বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

অস্ট্রেলিয়া ছেড়ে ইংল্যান্ডে ল্যাঙ্গার!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:০৬ এএম

তার অধীনেই প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। নানা বিতর্কের পর অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন সেই জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ল্যাঙ্গারকে ঘিরে অনেকদিন ধরেই নাটক চলছিল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট মহলে। অবশেষে সেই নাটকের অবসান হলো। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) সঙ্গে জুন পর্যন্ত চুক্তির মেয়াদ থাকলেও তার আগেই পদত্যাগ করলেন ল্যাঙ্গার। ল্যাঙ্গারের ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি ডিএসইজি গতকাল এক বিবৃতিতে জানায়, অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি, ‘ডিএসইজি নিশ্চিত করেছে যে আমাদের ক্লায়েন্ট জাস্টিন ল্যাঙ্গার আজ সকালে অস্ট্রেলিয়ান পুরুষ ক্রিকেট দলের কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। গতকাল সন্ধ্যায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে বৈঠকের পর এই পদত্যাগ করা হয়েছে। বৈঠকের পরেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ল্যাঙ্গার।’

বিগত কয়েকদিন ধরেই চুক্তি বাড়ানোর জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আলোচনা চলছিল ল্যাঙ্গারের। শুক্রবার বোর্ড পরিচালকদের নিয়ে আলোচনায় বসে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। সেই বৈঠকে অন্যান্য বিষয় তো ছিলই তবে মূল বিষয় ছিল ল্যাঙ্গারের চুক্তি নিয়ে। সভা শেষে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জানান ল্যাঙ্গারের সঙ্গে আলোচনা চলছে। শীঘ্রই তার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে। এর চব্বিশ ঘন্টা না পেরুতেই অস্ট্রেলিয়ার হেড কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেন ল্যাঙ্গার।
মূলত বিগত সময়ে অস্ট্রেলিয়া দলের সাফল্যের কারণে অ্যাশেজ শেষেই চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে জানান ল্যাঙ্গার। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪-০ তে অ্যাশেজ জয় ও প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়- সবমিলিয়ে চুক্তি বাড়ানোর ইচ্ছে পোষণ করেছিলেন ল্যাঙ্গার। তবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া শুধু সম্প্রতি সময়ের পারফরম্যান্সই বিবেচনা করেনি, তার অধীনে নানা সমস্যার কথাও সভায় উঠে আসে। এমনকি দলের সিনিয়ররা ক্রিকেটাররা যে তার কোচিং ধরণ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তা তো মিডিয়ায়ও এসেছে। তার কোচিং ধরণ বদলানোর জন্য আলোচনায় বসেন অ্যারন ফিঞ্চ ও প্যাট কামিন্স। যা কিনা পরবর্তীতে প্রকাশ হয় সংবাদমাধ্যমে। সবমিলিয়ে অস্ট্রলিয়া দলে নিজের ভবিষ্যৎ দেখে ফেলেছিলেন ল্যাঙ্গার।
তবে বেশি দিন হয়তো আর বেকার হয়ে বসে থাকতে হচ্ছে না ল্যাঙ্গারকে! অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অ্যাশেজে নিদারুণ ব্যর্থতার পর একদিকে ইংল্যান্ডের কোচের পদ থেকে ক্রিস সিলভারউডকে আগেরদিন বরখাস্ত করা হয়েছে। এর মধ্যেই ল্যাঙ্গারের ইংল্যান্ড কোচ হওয়ার গুঞ্জন বাজারে ভাসছে। তবে এটিকে নিছকই গুঞ্জন বলে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। ব্রিটিশ বিখ্যাত সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমসই যে বলছে, সিলভারউডের জায়গায় ল্যাঙ্গারকে চায় ইংল্যান্ড। এর আগে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) ক্রিকেট কমিটির আপৎকালীন প্রধান হিসেবে দায়িত্বরত অ্যান্ড্রু স্ট্রাউসও আগের দিনই জানিয়েছিলেন, ল্যাঙ্গারকে কোচ করায় আপত্তি নেই তার, ‘আমি ওকে খুব ভালো করেই চিনি। দূর থেকে দেখলে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দলে তিনি খুব ভালো কাজ করেছেন। তাই আমি তার ব্যাপারটা একেবারে নাকচ করে দেব না। তবে আমি নিশ্চিত আরও অনেকেই বিবেচনায় আছেন।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps