ও সুরক্ষা নিশ্চিতের ব্যাপারে অঙ্গীকারাবদ্ধ।

রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আয়োজিত ওই ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন উপস্থিত ছিলেন। ওই বৈঠকে আগামী জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েও কূটনীতিকদের অবহিত করা হয়।

ব্রিফিংয়ে যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালি, জাপান, ভারত, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), কাতার, থাইল্যান্ডসহ প্রায় ৪০টি দেশ ও জোটের মিশন প্রধানেরা উপস্থিত ছিলেন। তবে মর্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার উপস্থিত ছিলেন না।

কূটনীতিকদের ব্রিফিংয়ে আলোচনা শুরু করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। সূত্র জানায়, ব্রিফিংয়ে কূটনীতিকদের প্রতি অনুরোধ করা হয়, উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশের কোনো ইস্যুতে সমস্যা হলে বা পরামর্শ থাকলে, আগে যেন ঢাকার সঙ্গে আলোচনা করা হয়। ঢাকায় আগে জানালে সে সমস্যার সমাধানে সব ধরনের উদ্যোগ নেবে সরকার। ঢাকায় সমস্যার সমাধান না হলে, পরে যেন তাদের রাজধানীতে অবহিত করা হয়।

আলোচনায় উপস্থিত একাধিক সূত্র জানান, আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে দুই বছর আগে সরকার কীভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে, সেটা জানানো হয়েছে। বলা হয়, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া উন্নয়ন একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। কয়েকশ’ বছর ধরে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া আছে, এমন দেশও উন্নতির চেষ্টা করছে। ভবিষ্যতে নির্বাচন যাতে অংশগ্রহণমূলক এবং অবাধ ও সুষ্ঠু হয়, সে ব্যাপারে চেষ্টা রয়েছে বাংলাদেশের। এ সময় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের নিরপেক্ষতার চিত্র তুলে ধরেন। তিনি বলেন, অনেক নির্বাচনে বিদ্রোহী ও অন্যান্য দলের প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।

কূটনীতিকদের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে সর্বশেষ অগ্রগতি জানতে চাইলে ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি আইসিজেতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানির দিনক্ষণ নির্ধারিত হয়েছে। ভার্চুয়ালি আদালতের শুনানি হবে। তবে প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে কোনো অগ্রগতি নেই। বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশের উন্নতি প্রসঙ্গে জানানো হয়, সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যা থাকলে তা যেন জানানো হয়। তখন ওই সমস্যা দ্রুত সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হবে। জাপানের পক্ষ থেকে বেশ কিছু সমস্যার খতিয়ান তুলে একটি পর্যালোচনার ছক সরকারকে দেয়া হয়েছিল। জাপান তখন ২৬টি সমস্যা বা প্রতিবন্ধকতার তালিকা বাংলাদেশকে দিয়েছিল। তিন মাস পর এর ১৬টি সমাধান করে দেয় বাংলাদেশ। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণে বাংলাদেশের যথেষ্ট প্রস্তুতি রয়েছে কি না কূটনীতিকরা জানতে চাইলে বৈঠকে বলা হয়, সরকার এরই মধ্যে এ নিয়ে সমন্বিতভাবে কাজ করার জন্য ৭টি উপকমিটি গঠন করে কাজ করছে। যার পাঁচটি কমিটিতে কাজ করছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এ সময় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটি গঠন বিষয়ে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলোর চলমান সংলাপের বিষয় উত্থাপন করেন। এ ছাড়াও তিনি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সরকারের পদক্ষেপের বিষয়গুলো তুলে ধরেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন