শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

সেই রোনালদোর গোলেই রোম জয়

প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : মৌসুমে করছেন একের পর এক গোল। কিন্তু বড় দলের বিপক্ষে বা দলের প্রয়োজনে জ্বলে উঠতে না পারার অপবাদ সাংবাদিকদের কাছ থেকে শুনতে হয়েছিল ম্যাচের আগেই। সেটাই যেন তাতিয়ে দিয়েছিল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে। মৌসুমের ৩৩তম গোল দিয়ে তারই যেন জবাব দিলেন পর্তুগিজ তারকা। সাথে জেসের গোলে রোমার মাঠে ইতিহাস গড়েই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখলো জিনেদিন জিদানের দল।
অথচ রোমার অলিম্পিক স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধের বাঁশি শেষে যখন ড্রেসিংরুমে ফিরছেন, তখন গোল তো পরের কথা প্রতিপক্ষের গোলমুখে একটিও শট নিতে না পারার একরাশ হতাশা জিদানের শিষ্যদের চোখেমুখে। ইতালিয়ান কোন দলের বিপক্ষে গত ৮ ম্যাচে জয় না পাওয়ার রেকর্ডটা তখন হয়তো উঁকি দিচ্ছিল বার্নাব্যু ভক্তদের মনে। সাথে এই রোমার বিপক্ষেই ২০০৮ সালের সর্বশেষ দেখায় হেরে আসরের এই পর্ব থেকেই লস বøাঙ্কোসদের বিদায় নেওয়ার স্মৃতিটাও হয়তো দোলা দিচ্ছিল। গত ২৯ নভেম্বর থেকে প্রতিপক্ষের মাঠে গোল না পাওয়া রোনালদো যেন নিজের ছায়া। ইউরোপ সেরার আসরে কোচ জিদানের অভিষেকটাও তখন ফিকে হওয়ার দশা। কিন্তু সব গল্প পাল্টে গেল বিরতির পর। ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে রোনালদো যে শটটি নিলেন ওটাই ছিল প্রতিপক্ষের জালে জিদান বাহিনীর প্রথম শট। এবং গোল! চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ইতিহাসে পর্তুগিজ তারকার ৮৯তম ও আসরে ১২তম গোল এটি। ম্যাচের শেষ সময়ে দলের ব্যবধান দ্বিগুন করেন বদলি খেলোয়াড় জেসে।
দলের এমন জয়ে স্বভাবতই খুশি জিদানÑ ‘আমরা দু’টি গোল করেছি এবং হতে পারত আরো, কিন্তু সুযোগ ছিল রোমারও। এ্যাওয়ে ম্যাচে কোন গোল না খেয়েই দুই গোল করাটা দারুণ।’ রোনালদোর পাশাপাশি জেসে গোলেও খুশি সাবেক ফরাসি তারকাÑ‘রোনালদো ছিল অসাধারণ, জেসের গোলেও আমি খুশি। এটা দলকে অনেক সহায়তা করেছে।’ এর আগে বার্নাব্যু দলটির হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জিতেছেন জিদান। পাশাপাশি ২০১৪ সালে কার্লো আনচেলত্তির ‘লা ডেসিমা’ জয়েও দলের সহকারী হিসেবে ছিলেন তিনি। এবার প্রথান কোচ হিসেবে যাত্রা শুরুর ব্যপারে তাই তেমন কোন উচ্ছাস দেখা গেল না তাঁর কন্ঠেÑ ‘এটা (চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আসর) আমার জন্য নতুন, আমি খুশি এবং আমি চেষ্টা করব দলের এই এগিয়ে যাওয়া অব্যাহত রাখতে।’
এদিন গোল না পেলেও স্বগতিকরা যে খারাপ খেলেছে তা বলা যাবে না। প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগও তৈরী করেছিল তারা। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় তা আর সফলতার মুখ দেখেনি। ম্যাচ শেষে সেই আক্ষেপের কথাই শুনালেন রোমা কোচ লুসিয়ানো স্পাল্লেত্তিÑ ‘ম্যাচে আমরা সবই করলাম, কিন্তু গোল পেলাম না।’ সেই সাথে ম্যাচ শুরুর প্রাক্কালে রোনালদোর জন্য আলাদা কোন পরিকল্পনা না থাকার যে কথা তিনি জানিয়েছিলেন এজন্যও আক্ষেপে পুড়তে হল তাকেÑ ‘রোনালদোকে এক ইঞ্চি জায়গা ছাড়লে সে মাইল খানেক দখলে নিয়ে নেবে।’ প্রথম লেগে এমন হারে শেষ আটে পৌঁছানোটা অনেকটা অসম্ভবই বলা যায় রোমার জন্যে। দ্বিতীয় লেগ হবে আগামী ৮ মার্চ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। রাতের অপর ম্যাচে ঘরের মাঠে ভল্ফসবুর্গের কাছে ৩-২ গোলে হেরেছে গেন্ট।
এক নজরে ফল
রোমা ০-২ রিয়াল মাদ্রিদ
গেন্ট ২০৩ ভল্ফসবুর্গ

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন