শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঘরে বসে চলছে আপিল বিভাগের সব কার্যক্রম

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের কার্যক্রম চলছে ঘরে বসেই। বিচারপতিগণ,আসামি এবং সরকারপক্ষীয় আইনজীবী সবাই সুপ্রিম কোর্টের শুনানিতে সংযুক্ত হচ্ছেন ভার্চুয়ালি। গতমঙ্গলবার থেকে আপিল বিভাগের সর্বাত্মক বিচার কার্যক্রম ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে চলছে।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে পূর্ণাঙ্গরূপে বিচারকাজ পরিচালনা করেন। আর সেখানে ভার্চুয়াল বেঞ্চের বিচারপতি ও সংশ্লিষ্ট মামলায় সরকার ও আসামিপক্ষের আইনজীবী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারী সবাই নিজ নিজ বাসা থেকে শুনানিতে অংশ নিচ্ছেন।

এ বিষয়ে গতকাল বুধবার সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার ও মুখপত্র ব্যারিস্টার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান বলেন, আপিল বিভাগের বিচারপতিবৃন্দ নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করে ভার্চুয়াল শুনানিতে যুক্ত হচ্ছেন।

এটর্নি জেনারেল এবং তার অফিসের অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল ও ডেপুটি এটর্নি জেনারেলগণ নিজ নিজ বাড়ি থেকে শুনানিতে যুক্ত হচ্ছেন। আদালতে আইনজীবীগণ তাদের নিজ নিজ বাসা থেকে শুনানিতে সংযুক্ত ছিলেন। সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ তারাও নিজ নিজ বাড়ি অবস্থান করেই সংযুক্ত হয়েছেন আদালতের কার্যক্রমে। এদিন আপিল বিভাগে ২টি ডেথ রেফারেন্স সংক্রান্ত জেল পিটিশন মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে।

এর আগে সারাদেশে ৭ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ ঘোষণা করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর বিধিনিষেধের মেয়াদ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়। পরে সুপ্রিম কোর্টর রেজিস্টার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত পৃথক তিনটি অফিস আদেশ জারি করা হয়। এতে বলা হয়, করোনাভাইরাসের উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সরকার ঘোষিত ৭ দিনের লকডাউনে (বিধিনিষেধ) সীমিত পরিসরে চলবে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচার কাজ।

আরেক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উপযুক্ত বিষয়ে নির্দেশিত হয়ে জানানো যাচ্ছে যে, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবজনিত উদ্ভুত পরিস্থিতিতে হাইকোর্ট বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম ১ জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত সীমিত পরিসরে চলবে।
রিট ও দেওয়ানি, ফৌজদারি এবং কোম্পানি ও অ্যাডমিরালটি সংক্রান্ত একটি করে মোট তিনটি বেঞ্চ ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে অতি জরুরি বিষয়ে শুনানি করছেন। তবে বিচারকসহ সবাইকে নিজ বাসস্থান থেকে যুক্ত হতে হচ্ছে।

এ সময় আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। বিচারপতিরা, সংশ্লিষ্ট মামলার আইনজীবী ও অন্যান্য কর্মকর্তারা নিজ বাসা থেকে ভার্চুয়ালি শুনানি করবেন। এ ছাড়াও সীমিত আকারে ভার্চুয়ালে হাইকোর্টের তিনটি বেঞ্চে চলবে বিচার কাজ। দেশের অধস্তন সব আদালত বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি বিষয় শুনানির জন্যে ম্যাজিস্ট্রেটের কোর্ট চলবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন