ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে উপচে পড়া ভিড়

আইয়ুব আলী : | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

মহানগরীসহ বৃহত্তর চট্টগ্রামে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। বৈরি আবহাওয়া উপেক্ষা করে ঈদের দিন বিকেল থেকে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ভিড় করে দর্শনার্থীরা। চট্টগ্রাম নগরীর প্রধান বিনোদন কেন্দ্র পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত, ফয়’স লেক, চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা, বিমানবন্দর সংলগ্ন বাটারফ্লাই পার্কে পরিবার-পরিজন এবং বন্ধু-বান্ধব নিয়ে হৈ-হুল্লোড় করে গতকাল বৃহস্পতিবারও সময় কাটিয়েছেন বিনোদন পিয়াসীরা।

ঈদুল আজহার টানা ছুটিতে নগরীর বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে সময় কাটাচ্ছেন বিনোদন প্রেমীরা। বিনোদন কেন্দ্র ফয়স লেকে সার্কাস সুইং, বাম্পার কার, ফ্যামিলি রোলার কোস্টার, ফেরিস হুইল, পাইরেট শিপ, রেড ড্রাই স্লাইড, ইয়েলো ড্রাই স্লাইড, বাগ বাউন্স রাইডে চড়ে উচ্ছ¡াসে মেতে উঠে শিশুরা। এছাড়া ফয়স লেক সিওয়ার্ল্ডেও শিশু-কিশোর, যুবক-যুবতীরা ভিজে গানের তালে তালে জলকেলিতে মেতেছেন।

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় ছিল দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। সবচেয়ে বেশি ভিড় ছিল জেব্রা এবং বানরের খাঁচার সামনে। বানর ও বিভিন্ন প্রজাতির পাখির খাঁচার সামনে বেশি জটলা ছিল শিশুদের। অন্যদিকে বাঘ এবং সিংহের খাঁচার সামনেও ছিল উৎসুক দর্শনার্থীদের ভিড়। এছাড়া নগরীর বহদ্দাহাটের স্বাধীনতা কমপ্লেক্সে জাতীয় সংসদ ভবন, আহসান মঞ্জিল, কার্জন হল, কান্তজির মন্দির, লালবাগ কেল্লা, বড় কুঠি, ছোট কুঠি, সেন্ট নিকোলাস চার্চ, দরবার হল, হাই কোর্ট, শহীদ মিনার, জাতীয় স্মৃতিসৌধ, ট্রেনের নিচে ব্রিজ, ছয়টি কিউচ (বসার স্টল), চিরন্তন পল্লী, সোনা মসজিদ, পাহাড়পুর বিহারসহ উল্লেখযোগ্য মিনি স্থাপনা ঘুরে দেখেন দর্শনার্থীরা।

রিভলবিং রেস্টুরেন্টে খাবারের স্বাদ নিতে অনেকে পরিবার নিয়ে ছুটে যান। বেলুন হুইল, বাম্পার কার, মিউজিক সুইং, আর বি ট্রেন, কয়েন বোট ও কিডস জোনে শিশুরা আনন্দে মেতে উঠে। নগরীর বিমানবন্দর রোডের বাটারফ্লাই পার্কেও ভিড় ছিল দর্শনার্থীদের। তারা পার্কে ঘুরে ঘুরে প্রজাপতির সাথে আনন্দ করে। রঙ বেরঙের প্রজাপতি দেখে শিশুরা ছোটাছুটি করে।

নগরীর কাজির দেউড়ি এবং আগ্রাবাদের কর্ণফুলী শিশু পার্কেও ঈদের ছুটি উপভোগ করতে বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষ পার্কে ভিড় করেন। পার্কে শিশুরা বিভিন্ন রাইডে চড়ে আনন্দ উপভোগ করে। সেই আনন্দে সামিল হন অভিভাবকেরাও। আগ্রাবাদ জাম্বুরি পার্কে সব শ্রেণি পেশা বয়সের মানুষের ভিড় জমে। এছাড়া বিনোদন কেন্দ্রের বাইরে নগরীর সিআরবি, কর্ণফুলী সেতু, অভয়মিত্র ঘাট, জাম্বুরি মাঠের পার্ক, নেভাল টু এবং মেহেদিবাগের ওয়ার সিমেট্রিতেও দর্শনার্থীরা ভিড় করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Abu Baker Siddique ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ৭:৫২ এএম says : 0
To what extent should we enjoy ourselves when Muslim brothers & sisters in Indian occupied Kashmir are deprived of celebrating their Eidul Azha in a manner?
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন