ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ইসলামী বিশ্ব

গাজায় যুদ্ধবিরতির পরও ইসরাইলি হামলা অব্যাহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

গাজা উপত্যকায় শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া সামরিক উত্তেজনার পর অস্ত্রবিরতি ঘোষণা করা হয়েছে। তবে ইসরাইল হামলা অব্যাহত রেখেছে। ফিলিস্তিনের এক কর্মকর্তার বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, মিসরের মধ্যস্থতায় সোমবার স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৪টা থেকে শুরু হয়েছে এ অস্ত্রবিরতি।
দোহাভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশন জানিয়েছে, মিসর ও কাতারের মধ্যস্থতায় ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হলেও ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে নিশ্চিত কিছু জানায়নি। গত দুই দিনের লড়াইয়ে ২৯ ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ। এদিকে যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পরও রোববার রাতজুড়ে বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে দখলদার ইসরাইল। সোমবার সকালে ইসরাইলি যুদ্ধবিমান দক্ষিণ গাজার খান ইউনুসের একটি আবাসিক ভবন সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে। জবাবে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসও ইসরাইলি শহর ও জনবসতিতে আবার রকেট নিক্ষেপ করেছে। হামাস বলছে, ইসরাইল ফিলিস্তিনি জনগণের দাবি না মানলে চলমান যুদ্ধ থামবে না। অন্যদিকে হামাসের রকেট হামলায় চার ইসরাইলি নিহত হয়েছে।
গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরাইলি হামলার কারণে ১৪৬ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন এবং গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় ১৫টি আবাসিক ভবন সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। রোববার ফিলিস্তিনি অনলাইন অ্যক্টিভিস্টরা একটি ভিডিও ফুটেজ স¤প্রচার করেছে, যাতে ইসরাইলি হামলার মুহূর্তগুলো দেখা যাচ্ছিল। ভিডিওটি পরবর্তীতে ভাইরাল হয়ে গেছে।
গাজায় হামলার প্রতি শতভাগ সমর্থন ট্রাম্পের
ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি বাহিনীর হামলার প্রতি শতভাগ সমর্থন জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। রোববার এক টুইটবার্তায় ট্রাম্প তার সমর্থনের কথা জানান। ইসরাইল আবারও হামাস ও ইসলামী জিহাদের সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলোর মারাত্মক রকেট আক্রমণের মুখোমুখি হয়েছে। ইসরাইলি নাগরিকদের রক্ষায় এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ইসরাইলি বাহিনীর প্রতিরোধকে আমরা শতভাগ সমর্থন জানাচ্ছি। ট্রাম্প আরও লেখেন, ইসরাইলের বিরুদ্ধে গাজার জনগণের এসব সন্ত্রাসী কর্মকান্ড তাদের শুধু দুঃখই বাড়াবে, এর বেশি কিছু তারা পাবে না। তাই অবিলম্বে গাজাবাসীর এ ধরনের সহিংসতা বন্ধ করে শান্তির জন্য কাজ করার আহ্বান জানান ট্রাম্প। সূত্র : ওয়েবসাইট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Nurul Islam ৭ মে, ২০১৯, ৯:০৭ এএম says : 0
ট্রামপ এক কুকুর।তাই এক কুকুরতো আরেক কুকুরকে সর্মথন করবেই। এতে অবাক হ হওয়ার কিছুই নেই।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন