শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

১৫৯৬ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন পিকে হালদার

আপিল বিভাগে খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

‘ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে অন্তত ১৫৯৬ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পি. কে. হালদারসহ কয়েকজন ব্যক্তি। এই টাকা কোথায় গেছে তার হদিস মিলছে না। আমানতকারীরা টাকা যাবেন। তাদের টাকা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্ণর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ। গতকাল মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে গঠিত আপিল বিভাগীয় বেঞ্চে এ অভিমত তুলে ধরেন তিনি। অভিমতে বাংলাদেশের নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দুরবস্থার চিত্রই ফুটে ওঠে। একই বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের অবস্থান তুলে ধরেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শাহ আলম।

খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, আমানতকারীরা টাকা পাবেন, তাদের টাকা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। পি কে হালদারসহ কয়েকজন ব্যক্তি ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে প্রায় ১৫৯৬ কোটি টাকা তুলে নিয়েছেন। এই টাকা কোথায় গেছে তার হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। আদালত তাদের মতামত শোনেন। পরে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শুনানিতে আদালতকে বলেন, পিকে হালদার কীভাবে পালিয়ে গেল? এরপর প্রধান বিচারপতি বলেন, আর্থিক খাতের দুর্নীতি ও অনিয়মের বিষয়ে যদি অন্তত কিছু অ্যাকশন নেয়া যায় তাহলে অন্যরা সতর্ক হবে। শুনানি শেষে আদালত আদেশের জন্য আজ বুধবার পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

এর আগে, পিপলস লিজিংকে অবসায়ন করা হয়েছে। এখন যদি ইন্টারন্যাশনাল লিজিংকেও অবসায়ন করা হয় তাহলে এ সেক্টরে বিরূপ প্রভাব পড়বে। তিনি বলেন, আমি মাত্র দায়িত্ব নিয়েছি। এখান থেকে ইন্টারন্যাশনালকে বাঁচিয়ে রাখা যাবে কি না তা এখন বলা সম্ভব হচ্ছে না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শাহ আলম বলেন, ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের অনিময়মের বিষয় যখন জানতে পেরেছি তখনই দুদক ও গোয়েন্দা সংস্থাকে ব্যবস্থা নিতে বলেছি। আর বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক গোয়েন্দা ইউনিট এ বিষয়ে একটা প্রতিবেন দিয়েছে। পুরো প্রতিবেদন এখনও দেয়নি। খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদকে চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয়া হয়েছে তাকে সুযোগ দেয়া হলে তিনি ইন্টারন্যাশনাল লিজিংকে পুনর্গঠন করতে পারবেন।

ইন্টারনাশনাল লিজিংয়ের পরিচালকদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম। সরকারপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। শুনানি শেষে তিনি বলেন, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অবসায়ন করা হবে কি না, সে বিষয়ে আদেশের জন্য আগামীকাল (আজ বুধবার) দিন ধার্য করেছেন।’

উল্লেখ্য, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের নির্দেশে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেডের (আইএলএফএসএল) স্বাধীন চেয়ারম্যান খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালকের নিচে নয় এমন একজন কর্মকর্তাকে আসতে বলেন আপিল বিভাগ। ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের প্রকৃত অর্থনৈতিক অবস্থা কি রকম আছে, অবসায়ন হওয়ার মতো অবস্থায় আছে কিনা, আর্থিক অনিয়ম হলে কোন পর্যায়ে আছে, অর্থনৈতিক অবস্থার বিষয়ে সামগ্রিক অবস্থা নিয়ে তাদের ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়।

গত ১৯ জানুয়ারি হাইকোর্ট এক আদেশে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের কোম্পানি ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেড পরিচালনার জন্য স্বাধীন পরিচালক ও চেয়ারম্যান হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্ণর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদকে নিয়োগ দেন। একইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান চেয়ারম্যান, এমডি, বহুল আলোচিত প্রশান্ত কুমার হালদারসহ (পিকে হালদার) ১৩ পরিচালকের ব্যাংক হিসাব ও পাসপোর্ট জব্দ করতে বলা হয়। পাশাপাশি ২০ জনের দেশত্যাগের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। প্রশান্ত কুমার হালদার বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বে থেকে অন্তত সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন-মর্মে অভিযোগ উঠেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps