শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

বোনারের ৯ ঘণ্টার ম্যারাথন ১২৩!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ মার্চ, ২০২২, ১২:০২ এএম

স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডসের নামে স্টেডিয়াম, ব্যাট হাতে ক্রিজে নামলে যার কাছে আক্রমণই ছিল শেষ কথা। সেই মাঠেই এনক্রুমা বোনার দেখালেন ‘ওল্ড স্কুল’ টেস্ট ব্যাটিং। ধৈর্য, দৃঢ়তা আর চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞার মিশেলে মেলে ধরলেন রক্ষণাত্মক ব্যাটিংয়ের ধ্রুপদি প্রদর্শনী। ইংলিশ বোলারদের সব প্রচেষ্টা মাথা কুটে মরল তার চওড়া ব্যাটের দেয়ালে। ৫৫৮ মিনিট উইকেটে কাটিয়ে ৩৩৫ বল লড়াই করে বনার খেললেন ১২৩ রানের ইনিংস। তার সঙ্গে লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের অবিশ্বাস্য প্রতিরোধে অ্যান্টিগা টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেল লিড। তৃতীয় দিন শেষে প্রথম ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ৩৭৩ রানে। ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ৩১১ রানে। ৬২ রানে এগিয়ে আছে স্বাগতিক শিবির।
আগের দিনও ৯০.১ ওভার ব্যাট করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তুলতে পারে ¯্রফে ১৭১ রান। গতপরশুও একটা সময় জেসন হোল্ডারের বিদায়ের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ কত দূর এগোবে তা নিয়েই দেখা দিয়েছিল সংশয়। আপন মহিমায় অসীম ধৈর্যের পরিচয় দিয়ে সেই জিজ্ঞাসার জবাব দিলেন বোনার। সবমিলিয়ে নয় ঘণ্টার বেশি সময় উইকেটে থেকে তিনি পেলেন টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। ব্যাটিং অর্ডারের নিচের দিকের সতীর্থদের নিয়ে গড়লেন বেশ কয়েকটি কার্যকর জুটি। তাতে ইংল্যান্ডের পুঁজি পেরিয়ে লিড নিল ক্যারিবিয়ানরা।
৫৫৮ মিনিট ক্রিজে থাকা বোনার দিনের খেলা শেষ হওয়ার দুই ওভার বাকি থাকতে সাজঘরে ফেরেন। আগের দিনের ৩৪ রান নিয়ে নেমেছিলেন তিনি। তার ম্যারাথন ইনিংস থামে ১২৩ রানে। ৩৫৫ বল মোকাবিলা করে এই ডানহাতি ব্যাটার মারেন ১২ চার ও ১ ছক্কা। তিনি শিকার হন অনিয়মিত স্পিনার ড্যান লরেন্সের। উইকেটের পেছনে বেন ফোকস ক্যাচ নিলেও শুরুতে ইংল্যান্ডের আবেদনে সাড়া দেননি মাঠের আম্পায়ার। পরে রিভিউ নিয়ে বোনারকে আউট করে তারা।
সকালে খেলা শুরুর পরপরই হোল্ডারকে উইকেটরক্ষক ফোকসের ক্যাচ বানান বেন স্টোকস। ১১৯ বলে ৪৫ রান আসে তার ব্যাট থেকে। এরপর এক প্রান্ত আগলে রেখে ইংল্যান্ডের বোলারদের কঠিন সময় উপহার দেন বোনার। ২০১৪ সালে সেন্ট ভিনসেন্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২১২ রানের ইনিংস খেলার পথে ৪৪৭ বল খেলেন ক্রেগ ব্রাফেট। তারপর টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে বোনারই সর্বোচ্চ বল খেললেন এক ইনিংসে। বোনারের দৃঢ়তায় ৪ উইকেটে ১২৭ থেকে শেষ পর্যন্ত ৬২ রানের লিড নিয়ে দিন শেষ করতে পেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
ষষ্ঠ উইকেটে জশুয়া ডা সিলভার সঙ্গে ১৬০ বলে ৭৩ রান যোগ করেন বোনার। ৮৮ বলে ৩২ করে বাঁহাতি স্পিনার জ্যাক লিচের বলে এলবিডব্লু হন জশুয়া। আলজারি জোসেপকে টিকতে দেননি ক্রেইগ ওভারটন। এতে ২৮২ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলে উইন্ডিজ। তবে উইকেটে মাটি কামড়ে পড়ে থাকা বোনার এরপর আরও দুটি ভালো জুটি গড়ায় নেতৃত্ব দেন।
বোনারকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে ৮৯ বলে ১৮ রান করেন কেমার রোচ। তাদের জুটিতে আসে ১৭৩ বলে ৪৪ রান। দ্রুত সিঙ্গেল নিতে গিয়ে রানআউটে কাটা পড়েন রোচ। পরে ভিরাসামি পেরমলের সঙ্গে বোনারের জুটিতে আসে ১৬২ বলে ৪৬ রান। পেরমল অপরাজিত আছেন ৮৭ বলে ২৬ রানে। তার সঙ্গী জেইডেন সিলস ৫ বল খেলে এখনও রানের খাতা খুলতে পারেননি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps