ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

প্রতিপক্ষের মুখে যখন মেসি বন্দনা

প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : ‘বর্ষসেরার পুরস্কার দুটি রাখা উচিত। একটি লিওনেল মেসির জন্য, বাকিটা অন্য সবার।’ ম্যাচ শুরুর আগে প্রতিপক্ষের সেরা খেলোয়াড়কে এভাবেই প্রশংসায় ভাসিয়েছিলেন সেভিয়া কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। এগিয়ে থাকা ম্যাচে ২-১ গোলে হারের পরও তার কথায় ফুটে উঠল মেসি মুগ্ধতা। বললেন, সময়ের সেরা খেলোয়াড় ম্যাচকে গুরুত্বসহকারে নিলে প্রতিপক্ষের কিছুই করার থাকে না।
মৌসুমের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলে আসছে সেভিয়া। ‘নতুন বার্সেলোনা’ তকমাও লেগেছে তাদের গায়ে। পরশু তাদেরই মাঠে তাই বার্সেলোনার জন্য ম্যাচটি সহজ ছিল না। দুর্দান্ত খেলতে থাকা স্বাগতিকদের প্রতিআক্রমণ থেকে এগিয়ে নিয়ে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ভিতোলোও সেই বার্তাই দেন। তারপরও বার্সা পূর্ণ ৩ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে মেসিরই জাদুকরি নৈপুণ্যে। বিরতির আগ মুহূর্তে ডি বক্সের বাইরে থেকে নেয়া শটে সমতায় ফেরানো ও বিরতির পর লুইস সুয়ারেজকে দিয়ে জয়সুচক গোলটি করানো, দুটিতেই ছিল অসাধারণ মেসির ছোঁয়া। মেসির সমতাসূচক গোলটি ছিল নেইমারের অসাধারণ পাসের দৃষ্টিনন্দন সফল সমাপ্তি। এটি ছিল বার্সার জার্সি গায়ে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের ৫০০তম গোল। প্রিয় প্রতিপক্ষ সেভিয়ার বিপক্ষে ২৯ ম্যাচে ২৭টি গোল করলেন তিনি। এর মধ্যে টানা ১৭ ম্যাচেই পেয়েছেন গোলের দেখা।
পরের গোলটিরও ৫ বারের বিশ্বসেরার একক কৃতিত্ব বলা যায়। প্রায় মাঝমাঠ থেকে বল টেনে নিয়ে যখন ডি বক্সের দিকে ঝড়ের বেগে এগুচ্ছিলেন রক্ষণ তখন তাকে সামলাতে ব্যস্ত। ওদিকে লুইস সুয়ারেজ তখন সম্পূর্ণ অরক্ষিত থেকে সুযোগের অপেক্ষায়। ডান প্রান্তে বন্ধুর কাছ থেকে বল পেয়ে কোনই ভুল করেননি উরুগুয়ান তারকা। কাতালান জার্সি গায়ে ১১২ ম্যাচে এটি ছিল তার ৯৫তম গোল।
ম্যাচ শেষের মেসির খেলায় মুগ্ধ প্রকাশ করলেন সাম্পাওলি, ‘যখন তার মতো খেলোয়াড় একটা ম্যাচকে গুরুত্বসহ নেয়, তখন প্রতিপক্ষের জন্য কাজটা খুবই কঠিন হয়ে পড়ে।’ সেভিয়ার একমাত্র গোলদাতার ভিতোলোর চোখে তো মেসিই সর্বকালের সেরা, ‘মেসিকে নিয়ে আমি নতুন কিছু বলতে চাচ্ছি না। আমার কাছে, সে-ই সর্বকালের সেরা।’ মেসির বন্দনায় মুখর ছিলেন দলের সভাপতি পেপে কাস্ত্রোও। ‘অন্য গ্রহের খেলোয়াড়’-এর সেই পুরনো উপমা ব্যবহার করেন কাস্ত্রো।
লুইস এনরিকেও পিছিয়ে পড়া ম্যাচে এভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পেরে খুশি, ‘এভাবে ঘুরে দাঁড়ানো যে কোন দলকেই মানসিকভাবে শক্তিশালী করে তোলে। বিশেষ করে কাজটি এমন একটি মাঠে করতে পারলে যেখানে অন্য কেই জেতেনি।’ জিতেও অবশ্য রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে ২ পয়েন্ট পিছিয়ে দ্বিতীয় স্থানেই থাকতে হচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। আগের ম্যাচে লেগানেসের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় পাওয়ায় ২৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ১১ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে সেভিয়া ৫ নম্বরে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
আঃ রাজ্জাক ৮ নভেম্বর, ২০১৬, ১১:১৯ এএম says : 0
ফুটবলের উজ্জ্বল নক্ষত্র লিওনেল মেসি,...মেসির তুলনা শুধু মেসিই।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন