ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

কাঠড়ায় সাকিবের ড্রপ

প্রকাশের সময় : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : পয়েন্টে কি কখনো সাকিবকে ফিল্ডিং করতে দেখেছে কেউ? পয়েন্টের স্পেশলিস্ট ফিল্ডার থাকতে সাকিবকে সেখানে দাঁড় করানোর বড় মাশুলই দিতে হলো। ২১ রানের মাথায় রোহিত শর্মার ক্যাচ ফেলে দিয়ে তাই সাকিব কাঠগড়ায়। সরাসরি অভিযুক্ত না করেও মাশরাফি বলেছেনÑ ‘এটা খেলার একটি অংশ। কেউ এটা নিয়ে কোনো কিছু করতে পারবে না। ম্যাচে ক্যাচ মিস হতেই পারে। তবে দল হারলে এমন কিছু মনে হতে পারে। ওখানে ১৫-২০ রান; যদি রোহিত শর্মা আউট হতো তাহলে ১৩৫-৪০ আমরা টার্গেট তাড়া করতে পারতাম। ও অনেক ভাল ভাল ক্যাচ নিয়েছে এর আগে।’ গ্রাউন্ড ফিল্ডিং নিয়েও কষ্ট আছে তারÑ ‘আউটফিল্ড ভেজা থাকায় বল স্কিড করেছে, যে দুটি চার হওয়ার মতো নয়, সেই ২টা চার হয়ে গেছে বাড়তি।’
১১তম ওভার থেকে শিশির পড়ায় বল গ্রিপিংয়ে সমস্যা হয়েছে, তাতেই ইনিংসের শেষ দিকে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি রান পেয়েছে ভারত। এমনটাই মনে করছেন মাশরাফিÑ ‘নতুন বল খুব ভালোভাবেই সুইং করছিল। উইকেটে ঘাস ছিল। ওটা সাহায্য করছিল। আমরা চারজন পেসার নিয়ে খেললেও আমরা খুব ভালোভাবেই ম্যাচে ছিলাম। এরকম উইকেটে স্পিন হেল্প করবে না সেটা আমরা জানতাম। তারপরও সাকিব ভালো বোলিং করেছে। রিয়াদও করেছে। তবে শিশির ১০/১১ ওভার পর পড়া শুরু করলে মুস্তাফিজুরের বল গ্রিপিংয়ে সমস্যা হয়েছে। শেষ ৪ ওভারে একটু বেশি রান দিয়ে ফেলেছি। রোহিত শর্মা ওখানে সেট ব্যাটসম্যান ছিল। ওখানে আমরা যেগুলো করেছি, শ্লোয়ার কাজে লাগেনি। মুস্তাফিজ কাটারগুলো গ্রিপ করতে পারেনি। বল ভেজা ছিল। ওখানে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।’
দ্রুত ২ উইকেট পড়ে যাওয়ায় এবং পার্টনারশিপ না হওয়াকেও ম্যাচ হারের কারণ মনে করছেন মাশরাফিÑ ‘আসলে ১৫ রান এক ওভারের ব্যাপার। এক ওভারে চলে আসত। প্রথমে দ্রুত উইকেট পড়ে যায় ও আমরা জুটি গড়তে পারিনি। দুটি ব্যালেন্স করতে পারতাম তাহলে এক ওভারে ওই ১৫-২০ রান কভার হয়ে যেত।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন