রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৭ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

খেলাধুলা

আমির-ইমাদকে ফেরালেও মাশরাফিকেই চাই সিলেটের

স্পোর্টস রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১২:০০ এএম

এবারে বিপিএল যেন মাশরাফি বিন মুর্তজার পুনর্জনমের মঞ্চ। সাবেক এই দেশসেরা অধিনায়কের পুরনো রূপটি চেনাচ্ছেন নতুন করে। চল্লিশের কোটায় পা দিয়েও যেমন মাঠ মাতাচ্ছেন বল হাতে তেমনি দেখাচ্ছেন নেতৃত্বের জাদুর ভেল্কি। তাতে শুরু থেকেই উড়ন্ত ফর্মে তার দল সিলেট স্ট্রাইকার্স। এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থান দখলের পাশাপাশি নিশ্চিত করেছে প্লে-অফও।
গতকাল দলের সঙ্গে অনুশীলনে থাকলেও টাইগারদের সফল এই অধিনায়ককে নিয়ে আপাতত সিলেট সমর্থকদের জন্য নেই কোনো সুসংবাদ। মাশরাফির সবশেষ অবস্থা জানিয়ে সিলেট কোচ রাজিন সালেহ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন গ্রুপ পর্বের পরবর্তী ম্যাচেও মাশরাফিকে পাওয়া যাবে না। এমনকি কোয়ালিফায়ার ম্যাচে খেলা নিয়েও শঙ্কা রয়েছে, ‘মাশরাফি আগামী ম্যাচেও খেলতে পারবে না। কোয়ালিফায়ারে খেলবে কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়। মাশরাফি বলছে ভালোই লেগেছে গ্রোয়েনে। সে নিজেই বুঝতেছে তার বর্তমান অবস্থা। এছাড়া ফিজিও জানিয়েছে যে ১০ থেকে ১২ দিন লাগে এমন ইনজুরি সারতে। চোট যেহেতু লেগেছিল আরও কয়েকদিন আগে। দেখা যাক কোয়ালিফায়ারে কি হয়।’
গত ৩০ জানুয়ারি সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে বল করার সময় কুঁচকির চোটে পড়েন মাশরাফি। এরপর দলের হয়ে খেলতে পারেননি নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচ। মিরপুরে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে সেই ম্যাচটি বড় ব্যবধানে হেরেছে শিরোপা প্রত্যাশী দলটি। ঐ ম্যাচের আগেই পিএসএলের যাকে পাকিস্তানে ফিরে গিয়েছিলেন দলটির দুই তারকা মোহাম্মদ আমির ও ইমাদ ওয়াসিম। সিলেট স্টাইকার্স বোলিং আক্রমণের তাদের এই দুই অস্ত্রকে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচের জন্য আবার ফিরিয়ে আনছে।
বিপিএলে এবার সিলেটের সাফল্যের পেছনে বড় ভূমিকা রাখেন বাঁহাতি পেসার আমির ও বাঁহাতি স্পিনার ইমাদ। আমির ১০ ম্যাচে ১৩ উইকেট নিয়েছেন, ওভারপ্রতি রান দিয়েছেন কেবল ৫.৯৫ করে। ইমাদ সমান ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে ওভার প্রতি খরচ করেছেন ¯্রফে ৫.৩৯ রান।
পিএসএলে এবার করাচি কিংসের হয়ে খেলবেন ইমাদ ও আমির। ১৩ ফেব্রুয়ারি টুর্নামেন্ট শুরুর অন্তত ১০ দিন আগে তাদের ডেকে পাঠায় করাচি। সিলেট পর্বের পরই তাই দেশে ফিরে যান তারা। এই দুজনকে ছাড়া রংপুর রাইডার্সের কাছে পাত্তা পায়নি সিলেট। ১৭০ রান করেও তা ডিফেন্ড করতে পারেনি দলটি। আগামীকাল লিগ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে খেলবে সিলেট। শেষ এই ম্যাচটি জিততে পারলে শীর্ষে দুইয়ে থাকা নিশ্চিত হবে। হেরে গেলে প্লে অফে কোয়ালিফায়ারের বদলে খেলতে হতে পারে এলিমিনেটর। এই চিন্তা থেকেই দুজনকে আবার উড়িয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। গতকাল দলের চেয়ারম্যান সারোয়ার চৌধুরী ফেসবুকে এক পোস্টে দুজনের ফেরার খবর দিয়ে লেখেন, ‘আমির ও ইমাদকে রিপ্লেস করা যাবে কেবল আমির ও ইমাদকে দিয়েই।’
পরে দলের ব্যাটিং কোচ তুষার ইমরান গণমাধ্যমে জানান এই দুজনকে এক ম্যাচের জন্য ফেরাচ্ছেন তারা, ‘আমির, ইমাদ ফিরতে পারে একটা ম্যাচের জন্য। আশা করি তারা এসে খেলবে একটা ম্যাচ। আমার একটা ম্যাচ যেহেতু ভাইটাল। ওই ম্যাচ জিততে পারলে আমরা টপে থেকে শেষ করব। এজন্য ম্যানেজমেন্ট থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমির-ইমাদকে একটা ম্যাচের জন্য আনা যায় কিনা।’ মাশরাফিকে নিয়েও কথা বলতে হয় তাতে, তুষারও জানান ক্যাপ্টেন ম্যাশকে পাওয়ার সম্ভাবনা কম, ‘কঠিন আসলে বলা। ফিজিও যদি অনুমতি দেয় (খেলার ব্যাপারে)। একদম যে ফিট সে তো না। মাশরাফি মাঠে থাকা বড় একটা ব্যাপার আমাদের জন্য, ক্রিকেটারদের জন্য। ফল সে বের করে নিয়ে আসে অধিনায়ক হিসেবে। প্লে অফে তাকে কোন একটা ম্যাচ পেলেও পেতে পারি।’
আমির-ইমাদ ফিরে যাওয়ার পর মোহাম্মদ ইরফান ও গুলবদিন নাইবকে দলে নেয় সিলেট। প্লে অফে দলটিতে যোগ দেবেন দক্ষিণ আফ্রিকান জর্জ লিন্ডে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন