সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

খেলাধুলা

এবার ক্যান্সারে আক্রান্ত কেয়ার্নস

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:০৬ এএম

ক্রিস কেয়ার্নসের জীবনে নেমে আসা ঘোর অমানিশা যেন কাটছেই না। গত আগস্টে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন, পরে পক্ষাঘাতে অবশ হয়ে গিয়েছিল তার শরীরের নিচের অংশ। নিউজিল্যান্ডের সাবেক অলরাউন্ডার এবার দিলেন আরও খারাপ খবর। অন্ত্রের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। ৫১ বছর বয়েসী কেয়ার্নস ইন্সটাগ্রামে নিজেই দিয়েছেন এই খারাপ খবর, ‘সপ্তাহ খানেক আগে ভেবেছিলাম টম ব্রাডির (আমেরিকান ফুটবলের এক তারকা) অবসরে যাওয়া সপ্তাহের খারাপ খবর। কিন্তু সেটা এখন অনেক ব্যবধানে দ্বিতীয় স্থানে নেমে এসেছদে আরেক খবরে। গতকাল (গতপরশু) আমাকে জানানো হয়েছে আমি অন্ত্রের ক্যান্সারে আক্রান্ত। এটা ছিল বিশাল এক ধাক্কা। রুটিন চেকআপে গিয়ে যা প্রত্যাশা করার মতো নয়। চিকিৎসকদের সঙ্গে আরেক দফা আলোচনার জন্য তৈরি হচ্ছি। আমি স্মরণ করতে চাই আমি কতটা ভাগ্যবান ছিলাম, জীবনে যা করেছি তা নিয়ে কত আশীর্বাদপ্রাপ্ত ছিলাম।’
১৯৮৯ সালে টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক কেয়ার্নসের। ২০০৬ পর্যন্ত খেলেছেন নিউজিল্যান্ডের হয়ে। তার সময়ে সেরা অলরাউন্ডারদের একজন ছিলেন তিনি। ছিলেন নিউজিল্যান্ডের অনেক সাফল্যের নায়ক। ক্যারিয়ারে অনেকবারই সংকটে থাকা দলকে লড়াই করে রক্ষা করেছেন। জীবনের চরমতম খারাপ সময়েও তিনি হাল ছাড়ছেন না। ক্রীড়াসুলভ মানসিকতায় লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত তিনি, ‘আরেকটি লড়াই আসন্ন। আশা করছি এটাও একটা দারুণ আপার কাটের মতোন মোকাবেলা করে সফল হবো।’
২০০০ সালে উইজডেন বর্ষসেরা পাঁচ ক্রিকেটারের একজন ছিলেন কেয়ার্নস। ২০০৩ সালে তার ঝলকেই ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা জেতে নিউজিল্যান্ড।

বিশ্ব আসরে সেটিই ছিল ব্ল্যাক ক্যাপসদের প্রথম কোন শিরোপা। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ৬২ টেস্ট ও ২১৫ ওয়ানডে খেলা এই অলরাউন্ডার আগস্টে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। সিডনির এক হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মধ্য দিয়ে যেতে হয় তাকে। পরে স্ট্রোক করলে তার শরীরের নিচের অংশ অবশ হয়ে যায়। তবে গত কয়েক মাসের পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় অনেকটাই উন্নতি করছিলেন তিনি। ১৪১ দিন চিকিৎসা নেওয়ার পর সুস্থতার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। তবে নতুন করে অন্ত্রের ক্যান্সার কেয়ার্সনকে ফেলল কঠিন চ্যালেঞ্জের সামনে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন