বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

সেঞ্চুরির স্বপ্ন দেখিয়ে ৪ রানে বোল্ড গেইল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

‘একটা সেঞ্চুরি পাওনা আছে। আশা করি আজ...’ গতকাল ম্যাচ শুরুর একটু আগে চওড়া হাসিতে বলছিলেন ক্রিস গেইল। কিন্তু ম্যাচ শুরুর একটু পর তার হাসি গেল হারিয়ে। আশা পূরণ হলো না মোটেও। শতরান তো বহুদূর, আউট হয়ে গেলেন তিনি স্রেফ ৪ রান করেই। বিপিএলে চট্টগ্রামে ফরচুন বরিশালের হয়ে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে ৯ বলে ৪ করে আউট হন গেইল। সৈয়দ খালেদ আহমেদের লেংথ বল জায়গায় দাঁড়িয়ে খেলার চেষ্টায় তিনি কাভার করতে পারেননি লাইন। ব্যাটের পাশ দিয়ে বল ছোবল দেয় স্ট্যাম্পে।

চট্টগ্রামের এই জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামের উইকেট বাংলাদেশের সবচেয়ে ভালো ব্যাটিং উইকেট বলে মনে করা হয়। গত শুক্রবার এই মাঠেই লেন্ডল সিমন্সের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহ গড়ে সিলেট সানরাইজার্স। রান তাড়ায় তামিম ইকবালের দারুণ সেঞ্চুরিতে অনায়াসেই জিতে যায় মিনিস্টার ঢাকা। গতকাল বরিশালের ম্যাচের আগে টিভি সাক্ষাৎকারে গেইলকে জিজ্ঞেস করা হয় ওই ম্যাচ আর দুজনের সেঞ্চুরি নিয়ে। স্বভাবসুলভ হাসিতে ‘ইউনিভার্স বস’ জানান নিজের সেঞ্চুরির তাড়নার কথা, ‘ওরা দারুণ ব্যাট করেছে। তামিম তো বিশ্বমানের ক্রিকেটার, লেন্ডলও (সিমন্স) তা-ই। এক ম্যাচে দুই সেঞ্চুরি দুর্দান্ত ব্যাপার। দুর্ভাগ্যজনকভাবে লেন্ডল হেরে যাওয়া দলে ছিল। আমার একটি সেঞ্চুরি পাওনা আছে। সবশেষ সেঞ্চুরি করেছি, অনেকদিন হলো। আশা করি, আমার সেঞ্চুরির সংগ্রহে আরেকটি যোগ হবে আজ (গতকাল)।’
শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরি আর যোগ হয়নি এ দিন। শুরুতে তার বিদায়ের সেই ধাক্কা বরিশাল সামলে ওঠে সাকিব আল হাসান (২৭ বলে ৪১) ও নাজমুল হোসেন শান্তর (৪০ বলে ৪৫) ঝড়ো ব্যাটে। তবে বাকিদের আসা যাওয়ার মিছিলে দল পায়নি খুব বেশি পুঁজি। ৭ বল আগেই দল গুটিয়ে যায় মাত্র ১৪৫ রানে। যদিও এই ছোট্ট রান তাড়ায় খুলনাও খেলতে পারেনি হাত খুলে। ব্যাট হাতে লড়াই করেছেন কেবল দু’জন- বরাবরের মতো এই তালিকায় অবধারিতভাবে মুশফিকুর রহিম (২২ বলে ৩৩)। তবে শেষ দিকে ইয়াসির আলীর (৩৪ বলে ৫৭*) ব্যাটে শেষ বল পর্ডন্ত লড়েও জয়ের খুব কাছে গিয়ে ৬ রানে হেরে গেছে খুলনা।
তবে দল জেতায় গেইলের আক্ষেপে হয়তো প্রলেপ পড়েছে। এমনিতে ২০ ওভারের ক্রিকেটে তার ব্যাট দিয়ে জন্ম হয়েছে অবিশ্বাস্য সব সংখ্যার। সেঞ্চুরির সংখ্যা যেমন। ২২টি শতরান করেছেন তিনি, যেখানে তিনি সবার ধরাছোঁয়ার অনেক বাইরে। রেকর্ডের দুইয়ে আছেন তিন অস্ট্রেলিয়ান ডেভিড ওয়ার্নার, মাইকেল ক্লিঙ্গার ও অ্যারন ফিঞ্চ মাত্র ৮টি করে সেঞ্চুরি নিয়ে। তবে গত কয়েক বছর ধরেই গেইলের ব্যাটের সেই ধার ও ধারাবাহিকতা নেই। বয়সের ছাপ স্পষ্টভাবেই পড়েছে তার রিফ্লেক্স ও স্কিলে। ২২ সেঞ্চুরির সবশেষটি করেছিলেন তিনি ২০১৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর, জ্যামাইকা তালাওয়াহসের হয়ে। এরপর গতকালের ইনিংসটি দিয়ে পেরিয়ে গেল সেঞ্চুরিবিহীন ৭১ ম্যাচ!
বিপিএলেও তার পারফরম্যান্স দারুণ। টুর্নামেন্টের রেকর্ড ৫টি সেঞ্চুরি তার। এবার এখানেও চার ইনিংস খেলে বড় ইনিংস সেই একটি। এই ম্যাচে ৪ রানে আউট হওয়ার আগে তিন ম্যাচে করেছেন ৩৬, ৭ ও ৪৩। তবে বাংলাদেশে ফিরতে পেরে অবশ্য দারুণ খুশি বলেই জানালেন ৪২ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান, ‘লম্বা সময় পর বাংলাদেশে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। সবসময়ই এখানে সাদরে গ্রহণ করা হয় আমাকে। স্রেফ হতাশ যে গ্যালারিতে সমর্থকরা নেই। সময়টাই এখন এরকম হতাশার। তবে আমি এসেছি ক্রিকেট খেলতে। ফরচুন বরিশালের অংশ হতে পেরে তাই খুশি আমি।’ এখন বাংলাদেশকে, তার দল বরিশালকে খুশি করবে কবে সেটিই দেখার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps