ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

বর্ষা মওশুমে প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট!

সিসিডিএম সদস্য সচিব পাভেলের পদত্যাগ

প্রকাশের সময় : ৪ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটের পরিচালনাকারী সংগঠন সিসিডিএম’র সর্বশেষ সভায় প্লেয়ার্স বাই চয়েজ ফর্মূলায় ক্রিকেটারদের দল-বদলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছিল। ওই সভাতেই  ফেব্রুয়ারীর তৃতীয় সপ্তাহে ক্রিকেটারদের দল-বদল এবং ২০ মার্চ থেকে প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ মাঠে গড়ানোর পক্ষে মত দেন প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগের ক্লাব প্রতিনিধিরা। তবে সিসিডিএম’র ওই সভায় নেয়া সিদ্ধান্ত খেয়েছে হোঁচট। ফেব্রুয়ারীর তৃতীয় সপ্তাহে তো দূরের কথা, শেষ সপ্তাহেও দল-বদলের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে পারেনি সিসিডিএম। প্লেয়ার্স বাই চয়েজ ফর্মূলায় ক্রিকেটারদের জন্য প্রস্তাবিত সম্মানী সন্তোষজনক না হওয়ায় বোর্ড সভাপতির হস্তক্ষেপে ওয়ার্কিং কমিটি বিভিন্ন গ্রেডে সম্মানীর অংক বাড়িয়েছে। অগ্রগতি বলতে এতোটুকুই।
আগামী ৬ মার্চ এশিয়া কাপের ফাইনালের দিন ওয়ার্কিং কমিটি সিসিডিএম এবং লীগ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আর একটি সভায় বসবে। ইতোমধ্যে আগামী ৭ মার্চ প্লেয়ার্স বাই চয়েজে দল-বদলের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে একটা প্রস্তাবও পাঠানো হয়েছে ক্লাবগুলোকে। যে প্রস্তাবনায় আগামী ২০ মার্চ থেকে প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ শুরুর কথা বলা হয়েছে। তবে এখানেও উঠেছে প্রশ্ন। ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট বিসিএল একটানা চলতে থাকলে আসরটি শেষ হবে ২২ মার্চ। তাহলে ২০ তারিখ থেকে প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ শুরু করবে কিভাবে সিসিডিএম? এশিয়া কাপ সম্পন্ন হওয়ার পরদিনই বা কিভাবে প্লেয়ার্স বাই চয়েজে দলবদলের আনুষ্ঠান করবে সিসিডিএম? প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগের কো অর্ডিনেটর আমিন খান নিজেই এমন প্রস্তাবকে হাস্যকর বলছেনÑ ‘প্রিমিয়ার ডিভিশনের অনেক ক্লাব অফিসিয়ালই এখন এশিয়াকাপে ব্যস্ত। তাই এশিয়া কাপের পর দিন প্লেয়ার্স বাই চয়েজ এ দল-বদল সম্ভব নয়। দল গঠনের প্রস্তুতিও নিতে পারেনি ক্লাবগুলো। তাছাড়া বিসিএল শেষ হওয়ার পর অন্তত: খেলোয়াড়দের জড়ো করে ১৫ দিনের অনুশীলন ক্যাম্প না করে প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ খেলতে চাইছে না ক্লাবগুলো। টেন্টের জন্য তৈরি হতে হবে, খেলোয়াড়দের জার্সির মাপ নিয়ে জার্সি বানাতে হবে। আরো কতো কিছু আছে।’
২০ মার্চ থেকে প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ মাঠে গড়ানো সম্ভব নয়, তা মানছেন বিসিবি’র সিইও নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজনওÑ ‘এটা ঠিক যে, বিসিএল’র পর অন্তত: ১০ দিন সময় দিতে হবে। তবে প্লেয়ার্স বাই চয়েজে দল-বদল সম্পন্ন করার প্রস্তুতি নেয়া যেতে পারে। কারণ এখানে তো আর ক্রিকেটারদের শশরীরে হাজির হওয়ার দরকার নেই। ৭ মার্চ না পারলে ক’দিন পিছিয়ে যাবে দল-বদল।’ ক্লাবগুলোর দাবি মেনে নিলে তো মার্চে কোনভাবেই সম্ভব হবে না ক্রিকেট লীগ মাঠে গড়ানো, পরিস্থিতির মুখে তা মানছেন বিসিবি সিইও। তাহলে তো এপ্রিলে ঠিক বর্ষা মওশুমে শুরু হবে প্রিমিয়ার ডিভিশন।
এদিকে সিসিডিএমএ সদস্য সচিব হিসেবে  দায়িত্ব গ্রহণের চার বছরে ১ মওশুমে ক্রিকেট লীগ হারিয়ে যাওয়ায়, উন্মুক্ত দল-বদলের রেওয়াজ ভেঙ্গে প্লেয়ার্স বাই চয়েজে দ্বিতীয়বারের মতো দল-বদলের সিদ্ধান্তও মনো:পুত হয়নি কাজি রাকিব আহমেদ পাভেলের। কারনে-অকারনে বিসিবি’র হস্তক্ষেপটাও বিষিয়ে তুলেছে তাকে। বাছাই ক্রিকেটে ২টি মাত্র দল এন্টি করে খেলাহীন তৃতীয় বিভাগে উন্নীত হওয়ায় সমালোচনাও শুনতে হয়েছে তাকে। ক্রিকেট মওশুমে  প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ শুরু করতে না পারায়ও মানসিক কষ্ট ভোগাচ্ছে তাকে। সে কারণেই গতকাল সিডিএম’র সদস্য সচিব পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন পাভেলÑ ‘শরীরে কুলাচ্ছে না। এমনিতেই আমি অসুস্থ, তার পর চার পাশ থেকে এতো কথা হচ্ছে, এতো গালি শুনতে কার ভাল লাগে বলুন। তাই সদস্য সচিবের পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।’ গতকাল দুপুরে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি বিসিবিতে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন