ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

পল্লীকবি জসীম উদদীন সংগ্রহশালার উদ্বোধন উপলক্ষে কবির পরিবারের সঙ্গে সংস্কৃতিমন্ত্রীর সভা

প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর ফরিদপুরে বাস্তবায়ন করছে ‘পল্লীকবি জসীম উদদীন সংগ্রহশালা’। সংগ্রহশালাটি উদ্বোধন করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। সংগ্রহশালাটির উদ্বোধন উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের বোর্ড অব ট্রাস্টিজ সভা কক্ষে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি, কবি পরিবারের তিন সদস্য- কবিপুত্র ফিরোজ আনোয়ার, খুরশীদ আনোয়ার ও ফিরোজ আনোয়ারের স্ত্রী মাসুদা আনোয়ার, জাদুঘরের মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরী, সচিব মো. রমজান আলী এবং জাদুঘরের কর্মকর্তাবৃন্দ।
সভা শুরুতেই মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরী বলেন, পল্লীকবির জন্মগ্রাম ফরিদপুরের অম্বিকাপুরে সংগ্রহশালাটির সিংহভাগ কাজ শেষ হয়েছে, এখন জনবল নিয়োগ, সংগ্রহশালা এলাকা সজ্জিতকরণ, নিদর্শন সংগ্রহ এবং আধুনিক ও ডিজিটাল জাদুঘর করার লক্ষে পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে বিস্তারিত বক্তব্য উপস্থাপন করে। কবিপুত্রদ্বয় বলেন, তাঁরা তাঁর বাবার কিছু স্মৃতি-নিদর্শন দিয়েছেন এবং আরো কিছু নিদর্শন দিবেন। তারা বলেন, কবির বাড়িসহ পুরো জায়গাটাই সংগ্রহশালাকে দিতে চান।
সভায় কবির ছেলে খুরশীদ আনোয়ার বলেন যে, পল্লীকবির মূল বাড়ি নির্মিত জাদুঘরের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করার সুযোগ রয়েছে। পল্লীকবির মূল বাস্তুভিটা এবং জাদুঘরের মধ্যে কেবল একটি দেয়ালের ব্যবধান। সভায় জানানো হয় যে, ১২.৬৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪ একর জমির ওপর এই সংগ্রহশালা তথা জাদুঘর নির্মাণ করা হয়েছে। গণপূর্ত বিভাগ এই নির্মাণকাজ সম্প্রতি সম্পন্ন করেছে। এখন প্রয়োজনীয় নিদর্শন পাওয়া গেলে ২ মাসের মধ্যেই সংগ্রহশালাটি উদ্বোধনের উপযোগী করা সম্ভব হবে। এই সংগ্রহশালার একটি পাঠাগার রয়েছে যার জন্য ইতোমধ্যে ২ হাজার বই সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়া কবির গ্রন্থের পাÐুলিপি, হাতে লেখা চিঠি, কবির ব্যবহৃত নিদর্শনসমূহ, সকল গ্রন্থের ১ম সংস্করণ, সাক্ষাৎকার ইত্যাদি সংগ্রহের উদ্যোগ চলমান আছে।
সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সংগ্রহশালাটি উদ্বোধন করতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন সংগ্রহশালাটি তাঁর এলাকায় বলে যত তাড়াতাড়ি উদ্বোধন করা যায় সে ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছেন। মন্ত্রী বলেন, নিদর্শন সংগ্রহ, জনবল ও অন্যান্য সাজ-সজ্জার কাজ দ্রæত শেষ করে আগামী দুই মাসের মধ্যে উদ্বোধন করার ব্যবস্থা করতে অনুরোধ জানান। মন্ত্রী মহোদয় আরো বলেন যে, কবি পরিবারের অভিপ্রায় অনুযায়ী কবির মূল বসতভিটা অ্যাকোয়ার করার প্রস্তাব বিবেচনা করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন