ঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ০২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

চট্টগ্রামে মাত্র তিন মিনিটে খুন!

সিটে লাশ বসিয়ে খুনিরা গাড়ি চালায় ১০ কি.মি. সাগরে ফেলতে গিয়ে আটক ছাত্রসহ ৩ জন

রফিকুল ইসলাম সেলিম | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

প্রাইভেট কার চালকের গলায় রশি পেঁচিয়ে তিন মিনিটেই মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়। এরপর চালকের আসন থেকে পেছনের সিটে বসানো হয় তাকে। মৃত চালককে সিটে বসিয়ে ১০ কিলোমিটার গাড়ি চালায় তারা। নিখুঁতভাবে খুন করলেও লাশ গুম করতে গিয়ে ধরা পড়ে খুনিচক্রের তিন সদস্য। তাদের মধ্যে একজন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীও রয়েছেন। চাঞ্চল্যকর এ খুনের ঘটনাটি ঘটেছে চট্টগ্রাম নগরীর উপকণ্ঠ সীতাকুন্ডের ভাটিয়ারীতে শুক্রবার রাতে।
নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (পশ্চিম) মো. ফারুক উল হক দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, প্রাইভেট কারটি ছিনতাই করার উদ্দেশেই তারা চালককে খুন করে। এ চক্রটি যাত্রীবেশে পেশাদার গাড়ি ছিনতাইকারী। তাদের তিনজনকে পাকড়াও করা হয়েছে। অপর একজনকে ধরতে অভিযান চলছে। গ্রেফতার তিনজন হলো- নোয়াখালীর চাটখিলের মাহফুজুর রহমানের পুত্র মীর হোসেন নিশান (২১), সীতাকুন্ডের রহমতনগরের মো. রফিকের পুত্র রবিউল হোসেন ইমন (২০), রাউজানের উরকিরচর এলাকার আবদুল সালামের পুত্র নেওয়াজ শরীফ (২৪)। তাদের অপর সহযোগী হলো সীতাকুন্ডের গোলাবাড়ীয়া গ্রামের সাইফুল ইসলামের পুত্র জসিম উদ্দিন নিশান (২২)। তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। এদের মধ্যে মীর হোসেন নিশান বেসরকারি পোর্ট সিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় সেমিস্টারের ছাত্র।
পুলিশ জানায়, খুনের শিকার চালক সীতাকুন্ডের আমিরাবাদ এলাকার আবুল কালাম ওরফে আলমের পুত্র নুরুল গণি শিমুল (২২)। তিনি ওই এলাকার জনৈক উজ্জ্বল কুমার দের ব্যক্তিগত গাড়ি চালক। ওই চার যুবক শুক্রবার রাতে সীতাকুন্ড থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার জন্য ১৫শ টাকায় প্রাইভেট কারটি (চট্ট মেট্রো-গ-১২-৫০২৬) ভাড়া করে। তাদের একজন চালক শিমুলের পাশে বসে। বাকি তিনজন পেছনের সিটে বসেছিল।
আকবরশাহ থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ মহিবুর রহমান ইনকিলাবকে বলেন, গাড়িটি সীতাকুন্ডের হাতিলোড়া নামক স্থানে আসার পর চালককে গাড়ি থামাতে বলা হয়। পরক্ষণে গাড়ির পেছনের সিটে বসা রবিউল হোসেন ইমন তার কাছে থাকা রশি চালকের গলায় পেঁচিয়ে টান দেয় এবং অন্যরা তাকে চেপে ধরে তিন মিনিটেই মৃত্যু নিশ্চিত করে। এরপর তাদের একজন চালকের আসনে যায় আর চালককে পেছনের সিটে ওই দুজনের মাঝখানে বসিয়ে দেয়া হয়। এ অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে লাশ গুম করার চেষ্টা করে তারা।
লাশটি বেড়িবাঁধ এলাকায় ফেলে দিতে যাচ্ছিল ওরা চারজন। ঈশান মহাজন রোড হয়ে ঘোষ বাড়ির কাছে পৌঁছলে প্রাইভেট কারের চাকা ড্রেনে আটকে যায়। গাড়ি পেছনের দিকে তুলতে গিয়ে সবিতা রাণী বিশ্বাস নামে এক নারীর বাড়ির সামনে গ্যাস লাইনের পাইপে ধাক্কা লাগে। এতে সবিতা রানীর সঙ্গে চারজনের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে স্থানীয়রা জড়ো হলে পেছনের সিটে দুই যুবকের পাশে অপরজনকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। লোকজন গাড়িতে লাশ কেন তা নিয়ে হৈ চৈ শুরু করে। অবস্থা বেগতিক দেখে গাড়ি থেকে নেমে চার যুবক পালাতে শুরু করে। এ সময় স্থানীয়রা নিশান ও ইমনকে ধরে ফেলে এবং গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দেয়। বাকি দুইজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পুলিশ চালক শিমুলকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
এদিকে গতকাল শনিবার সকালে চান্দগাঁও এলাকা থেকে নেওয়াজ শরীফকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা গাড়ি ছিনতাইয়ের উদ্দেশে চালককে খুনের কথা স্বীকার করে। তারা খুনের পর লাশটি টোল রোড হয়ে কাট্টলী সৈকত এলাকায় বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেয়ার জন্য যাওয়ার কথাও স্বীকার করে। প্রাইভেট কার থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রশি ও একটি ছুরি পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন থানার ওসি জসিম উদ্দিন।
পুলিশ জানায়, পালিয়ে যাওয়া খুনি চক্রের সদস্য জসিম উদ্দিন নিশান পেশাদার গাড়ি ছিনতাইকারী চক্রের মূলহোতা। এর আগেও এ ধরনের অপরাধ করেছে সে। তার বিরুদ্ধে সীতাকুন্ড থানায় ছয়টির মতো মামলা রয়েছে। সম্প্রতি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া নিশানসহ কয়েকজনকে নিয়ে নতুন দল গঠন করে জসিম। নুরুল গণি শিমুল হত্যার ঘটনায় তার বাবা বাদি হয়ে আকবরশাহ থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
Nurul Kabir ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৩ এএম says : 0
ক্রাশ মন্ত্রণালয়'র সচিব বেকারত্ব ই মূল কারণ! অলস মস্তিষ্ক কাজে লাগাতে হবে দ্রুত
Total Reply(0)
Abdul Karim Javed ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৩ এএম says : 0
আহ দেশ, এ যেনো জাহেলিয়াত কেও হার মানাচ্ছে, ছয় মামলার আসামি বাহিরে জীবিত কেনো মা.....রা
Total Reply(0)
Rafiq Islam ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৪ এএম says : 0
আইনের শাসন যখন Tuberculosis এ আক্রান্ত হয় তখন আর ভালো কিছু আশা করা যায় না। সৌদি আরব, পাকিস্তান সহ অনেক ইসলামিক স্টেটে প্রকাশ‍্যে মৃত্যু দন্ড কার্যকর করা হয় এব‌ং তা দেখে অপরাধ করার আর কেউ সাহস পায় না।বাংলাদেশ সরকার এটা করে না কারন এটা দেখে যদি তার দলের সোনার ছেলেদের ভিতরে ভয় ঢুকে যায়। পরে তো মিছিল মিটিং এ লোক খুঁজে পাবে না। আমি এবং আমার পরিবারের সকল সদস‍্য পিউর আওয়ামী লীগ করে। কিন্তু বর্তমান অবস্থা দেখে আওয়ামী লীগের প্রতি শ্রদ্ধা বোধে ফাটল ধরেছে। এটা কি জাতির জনকের বাংলাদেশ,এটা কি শেখ হাসিনার বাংলাদেশ। আবার কি মুক্তিযুদ্ধ করতে হবে ? সোজা কথা প্রকাশ‍্যে শাস্তির ব‍্যবস্হা করতে হবে ,নতুবা গদি ছাড়তে হবে। আইনের শাসন চাই ,নাটক নয়।
Total Reply(0)
মাসুম ভূঁইয়া ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
পাব্লিক স্পটেই তিনজনকে মেরে ফেললে ভালো হতো, অন্তত পক্ষে জীবনের জন্য অন্ধ বা বিকলাঙ্গ করে দিলে ভালো হতো। এদের মতো পিশাচদের বেচে থাকার অধিকার নেই।
Total Reply(0)
Abdul Kader Sumon ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
যত দিন না আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত না হবে তত দিন এমন ঘটনা হবে।দ্রুত আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত করতে হবে খুনের জন্য ফাঁসি।
Total Reply(0)
Ahsan Habib ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
এ বদমাশদের ক্রস ফায়ার দিলেননা কেন।তারা এতো কম বয়সে এ পেশায় জরিয়ে গেছে,তারা ভবিষ্যতে চুক্তি করে মানুষ খুন করবে তাই তাদেরকে বাচিয়ে রাখা ঠিক হবেনা।
Total Reply(0)
Abdullah Fahad Abir ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
এত প্রতিভাবান ছেলেদের গ্রেফতার করা হলো কেন! এদেশে সত্যই গুনের মূল্যায়ন নাই
Total Reply(0)
ওমর ফারুক ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১:৫৬ এএম says : 0
আগের ছয়টি মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়েছে কিভাবে ? শাস্তি দেয়া হলে তো এমন টা হতো না।
Total Reply(0)
MAHMUD ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ৮:৩৩ এএম says : 0
Only ALLAH known to well, where going our country. Main is unemployment problem in BANGLADESH. Before never seen college and university students make robbery, snatch, picpocket and etc others bad activities. No job, they need money, that means, an idle brain is the devils workshop. Govt should creat job oppurtunity for unepmloymet educated persons.
Total Reply(0)
M.ISMAIL K AHMED ১৯ এপ্রিল, ২০১৯, ৮:২২ পিএম says : 0
rastro jokon chor dakati diya election kora hoy eikhane chor dakater rajatto thaka shobabik ei jonne shorkar change khboy jaruri
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন