ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অলির ‘অযোধ্যা’ মন্তব্য কারো ভাবাবেগে আঘাতের উদ্দেশ্যে নয়- নেপাল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জুলাই, ২০২০, ৬:২২ পিএম

হিন্দুদের দেবতা রামের জন্ম নেপালে দাবি করে অযোধ্যা নিয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রী অলি মন্তব্যে বিতর্ক শুরু হওয়ায় তার ব্যাখ্যা দিয়েছে নেপালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বুধবার বিবৃতি জারি করে জানানো হয়েছে, অযোধ্যা নিয়ে এই মন্তব্যে কারোর ভাবাবেগে আঘাত করা উদ্দেশ্য ছিল না নেপালের। বিতর্কিত এলাকা নেপালের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করে ভারতের রোষের পড়েছিলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী অলি। এরপর মঙ্গলবার তিনি দাবি করেন, রাম ভারতে নয় নেপালে জন্মেছিলেন। কাজেই আসল অযোধ্যা নেপালে রয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। তার পরেই শোরগোল পড়ে যায় নেপালে। এমনকি অলির মন্তব্য নিয়ে রীতিমতো সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে ভারতেও।

এ বিষয়ে নেপালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, কারোর রাজনৈতিক ভাবাবেগে আঘাত করা উদ্দেশ্য ছিল না প্রধানমন্ত্রীর। ভারতে অযোধ্যাকেও অবমাননা করা হয়নি তার বক্তব্যে। রামায়ণে নেপালেরও যে যোগ রয়েছে সেকথা বোঝাতেই প্রধানমন্ত্রী অলি এই মন্তব্য করেছেন বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার ভানু জয়ন্তী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী অলির নিজের বাসভবনে একটি অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ভারত যে অযোধ্যাকে রামের জন্মভূমি হিসেবে উল্লেখ করে সেই তথ্য সঠিক নয়। তার দাবি নেপালের বীরগঞ্জে থোরিতে আসল অযোধ্যা অবস্থিত। তিনি বলেন, ‘ভারত ভারতের একটি জায়গাকে অযোধ্যা বলে উল্লেখ করে।’

ওলি এদিন স্পষ্টভাবে বলেন, ‘বীরগঞ্জের পশ্চিমে থোরিতে অবস্থিত অযোধ্যা। নেপালেই অবস্থিত বাল্মিকী আশ্রম আর নেপালেই রিদিতে দশরথ পুত্র সন্তান লাভের জন্য যজ্ঞ করেছিলেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘দশরথের ছেলে রাম ভারতীয় ছিলেন না আর অযোধ্যাও নেপালে।’ ওলি এও বলেন যে, তার এই তত্ত্ব শুনে অনেকেই তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পারেন।

ইতিমধ্যেই নেপালের প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যের বিরোধিতা করে ভারতে বিজেপির মুখপাত্র বিজয় সোনকর শাস্ত্রী বলেন, ‘ভারতেও মানুষের বিশ্বাস নিয়ে ছিনিমিনি খেলে বামেরা। আর নেপালেও কমিউনিস্ট পার্টিকে বর্জন করবে মানুষ, ঠিক যেমন এখানে হয়েছে।’ সূত্র: দ্য হিমালয়ান।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন