ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

প্রচণ্ড চাপের মুখে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি নেপালের প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০২০, ১২:৪২ পিএম

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা অলিকে বুধবার কাঠমান্ডুর এক হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। বুকে যন্ত্রণা অনুভব করায় তাঁকে দেশটির শহীদ গঙ্গালাল ন্যাশনাল হার্ট সেন্টারে ভর্তি করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা সূর্য থাপা অবশ্য টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার অংশ হিসেবে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।
সীমান্তে বিতর্কিত ভূখণ্ড নিজেদের মানচিত্রে যুক্ত করা নিয়ে প্রতিবেশি ভারতের সঙ্গে উত্তেজনা চলছে, ঠিক তখনই দেশে নিজ দলের ভেতরে কে. পি শর্মার পদত্যাগের দাবি উঠেছে। দেশটির ক্ষমতাসীন নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির জ্যেষ্ঠ কয়েকজন নেতা প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি তোলার পর মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার বৈঠক ডেকেছিলেন অলি।
দলের কো-চেয়ারম্যান পুষ্প কামাল দহল, মাধব নেপাল, ঝালানাথ খানাল ও বামদেব গৌতমসহ জ্যেষ্ঠ আরও কয়েকজন নেতা বিভিন্ন ইস্যুতে ব্যর্থতার অভিযোগ এনে প্রধানমন্ত্রী অলিকে পদত্যাগের আহ্বান জানান।
বুধবার হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে সর্বশেষ মার্চ মাসের শেষ দিকে ত্রিভুবন ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ওই সময় হার্ট রেট বেড়ে যাওয়ায় তাকে হাসপাতালে নেওয়া হলে তার চিকিৎসক ডা. দিব্য সিং জানান তাকে ওই হাসপাতালের মহমোহন কার্ডিওথোরাকিক ভাস্কুলার অ্যান্ড ট্রান্সপ্লান্ট সেন্টারে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।
এছাড়া মার্চের শুরুতে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়। তার ৩২ বছর বয়সী ভাতিজি সমীক্ষা সাংরাওলা কিডনি দান করেন। এছাড়া গত বছর নেপালের প্রধানমন্ত্রী সিঙ্গাপুরে প্লাজমাথেরাপি গ্রহণ করেন।
নেপালে এখন অলির পদত্যাগের দাবি তীব্রতর হচ্ছে। শুধু বিরোধীরা নন, শাসকদল নেপাল কমিউনিস্ট পার্টিরে ভেতরেও এখন অলি-বিরোধী হাওয়া। দলের অনেক প্রবীণ নেতাই কেপি শর্মা অলিকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখতে চাইছেন না। প্রধানমন্ত্রী পদে ইস্তফা দেয়ার জন্য অলির উপর চাপ বাড়ছে।
ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটিয়ে চীনের সঙ্গে অলির মাখামাখি তারা ভালো চোখে দেখছেন না। সংগঠনের মধ্যেই এ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। শুধু প্রধানমন্ত্রী পদ নন, অলিকে পার্টির প্রধানের পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার কথাও উঠেছে। স্বাভাবিক কারণেই চাপে পড়েছেন অলি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Ardhendu ৩ জুলাই, ২০২০, ৬:৫৮ এএম says : 0
একদম ঠিক করবে, এই বেকার লোকটা কে সরিয়ে, দালাল চীন এর এ। চীন থেকে প্রচুর অর্থ নিয়ে দালালি করছে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন