ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

আমি কুয়েত প্রবাসী। বাংলাদেশী কয়েকজন বন্ধু আমার রুমমেট। তারা কাজ শেষ করে রাতের বেলা রুমে এসে মেয়েদের সাথে মোবাইলের মাধ্যমে অশ্লীল কথাবার্তা, অঙ্গভঙ্গী করে। তারা এটার নাম দিয়েছে ভার্চুয়াল সেক্স। প্রশ্ন হলো, এটা করাতে তারা কতটুকু গোনাহগার হচ্ছে, এই জন্য কি তারা জিনার গুনায় অভিযুক্ত হবে?

ইলিয়াস আলী
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৭:৩৩ পিএম

উত্তর : শুধু কল্পনা করে কোনো যৌন আচরণ করলেও গুনাহ হয়। বেগানা নারী ইচ্ছাকৃতভাবে দেখলে চোখের জিনা হয়। স্পর্শ করলে হাতের জিনা হয়। ভাবলে মনের জিনা হয়। সে দিকে অগ্রসর হলে পায়ের জিনা হয়। এসব কথা বললে বা শুনলে মুখ ও কানের জিনা হয়। জিনা মানে জিনার মত গুনাহ হয়। তাহলে আপনার প্রশ্নের জবাব এ নীতিমালা থেকেই নিয়ে নিন। ঠিক জিনার সমান শাস্তি না হলেও গুনাহ সমান হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। কারণ, পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে, ‘লা তাকরাবুজ জিনা, ইন্নাহু কানা ফাহিশাতাও ওয়া ছাআ ছাবিলা’। অর্থাৎ তোমরা জিনার ধারে কাছেও যেও না। নিঃসন্দেহে ইহা অশ্লিলতা ও খুবই মন্দ পথ। (আল কোরআন)। এখানে ধারে কাছেও যেও না থেকে কী বোঝা যায়? যেসব কাজ বা আচরণ জিনার কাছাকাছি, প্রেরণাদাতা বা পরিণামে জিনার দিকে নিয়ে যায়, সবই হারাম বা জিনার অনুসঙ্গ। অতএব, মৃত্যু থেকে বাঁচার জন্য যেমন মৃত্যুর কারণগুলো থেকে বাঁচতে হয়, তেমনই জিনা থেকে বাঁচতে হলে জিনার কারণ সমূহ থেকে বাঁচতে হবে। 

উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Dr. S. M. Shamsur Rahman ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১১:৪৮ এএম says : 0
Crystal clear answer. May the Almighty Allah bless you with good health and peaceful long life.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন