বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

শাহনাজ রহমতউল্লাহ আজীবন সম্মাননায় ভুষিত

প্রকাশের সময় : ৩০ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিনোদন ডেস্ক : প্রদান করা হলো সিম্ফনি-চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড-১৬। চ্যানেল আই-এর আয়োজনে এবারের আসরটি ১১তম। গত ২৭ মে সন্ধ্যায় ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেল-এর বলরুমে এই অনুষ্ঠানকে ঘিরে বসেছিলো শিল্পীদের মিলনমেলা। জমকালো আয়োজনে এই অনুষ্ঠানেই প্রদান করা হয় সঙ্গীতে ক্রিটিক ও পপুলার চয়েস-এ মোট ১৭টি ক্যাটাগরিতে সিম্ফনি-চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড-২০১৬। অনুুষ্ঠানে বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহকে দেয়া হয় ‘আজীবন সম্মাননা। তার হাতে উত্তরীয়, ক্রেস্ট ও এক লাখ টাকার চেক তুলে দেন- চ্যানেল আই ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, এডিসন গ্রæপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকারিয়া শাহিদ, চ্যানেল আই পরিচালনা পর্ষদ সদস্য জহিরউদ্দিন মাহমুদ মামুন, নায়করাজ রাজ্জাক ও বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী সৈয়দ আবদুল হাদী। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন আনন্দ আলো সম্পাদক রেজানুর রহমান ও অনুষ্ঠান উপস্থাপক ফারজানা ব্রাউনিয়া। সম্মাননা গ্রহণ করে শাহনাজ রহমতউল্লাহ বলেন, এটি আমার শ্রোতাদের ভালোবাসারই অংশ। চ্যানেল আইকে ধন্যবাদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে হারানো শিল্পীদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন নায়করাজ রাজ্জাক, সৈয়দ আবদুল হাদী, আলম খান, লাকী আখন্দ, তপন মাহমুদ, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, কুমার বিশ্বজিৎ, বাপ্পা মজুমদার, মানাম আহমেদ প্রমুখ। অ্যাওয়ার্ড প্রদানের পাশাপাশি ছিল দেশসেরা নবীন-প্রবীণ শিল্পীদের মনমাতানো বিভিন্ন পরিবেশনা। অনুুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন- মমতাজ ও ফজলুর রহমান বাবু, ও সাদি মহম্মদ ও শাওন, তারিন, কুসুম সিকদার এবং বাংলার গানের সেরা সাত শিল্পীরা। মিউজিক ফিউশন করেছে জলের গান। অনুুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন ফারজানা ব্রাউনিয়া। পরিচালনা করেন শহিদুল আলম সাচ্চু। পুরস্কার পেলেন যারা-ক্রিটিক (১৩টি): উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত (কণ্ঠ)- প্রিয়াংকা গোপ (অ্যালবাম: রাগা ডিলাইটস্, গান: ট্র্যাক- ০১)। রবীন্দ্র সঙ্গীত- অদিতি মহসিন (অ্যালবাম: মম রূপে বেশে, গান : অ্যালবামের সব গান)। নজরুল সঙ্গীত- ইয়াসমিন মুশতারী (অ্যালবাম: রাঙা অতিথি, গান: গানগুলি মোর...)। লোক সঙ্গীত- মমতাজ (অ্যালবাম: মাঝি, গান : হতাশা...)। আধুনিক গান- কনক চাঁপা অ্যালবাম: আড়ালে, গান : কোনদিন আসে না যেন সেদিন...)। নবাগত শিল্পী- নির্বাচিতা (অ্যালবাম: আসবে না ফিরে, গান : ফুল বনে মন ছিলো...)। সঙ্গীত পরিচালক- আলাউদ্দিন আলী (অ্যালবাম: সোনালী গান, গান : শত জনমের স্বপ্ন...)। শ্রেষ্ঠ গীতিকার- রবিউল ইসলাম জীবন (অ্যালবাম: ঐশী এক্সপ্রেস, গান: রোদ সরিয়ে...)। ছায়াছবির গান- (অ্যালবাম: অচেনা হৃদয়, গান : যতদিন ধরে বাঁচি... শিল্পী : বেলাল খান ও কোনাল)। কাভার ডিজাইন- প্লাবন বি (অ্যালবাম: ক্ষমা করো)। সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার- আজম বাবু (অ্যালবাম: জলছবি)। সেরা ব্যান্ড- শিরোনামহীন (অ্যালবাম: শিরোনামহীন)। মিউজিক ভিডিও নির্মাতা- তানিম রহমান অংশু (অ্যালবাম: হারিয়ে ফেলা ভালবাসা, গান: হারিয়ে ফেলা ভালোবাসা...)। পপুলার চয়েস (৪টি): আধুনিক গান- ফাহমিদা নবী (অ্যালবাম: ও গান: তুমি অভিমানে)। সেরা ব্যান্ড- অবস্কিউর, অ্যালবাম: অবস্কিউর ও বাংলাদেশ, গান: আজাদ...)। নবাগত শিল্পী (যৌথভাবে)- জিনিয়া জাফরিন লুইপা ও ঐশী, লুইপা- (গান ও অ্যালবাম: ছায়াবাজি) এবং ঐশী- (অ্যালবাম: ঐশী এক্সপ্রেস, গান: ব্রেক আপ...)। ছায়াছবির গান- সামিনা চৌধুরী (ছায়াছবি ও অ্যালবাম: সুতপা’র ঠিকানা, গান: গুণে গুণে এক দুই...)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন