ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রংপুর-৩ উপ নির্বাচনে সাদ এরশাদ জয়ী

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:৪১ পিএম | আপডেট : ৮:০৬ পিএম, ৫ অক্টোবর, ২০১৯

রংপুর-৩ উপনির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন জাতীয় পার্টি ও মহাজোট প্রার্থী হিসেবে মরহুম হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে রাহগির আলমাহি সাদ এরশাদ (সাদ এরশাদ)। গননা শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে মোট ১৭৫টি ভোট কেন্দ্রের সবক’টির ফলাফল ঘোষণা করা হয়।
ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী জাতীয় পার্টির প্রার্থী সাদ এরশাদ লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে ৫৮,৮৭৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত প্রার্থী রিটা রহমান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৬,৯৪৭ ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী এরশাদের ভাতিজা হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ মোটর গাড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৪,৯৮৪ ভোট। ফলাফল অনুযায়ী প্রদত্ত ভোটের হার ২১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

রংপুর সদর উপজেলা ও সিটি করর্পোরেশন নিয়ে গঠিত এ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৪২ হাজার ৭২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ২১ হাজার ৩১০ জন এবং নারী ভোটার ২ লাখ ২০ হাজার ৭৬২ জন। গত একাদশ সংসদ নির্বাচনে এ আসনে ১ লাখ ৪২ হাজার ৯২৬ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছিলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী রিটা রহমান পেয়েছিলেন ৫৩ হাজার ৮৯ ভোট। ওই নির্বাচনে ভোট পড়েছিল ৫২ দশমিক ৩১ শতাংশ।
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন এরশাদ গত ১৪ জুলাই চিকৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ায় আসনটি শুন্য ঘোষণা করা হয়।

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের গত ১৪ জুলাই মৃত্যুর পর গত ১৬ জুলাই আসনটি শুন্য ঘোষনা করে নির্বাচন কমিশন। আজ শনিবার এ আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯ টায় ইলেক্ট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম)’র মাধ্যমে এ ভোট গ্রহন শুরু হয়ে বিকেলে ৫ টা পর্যন্ত বিরতহীন ভাবে ভোট গ্রহন চলে। গননা শেষে নির্বাচন কমিশন রাহগির আলমাহি সাদ এরশাদকে বিজয়ী ঘোষণা করে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
দীনমজুর কহে ৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:২০ পিএম says : 0
২১.৩১ভাগ ভোট পড়েছে এটা কম কথা নয় আমাদের জানার বিযয় হল যারা ভোট দিতে গিয়ে ছিল তারা তাদের পছন্দের প্রার্থীর প্রতিকে ভোট দিতে পারছে তো? নাকি শীল দিয়ে রাখা ছিলো?এ সরকারের যথেষ্ঠ উন্নায়ন থাকা সত্যেও - চাটুকারদের জন্য জনপ্রিয়তা হ্রাস পেয়েছে ।এখন বুঝতে পেরে প্রধানমন্ত্রী গনেশ পাল্টে দিয়েছে। অভিযান সফল হোক।গনতত্ন্র মুক্তি পাক।।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন