ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

এবার সীমিত পরিসরে হজ, সউদীর বাইরের কেউ অংশগ্রহণ করতে পারবে না

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০২০, ৩:৪১ পিএম

সারা পৃথিবীর মতো সউদী আরবেও মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। এমন প্রাদুর্ভাবের মধ্যে এবারের হজ অনুষ্ঠিত হবে কি হবে না, তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা আর দুশ্চিন্তা ছড়িয়ে পড়েছিল সারা বিশ্বের মুসলমানদের মধ্যে। অবশেষে সার্বিক দিক বিবেচনা করে সউদী আরব অত্যন্ত ‘সীমিত আকারে’ হজ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সোমবার রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে এই সিদ্ধান্ত জানিয়েছে দেশটির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, শুধু সউদী আরবের নাগরিক এবং এই দেশে যারা অবস্থান করছেন তারাই এবার হজ করতে পারবেন। এছাড়া কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজন করা হবে এবারের হজ। বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে আমরা দীর্ঘদিন ভেবেছি, আলোচনা করেছি। আমাদের কাছে দুটি প্রস্তাব ছিল- সীমিত আকারে হজ আয়োজন করা এবং সম্পূর্ণ বাতিল করে দেওয়া। সার্বিক দিক বিবেচনায় আমরা প্রথম পথটিই বেছে নিয়েছি। এটা আমাদের জন্য ছিল ‘অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত’।

সবশেষ তথ্যানুযায়ী, সউদী আরবে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬১ হাজার ১১৪ জন। মৃত্যুবরণ করেছেন ১ হাজার ৩০৯ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লাখ ৫ হাজার ২১৭ জন। আক্রান্তের তালিকায় দেশটির অবস্থান ১৫-তে। গত কয়েকদিনে দেশটিতে নতুন করে সংক্রমণ বেড়ে গেছে লকডাউন শিথিল করার পর।

জাতীয় হজ কমিটির কাছে থাকা তথ্য থেকে জানা গিয়েছে, হজযাত্রার প্রস্তুতির জন্য মাত্র কয়েক সপ্তাহ বাকি রয়েছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ফলে ২২২ বছর পর বাতিল হতে চলেছে হজযাত্রা। সোমবার ঘোষণায় বলা হয়, বিভিন্ন দেশের মুসলিম যারা বর্তমানে সউদী আরবে বসবাস করেন, তাঁদের নিয়েই সীমিত সংখ্যক লোক নিয়ে এবারের হজ অনুষ্ঠিত হবে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। এখন পর্যন্ত কোনো ভ্যাকসিন বা প্রতিষেধক বের হয়নি। এই অবস্থায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা লাখো হাজিদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা কঠিন হয়ে পড়বে। সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় ইতোমধ্যে মুসলিম অধ্যুষিত দেশ যেমন ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ব্রুনাই, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও কম্বোডিয়ায় হজযাত্রা বাতিল করার ঘোষণা করা হয়েছে। হজযাত্রা নিয়ে সউদী আরবের হজ কমিটির বিজ্ঞপ্তির এতদিন সবাই তাকিয়ে ছিলেন। বাংলাদেশের প্রায় ৬৪ হাজার ৫০০ হজযাত্রী চরম অনিশ্চয়তায় ভুগছিলেন। বাংলাদেশের এক ট্রাভেলসের তরফ থেকে জানা গিয়েছে, দেশের সরকারের পক্ষ থেকে হজের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত না আসায় হজ এজেন্সিগুলো ও চরম উৎকন্ঠায় রয়েছে। চাঁদে দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩০ জুলাই হজ হবার কথা। এ দিকে করোনা মহামারীতে হজ ও ট্রাভেলস এজেন্সিগুলো দেউলিয়ার পথে বসেছে। অফিস ভাড়া ও কর্মচারীদের বেতন দিতে পারছে না এজেন্সিগুলো। সূত্র: গালফ নিউজ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন