শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০২ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

‘পাকিস্তানি’ খাজার সেঞ্চুরিতে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ মার্চ, ২০২২, ১২:০৩ এএম

উইকেটে বোলারদের জন্য কিছু না থাকায় এক ডিমেরিট পয়েন্ট আর নিম্নমানের ট্যাগ পেতে হয়েছিল পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার সিরিজের প্রথম টেস্টের উইকেটকে। রাওয়ালপিন্ডি থেকে শিক্ষা নিয়ে করাচির উইকেট প্রাণবন্ত বানানো হবে, সে আশা করায় দোষ ছিল না কারও। কিন্তু করাচি টেস্টেও প্রথম দিনে দেখা দিল এক মরা উইকেট। তাতে ভাগ্যকে পাশে পেয়ে অস্ট্রেলিয়ার ৩ উইকেট তুলতে পেরেছে স্বাগতিক দল। পাকিস্তানের মাটিতে ‘পাকিস্তানি’ উসমান খাজার প্রথম শতকে ২৫১ রান নিয়ে দিন শেষ করল অস্ট্রেলিয়া।
২৪ বছর পর অস্ট্রেলিয়াকে নিজেদের মাঠে পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এমন ঐতিহাসিক এক সিরিজের শুরুটা ম্যাড়মেড়ে ড্র টেস্ট দিয়ে করেছে তারা। এর পেছনে পিন্ডির ধীরগতির প্রাণহীন উইকেটই মূল কারণ। অস্ট্রেলিয়ার পেসারদের আটকাতে গিয়ে স্পিনারদের জন্যও কিছু রাখতে ভুলে গিয়েছিলেন কিউরেটর। করাচিতে প্রথম দিনের উইকেট রাওয়ালপিন্ডির কথাই মনে করিয়ে দিচ্ছিল। ২০০৯ সালের পর গতকাল শুরু হওয়া এই টেস্টে কোনো বিশেষজ্ঞ লেগ স্পিনারের অভিষেক করাল অস্ট্রেলিয়া। পাঁচ বছর ধরে দলের সঙ্গে ঘোরা মিচেল সোয়েপসনের টেস্ট ক্যাপ বুঝে নিতে নিতে বয়স ২৮ বছরও হয়ে গেছে। কিন্তু অভিষেকের দিনে যে তার বল করা হবে না, সেটা উইকেট দেখেই বোঝা গিয়েছিল। এ নিয়ে যদি কারও সন্দেহ থেকে থাকে সেটা প্রথম আধঘণ্টাতেই উড়ে গেছে।
প্রথম টেস্টে একটু সাবধানী শুরু করা ওয়ার্নার এদিন এগিয়েছেন উল্টো পথে। অন্য প্রান্তে উসমান খাজা তো প্রথম টেস্টের মতোই ছুটেছেন রানের পিছে। মাত্র ১১ ওভারে অর্ধশতক পেরিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। মধ্যাহ্নবিরতির আগে শুরু থেকেই ইতিবাচক খেলা ওয়ার্নারকে (৩৬) ফিরিয়েছেন অলরাউন্ডার ফাহিম আশরাফের দারুণ এক ডেলিভারিতে। একটু পরই শূন্য রানে রানআউট আগের দিন ডাল রুটির ভূয়সী প্রশংসা করা মারনাস লাবুশেন। মধ্যাহ্নবিরতির আগের এই ধাক্কাকে পাত্তাই দেননি খাজা ও স্টিভ স্মিথ। দ্বিতীয় সেশনে গিয়ে করাচির উইকেট পরবর্তী দিনগুলোর জন্য একটু আশা দেখিয়েছে। শাহিন শাহ আফ্রিদি ও আশরাফ রিভার্স সুইং আদায় করেছেন। কিন্তু নিয়ন্ত্রণ পাকিস্তানের কাছে যেতে দেননি প্রথম টেস্টে রানের দেখা পাওয়া দুই ব্যাটসম্যান।
দ্বিতীয় সেশনে রান তোলার গতি কমে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার। পাকিস্তানি স্পিনাররা নেতিবাচক বল করছিলেন। লেগ স্টাম্প লাইনে করা বলে বাড়তি ঝুঁকি নেওয়ার কোনো চেষ্টা দেখাননি খাজা বা স্মিথ। দুজনে মিলে দলকে আড়াই শ পর্যন্ত টেনে নিয়ে গেছেন। এর মধ্যেই শতকের দেখা পেয়ে গেছেন খাজা। জন্মভূমিতে প্রথম টেস্ট খেলতে নেমে ৩ রানের জন্য শতক পাননি। দ্বিতীয় টেস্টেই সে অতৃপ্তি দূর করেছেন। ১৫৯ রানের জুটিটা ভেঙেছে হাসান আলীর বলে। দিনের ৮৯ তম ওভারে গিয়ে প্রথম ভুল হলো স্মিথের। হাসান আলীর বলে খোঁচা দিলে তা চলে যায় দ্বিতীয় সিøপে। বল প্রায় পেরিয়ে যাচ্ছে, এ অবস্থায় হাত বাড়িয়ে দিলেন আশরাফ। মাটিতে লাগার আগমুহূর্তে ধরলেন ক্যাচ। প্রথম দেখায় আউট বলেই মনে হয়েছে, আম্পায়ারও তাই দিয়েছেন। কিন্তু রিপ্লে দেখে সন্দেহ বাড়ছিল। কিন্তু সিদ্ধান্ত বদলানোর মতো জোরালো কিছু না দেখায় স্মিথকে (৭২) ফিরতেই হয়েছে।
আগের দুটি আউটে ভাগ্যের ছোঁয়া পাওয়া পাকিস্তান দিনের শেষ বলে নিজেরাই সুযোগ হাতছাড়া করেছে। শাহিন আফ্রিদির বলে নাইটওয়াচম্যান নাথান লায়ন শর্ট লেগে ক্যাচ দিয়েছিলেন। কিন্তু ইমাম-উল-হক হাতের বল ফেলে দিয়েছেন। ১২৭ রানে অপরাজিত খাজা আজ অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস টেনে নেওয়ার দায়িত্ব নিয়ে নামবেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps