ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

স্ত্রীসহ দুই নারীকে ভারতে পাচারের দায়ের স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

সাতক্ষীরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:০২ পিএম

সাতক্ষীরায় নিজ স্ত্রীসহ দুই নারীকে ভারতে পাচারের অভিযোগে স্বামী পঙ্কজ বিশ্বাসকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক হোসনে আরা আক্তার এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি পঙ্কজ বিশ্বাস যশোরের চাঁচড়া রুপদিয়া এলাকার আনন্দ বিশ্বাসের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, আসামি পঙ্কজ বিশ্বাস শ্যামনগর উপজেলার গোদাড়া গ্রামে রাজমিস্ত্রির কাজ করার সুবাদে ওই গ্রামের আব্দুল খালেক গাজীর মেয়ে রহিমা খাতুনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে।

এরপর পঙ্কজ মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করে রহিমাকে বিয়ে করার পর সেখানে ঘরজামাই হিসেবে বসবাস শুরু করে।

একপর্যায়ে সে ২০০৮ সালের ৪ মার্চ স্ত্রী রহিমা ও তার চাচাতো বোন হাবিবুল্লাহ গাজীর মেয়ে নার্গিস পারভীনকে নিয়ে তার গ্রামের বাড়ি যশোরে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে তাদের ভারতে পাচার করে দেয়।

অনেক খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে রহিমার বাবা খালেক গাজী বাদী হয়ে আসামি পঙ্ক্জ বিশ্বাসসহ ৬ জনের নামে ২০০৮ সালের ১৪ মার্চ শ্যামনগর থানায় একটি পাচার মামলা দায়ের করেন।

এরপর দীর্ঘ তদন্ত শেষে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আরিফ ১৩ জনের নামে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন।

মঙ্গলবার বার এ মামলায় ছয়জন সাক্ষীরা সাক্ষ্য গ্রহণ ও নথি পর্যালোচনা করে আসামি পঙ্কজ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে উল্লিখিত সাজার আদেশ দেন।

তবে, এ মামলার অন্যান্য আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদের বেকসুর খালাস প্রদান করেন।

সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট জহুরুল হায়দার বাবু জানান, আসামিরা পলাতক রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন