রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৭ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

এবার ঘোষণা ছাড়াই ডলার আনার সুযোগ দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:৫৩ পিএম

দেশে ডলার আনতে অবারিত সুযোগ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এসব ডলারের বিষয়ে কোনো পূর্ব ঘোষণা দেওয়ার দরকার নেই বলে সার্কুলার জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকটি। এর আগে এ সুযোগ থাকলেও সীমিত পরিসরে ছিল। তবে এখন সে সুযোগ অনেক বাড়িয়েছে। বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক সার্কুলার জারি করে।

প্রবাসীদের পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই সেবা খাতের আয় করা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২১ লাখ টাকার সমতুল্য ২০ হাজার ডলার অথবা অন্য মুদ্রা দেশে পাঠানো যাবে। আগের ঘোষণায় এর পরিমাণ ছিল ১০ হাজার ইউএস ডলার বা সমপরিমাণ অন্য মুদ্রা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্ট থেকে জারি করা ওই সার্কুলারে বলা হয়েছে, এক ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংক অনুমোদিত ডিলার (এডি) ব্যাংকগুলোকে সেবা খাতের আয় বাবদ প্রাপ্ত রেমিট্যান্স সম্পর্কে অনলাইনে ঘোষণার (সি-ফরম নামে পরিচিত) ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দিয়েছে। সি-ফরমে ঘোষণা ছাড়াই এখন থেকে সেবা খাতের ২০ হাজার ইউএস ডলার বা সমতুল্য অন্য মুদ্রায় প্রাপ্ত আয় আনা যাবে।

সার্কুলারটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Bongo Raj ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৯:০৬ পিএম says : 0
I salute the decision of Govt., and praised the current govt for pulling up our motherland to a country that is historically in the best position now. However, unfortunately, govt 0fficials who are involved with this system are inefficient and corrupt. They simply make a messy situation and put maximum effort to disturb when a Bangladeshi back from abroad with foreign currency. For example, on 6th January, I reached Dhaka airport with some 1 million yen and went to the (airport) counter to declare the currency being possessed. They simply, make me waiting one hour for the reason of document signing person isn't in the seat. Even after 1 hour that honorable sir didn't arrive. After one hour I had to leave the airport without declaring. Passengers when arriving at the airport are exhausted in most cases due to spending a long time in a narrow cabin seat, the lengthy immigration process, luggage receiving, etc. Dr. H Amir Gulshan
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন