ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

স্বাস্থ্য

সাইনাসের তীব্র প্রদাহ বা একিউট সাইনুসাইটিস

অধ্যাপক ডাঃ এম আলমগীর চৌধুরী | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

সাইনুসাইটিস একটি অতি সাধারণ রোগ। শতকরা পঁচিশ শতাংশ জনগণ উক্ত রোগে ভোগে থাকে। নাকের চারপাশে অস্থি সমূহে বাতাসপূর্ণ কুঠুরি থাকে যাদেরকে সাইনাস বলা হয়। সাইনুসাইটিস হলো উক্ত সাইনাস সমূহের ব্যাকটেরিয়া জনিত ইনফেকশন।

সাইনাস সমূহের কাজ : মাথাকে হালকা রাখা, মস্তিস্ককে আঘাত হতে রক্ষা করা, সাইনাসগুলো কণ্ঠস্বরকে অনুরণিত এবং সুরেলা করে দাঁত ও চোয়াল গঠনে সহায়তা করে মুখমন্ডল গঠনে সাহায্য করে।
সাইনাসের প্রদাহের কারণ সমূহ : সাইনাস সমূহের প্রদাহের মধ্যে ম্যাগজিলারি সাইনাসের প্রদাহ সবচেয়ে বেশী হয়। নাকের ইনফেকশন থেকে শতকরা নব্বই ভাগ। উপরের দাঁতের ইনফেকশন যাহা উপরের চোয়াল থেকে ছড়ায় এবং ইহা ম্যাগজিলারি সাইনাস বা কুঠুরির কাছাকাছি অবস্থিত।
রোগের লক্ষণ সমূহ: নাকের পাশে, মাথার সামনের দিকে এবং মাথার দুই পাশে ব্যথা। মাথা ভারী হওয়া বা ভারী ভারী লাগা। নাক দিয়ে পানি পড়া। নাক বন্ধ থাকা। কাজকর্মে অনিহা ।
চিকিৎসা : সাইনাসের ইনফেকশনের জন্য প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষুধ সেবন করতে হবে। যেহেতু সাইনুসাইটিস একটি ব্যাকটেরিয়া জনিত অসুখ, ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়টিক খেতে হবে। ব্যথার জন্য ব্যথা নাশক ঔষুধ খাওয়া যেতে পারে। নাকের ড্রপ এবং এন্টিহিস্টামিন জাতীয় ঔষুধ নেয়া যায়। নাকে গরম পানির ভাব (মেনথল দিয়ে) নিলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

নাক, কান, গলা বিশেষজ্ঞ সার্জন
বিভাগীয় প্রধান, ইএনটি বিভাগ
আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল,
রোড ৮, ধানমন্ডি, ঢাকা, ০১৯১৯ ২২২ ১৮২
ই-মেইলঃ alamgir.chowdhury07@gmail.com

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন