ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

চেলসিকে হারিয়ে শিরোপা আর্সেনালের

এফএ কাপ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০২০, ৩:৩১ পিএম

ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচের লক্ষ্যভেদে ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে গেল চেলসি। গোল হজম করে দমে না গিয়ে বরং ঘুরে দাঁড়াল আর্সেনাল। পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং দুই অর্ধেই জালের ঠিকানা খুঁজে নিয়ে এফএ কাপের শিরোপা পাইয়ে দিলেন দলটিকে।

শনিবার রাতে দর্শকশূন্য ফাইনালে দশ জনের চেলসিকে ২-১ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আর্সেনাল। পৃথিবীর প্রাচীনতম ক্লাব আসরের সফলতম দলটির এটি ১৪তম শিরোপা।

ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। বল দখলে চেলসি এগিয়ে থাকলেও সুযোগ তৈরিতে প্রাধান্য দেখায় আর্সেনাল।

চতুর্থ মিনিটেই গোল পেয়ে যেতে পারত চেলসি। তরুণ ফরোয়ার্ড ম্যাসন মাউন্টের দূরপাল্লার শট ঝাঁপিয়ে রুখে দেন এমিলিয়ানো মার্তিনেজ। পরের মিনিটে জাল আর অক্ষত রাখতে পারেননি আর্সেনালের আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক। অলিভিয়ের জিরুর ফ্লিক থেকে বল পেয়ে গোল করেন যুক্তরাষ্ট্রের মিডফিল্ডার পুলিসিচ।

নিকোলাস পেপের গোল অফসাইডের কারণে বাতিল হওয়ার তিন মিনিট পর সমতায় ফেরে আর্সেনাল। স্পট-কিক থেকে ঠাণ্ডা মাথায় বল জালে পাঠান গ্যাবনের ফরোয়ার্ড অবামেয়াং। তাকে চেলসি অধিনায়ক সেসার অ্যাজপিলিকুয়েতা ডি-বক্সের ভেতরে ফাউল করায় পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

৬৮তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে কাঙ্ক্ষিত গোলটি পেয়ে যায় গানাররা। পেপের পাসে ডি-বক্সের ভেতরে ব্লুজ ডিফেন্ডার কার্ট জুমাকে এড়িয়ে নিশানা ভেদ করেন অবামেয়াং। তাতে সেমি-ফাইনালের পর ফাইনালেও জোড়া গোল আসে তার পা থেকে।

১১ জন নিয়ে ম্যাচ শেষ করতে পারেননি চেলসি। ৭৩তম মিনিটে গ্রানিত জাকাকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন মাতেও কোভাচিচ।

ম্যাচের বাকি সময়ে কোনো দলই গোল করতে না পারায় স্কোরলাইনে কোনো পরিবর্তন আসেনি। আর রেফারি শেষ বাঁশি বাজানোর সঙ্গে সঙ্গে শিরোপা জয়ের উৎসবে মাতে মিকেল আর্তেতার শিষ্যরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন