শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

রাতে সালিশ করে রেখে যায় ভাইয়েরা, সকালে স্বামীর হাতে খুন

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে : | প্রকাশের সময় : ১৭ আগস্ট, ২০২২, ১২:০০ এএম

বিয়ের তিনদিন পর থেকেই নির্যাতনের শুরু, টানা ৬ মাস চলেছে এই নির্যাতন। একদিন আগেও পারিবারিকভাবে বিচার সালিশ করে মেয়েটিতে রেখে গেছে ভাইয়েরা। গতকাল সেই নির্যাতনেই খুন হয়েছেন গৃহবধূ ফারজানা।

নারায়ণগঞ্জের কুতুবপুর ইউনিয়নের পশ্চিম রসুলপুর এলাকায় গতকাল মঙ্গলবার ভোরে পুতা দিয়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। পরে ঘাতক স্বামীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে এলাকাবাসী। নিহত ওই গৃহবধুর নাম ফারজানা। সে পশ্চিম রসুলপুর এলাকার নুর নবীর মেয়ে।

প্রতিবেশীরা জানান, ফারজানার সাথে একই এলাকার রুবেলের ৬ মাস আগে বিয়ে হয়। ফারজানা প্রতিবেশীদের জানান, বিয়ের ৩ দিন পরেই ফারজানাকে নির্যাতন করা হয়। এরপর প্রায়ই নির্যাতন করা হতো। এরমধ্যে স্থানীয়ভাবে একাধিক বিচার সালিশ হয়েছে তাদের। গত সোমবারও বিচার সালিশ করে বোনকে রেখে যায় ভাইয়েরা। গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে মসলা বাটার পুতা দিয়ে মুখে ও মাথায় আঘাত করে ফারজানাকে হত্যা করে স্বামী।

ফতুল্লা মডেল থানার এসআই মোস্তফা কামাল খান জানান, স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। লাশ ঢাকা মেডিক্যালের মর্গে রয়েছে। মসলা বাটার পুতা দিয়ে মুখে ও মাথায় আঘাত করা হয়েছে। বিস্তারিত তদন্তের পর জানানো হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন