রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪

খেলাধুলা

ইতিহাসে চোখ সাবিনাদের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০২২, ১২:০০ এএম

ফিফা আন্তর্জাতিক দুই প্রীতি ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে মালয়েশিয়াকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে বাংলাদেশ। গত বৃহস্পতিবার কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম ম্যাচে মালয়েশিয়াকে এক প্রকার উড়িয়ে দিয়েছেন সাবিনা খাতুনরা। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ ফের মালয়েশিয়ান মেয়েদের মুখোমুখি হবে স্বাগতিকরা। কমলাপুর স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি। টি স্পোর্টস খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করবে। একটি নতুন ইতিহাস গড়ার দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল। সিরিজ জয়ের সূবর্ণ সুযোগ তাদের সামনে। আজকের ম্যাচে ড্র করলেই নিজেদের মাটিতে প্রথমবার অনুষ্ঠিত ফিফা প্রীতি ম্যাচ সিরিজ জিতে নতুন ইতিহাস রচনা করবেন সাবিনারা।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৬১ ধাপ এগিয়ে মালয়েশিয়া। কিন্তু প্রথম ম্যাচে সাবিনাদের খেলা দেখে তা বোঝার কোন উপায় ছিল না। র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা দলই ম্যাচ জিতবে এটা স্বাভাবিক। কিন্তু নিজেদের আত্মবিশ্বাস আর সেরা পারফরম্যান্স দেখিয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা দলকেই ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে লাল-সবুজের মেয়েরা। দুই ম্যাচের এই সিরিজে আজও জয় পেতে চায় সাবিনা খাতুন বাহিনী। আগের ম্যাচের পরিকল্পনা দ্বিতীয়টাতেও বহাল থাকবে বলে গতকাল জানান বাংলাদেশ নারী দলের প্রধান কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন, ‘মেয়েরা প্রথম ম্যাচে পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পেরেছে। আগামী ম্যাচেও একই ধারায় খেলতে চাই আমরা। দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জেতাই এখন আমাদের লক্ষ্য। আর এটা করে ইতিহাস গড়তে চায় মেয়েরা।’
তবে প্রথম ম্যাচে বড় ব্যবধানে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজ বাঁচাতে চায় মালয়েশিয়া। কোচ জ্যাকব জোসেফের কথাতেই তা স্পষ্ট, ‘আসিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের (এএফএ) টুর্নামেন্টের জন্য আমরা এই দু’টি ম্যাচ খেলতে এসেছি। প্রথম ম্যাচে মেয়েরা কিছুটা ভীত ছিল। আশা করি আগামীকাল (আজ) তা রিকভার করতে পারবে তারা। বাংলাদেশ অবশ্যই ভালো দল। তবে আমরাও নিজেদের সেরাটা দিতে প্রস্তুত। দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজের ভাগ্য বদলে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য থাকবে।’
২০১৭ সালে সিঙ্গাপুরে তিন জাতির টুর্নামেন্টে প্রথমবার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া নারী দল। সেই ম্যাচে মালয়েশিয়া জিতেছিল ২-১ ব্যবধানে। পাঁচ বছর পর হাফ ডজন গোল দিয়ে সেই হারের মধুর প্রতিশোধ নিয়েছে বাংলাদেশ। আজও নিজেদের সেরা পারফরম্যান্স ধরে রেখে নতুন একটি ইতিহাস লিখতে পারেন কিনা সাবিনারা, সেটা দেখার অপেক্ষায় আছেন দেশের কোটি ফুটবলপ্রেমী। ম্যাচের আগে কাল সকালে কমলাপুর স্টেডিয়ামে মালয়েশিয়ার মেয়েরা এক ঘন্টার অনুশীলনে ঘাম ঝরালেও সাবিনা-আঁখিরা বিকাল ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত টিম হোটেলে জিম ও সাঁতার সেশনে অংশ নেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন