সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১, ০৮ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭

প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : চট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২, নওগাঁর মহাদেবপুর ও সাপাহারে ৩, টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ট্রাক চালক নিহত এবং রাজশাহী চারঘাটে মোটর সাইলে চালক নিহত হন।
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, নগরীতে মঙ্গলবার মধ্যরাতে পৃথক দুটি দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছেন। সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় রাত ২টায় নগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন ষোলশহর এলাকায় প্রাণতোষ (২৪) নামের এক পথচারী এবং রাত আড়াইটার দিকে বন্দর থানা এলাকায় লরির চাপায় আরেক লরির চালক নবজিত (৩৫) নিহত হন। নিহত প্রাণতোষের গ্রামের বাড়ি আনোয়ারা উপজেলার চিকনদন্ডী এলাকায়। অন্যদিকে নবজিতের গ্রামের বাড়ি বোয়ালখালী উপজেলায়।
নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা জানান, বুধবার দুপুরে নওগাঁর মহাদেবপুর ও সাপাহারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরো ৩২ জন। মহাদেবপুর উপজেলার নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই আব্দুল হাকিম জানান, নওগাঁ সদর উপজেলার হাসাইগাড়ী ইউনিয়নের পাঠাকাটা গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে চার্জার ভ্যান চালক লিটন (২৭) তার ভ্যানগাড়ীতে করে সৌর বিদ্যুতের সরমজামসহ সৌর বিদ্যুতের দুজন কর্মীকে নিয়ে বুধবার সকাল ১১ টার দিকে সৌর বিদ্যুৎ স্থাপনের জন্য নওগাঁ সদরের দুবলহাটী যাওয়ার পথে নওগাঁ-রাজশাহী মহা-সড়কের খামারবাড়ি নামক স্থানে পৌছলে মান্দা থেকে ঢাকা অভিমুখি রকি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী দ্রুতগামী বাস চার্জার ভ্যানকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে চার্জার ভ্যান চালক লিটন মারা যায়।
ভ্যানে থাকা  সৌর বিদ্যুতের দুই কর্মীকে আশংকাজনক অবস্থায় স্থানিয়রা উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে এক জনের মৃত্যু হয়। অপর নিহত একজন হলেন, সৌর বিদ্যুতের কর্মী ও বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ঘুরঘাটা গ্রামের মোজাম্মেল এর ছেলে এনামুল হক (২৭) ও আহত তার সহযোগী একই উপজেলার জাহাঙ্গিরাবাদ গ্রামের মোকলেছুর রহমানের ছেলে মাহাফুজ (৩০) বলে পুলিশ জানিয়েছে।
সাপাহার থানার ওসি রেজাউল ইসলাম জানান, বেলা ১১টায় উপজেলার তাজপুর নামক স্থানে একটি যাত্রীবাহী বাস ও অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পার্শ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক নাজির উদ্দিন নামে একজন নিহত এবং কমপক্ষে ৩০ যাত্রী আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়।
মির্জাপুর উপজেলা সংবাদদাতা জানান, টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে যাত্রীবাহী বাস ও মালভর্তি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ট্রাকের চালক নিহত ও বাসের চালক আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের শুভুল্যা নাককস্থানের এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হাসান আলী গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলার গবিন্ধরায় গ্রামের মৃত আফজাল আলীর ছেলে।
দুর্ঘটনার পর মহাসড়কে যানচালাচল বন্ধ হয়ে এক ঘণ্টা স্থায়ী প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। পুলিশ জানিয়েছেন, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা টাঙ্গাইলগামী ট্রাক ও পাবনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ঈগল পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস মহাসড়কের ওই স্থানে পৌঁছালে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ট্রাক ও বাসের চালক গুরুতর আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সকালে ট্রাকের চালক হাসান আলী মারা যায়।  
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার পুলিশ ফায়ারিং রেঞ্জের সামনে গতকাল বিকেলে ট্রাকের চাপায় সাইদ হোসেন (৩২) নামের এক মোটর সাইকেল চালক নিহত হয়েছেন।
নিহত মোটর সাইকেল চালক সাইদ কুষ্টিয়া জেলার ফুলতলা গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে। ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করলেও চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। রাজশাহীর চারঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, চারঘাট পুলিশ ফায়ারিং রেঞ্জের সামনে দিয়ে মোটর সাইকেল নিয়ে যাচ্ছিল সাইদ হোসেন। এ সময় পেছন থেকে তাকে চাপা দেয় মালবাহী ট্রাক। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চারঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন